• শুক্রবার, ০৩ জুলাই ২০২০, ১৯ আষাঢ় ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এবার যা হওয়ার হবে রাস্তায়, জানালেন গয়েশ্বর

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ নভেম্বর ২০১৯, ১৫:৩২
গয়েশ্বর চন্দ্র রায়
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। (ফাইল ছবি)

নেতারা অনেক সময় নির্দেশ দিতে পারেন না বলে উল্লেখ করে কর্মীদের উদ্দেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, নির্দেশ দিতে না পারলেও কর্মীদের বসে থাকলে চলবে না। একাত্তর সালেও নেতারা নির্দেশ দিতে পারেননি। তখন অখ্যাত একজন মেজর স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কেউ প্রশ্ন করেনি তুমি কে এ ঘোষণা দেওয়ার। তখন সবাই ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে যুদ্ধে নেমেছিল। সুতরাং আর প্রেসক্লাবে নয়, যা হবে রাস্তায় হবে।’

শুক্রবার (০৮ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হল রুমে তারেক পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তরের এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় আর প্রেস ক্লাবে আলোচনা করার সুযোগ নেই জানিয়ে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, আমাদের এখন সময় হয়েছে রাস্তায় নামার। আদালতের মাধ্যমে নেত্রীর মুক্তি হবে না। এটা বুঝে গেছি। সুতরাং আপনাদের প্রাণের দাবি ও আকাঙ্খাবোধ যদি তীব্র হয়, যদি খালেদা জিয়ার মুক্তি চান তাহলে আপনারা প্রস্তুত হন। কারও আশা ভরসার ওপর নির্ভর না করে রাস্তায় নামতে হবে।

‘নেতা ডাকল কি ডাকল না সেটা দেখার দরকার নেই। আমাদের অধিকার আছে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য পথে নামার,’ যোগ করেন তিনি।

খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রসঙ্গে বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে আর দীর্ঘ সময় অপেক্ষা নয়, এখনই সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়। দল ভুল করবে বলে আমি মনে করি না। আমি বিশ্বাস করি, আমাদের নেতৃবৃন্দ কিংবা দল নিশ্চয়ই বিষয়টা বিবেচনায় রাখবেন। আপনারা প্রস্তুত থাকেন।

আলোচনা সভায় তারেক পরিষদ ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি সাহেদুল ইসলাম লরেনের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামুজ্জামান দুদু, যুগ্মমহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, সহসাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড