• বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সংসদ ভবনে খোকার লাশ

মৃত্যুর আগে খোকার শেষ কথাটি জানালেন পুত্র

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৭ নভেম্বর ২০১৯, ১১:২৪
সাদেক হোসেন খোকা
সাদেক হোসেন খোকা (ছবি : ফাইল ফটো)

অবিভক্ত ঢাকার সর্বশেষ মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার দ্বিতীয় নামাজে জানাজার জন্য তার লাশ জাতীয় সংসদ ভবন চত্বরে নেওয়া হয়েছে। কিছুক্ষণের মধ্যেই অনুষ্ঠিত হবে তার দ্বিতীয় নামাজে জানাজা। 

বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) বেলা ১১টায় সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ জাতীয় সংসদ ভবন চত্বরে নেওয়া হয়। তার নামাজে জানাজা শুরু হওয়ার পূর্বে ছেলে ইশরাক হোসেন খোকা উপস্থিত ব্যক্তিদের সামনে বক্তব্য রাখেন। 

পুত্র ইশরাক হোসেন আবেগঘন কণ্ঠে বলেন, আমি কখনো সংসদ ভবনে আসিনি। বাবা চার বারের সাংসদ হওয়া স্বত্ত্বেও কখনো আসা হয় নি। এই প্রথম আমি এসেছি। আজ ভাবতে অবাক লাগছে যে বাবা আমার সাথে নেই।    

উপস্থিত বর্তমান ও সাবেক সংসদ সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়ে ইশরাক বলেন, আমি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি, যে আপনারা সবাই আমার বাবার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে তার নামাজে জানাজায় এসেছেন। আমার বাবার কোনো ভুল হয়ে থাকলে আপনারা তাকে ক্ষমা করে দেবেন। 

এ সময় আবেগাপ্লুত হয়ে খোকার ছেলে বলেন, বাবা মৃত্যুর পূর্বে একটি কথা খুব জিজ্ঞেস করতেন। আমার কি কফিনের বাক্সে ভরে দেশে ফিরতে হবে। মুক্তিযুদ্ধ করে যে দেশটা স্বাধীন করলাম সেই দেশে কি আমাকে কফিনের বাক্সে ভরে ফিরতে হবে। বাবার সেই কথাটিই আজ সত্যি হলো।   

এর আগে সকাল ৮টা ২৬ মিনিটে অ্যামিরেটস এয়ারলাইনসের ফ্লাইটে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছায় সাদেক হোসেন খোকার মরদেহ।

গত ৪ নভেম্বর বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টা ৫০মিনিট নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোন ক্যাটারিং ক্যানসার সেন্টারে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। দীর্ঘদিন ধরে তিনি কিডনির ক্যানসারে আক্রান্ত ছিলেন।

এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাত ১১টায় জেএফকে বিমানবন্দর থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে খোকার মরদেহ ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। মরদেহের সঙ্গে রয়েছেন খোকার স্ত্রী ইসমত হোসেন, দুই ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন ও ইশফাক হোসেন, একমাত্র মেয়ে সারিকা সাদেক ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম।

সাদেক হোসেন খোকার শ্যালক শফিউল আলম আজম খান জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে তার মরদেহ ঢাকায় আনা হচ্ছে। তার শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী, জুরাইন কবরস্থানে মা-বাবার কবরের পাশে তাকে দাফন করা হবে।

জানা গেছে, ঢাকায় সাদেক হোসেন খোকার ৪টি জানাযা শেষে তাকে দাফন করা হবে, বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় খোকার প্রথম জানাজা হবে। সেখান থেকে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে তাকে নেওয়া হবে। দলের পক্ষ থেকে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা প্রয়াত খোকার মরদেহে ফুলেল শ্রদ্ধা জানাবেন।

বাদ জোহর দলীয় কার্যালয়ের সামনে খোকার জানাজা হবে। সেখান থেকে তার নিজ জন্মস্থান রাজধানীর গোপীবাগ নেওয়া হবে মরদেহ। বিকেলে গোপীবাগ ও ধুপখোলা মাঠে খোকার আরও দুটি জানাজা হওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, চিকিৎসার জন্য ২০১৪ সালের ১৪ মে সাদেক হোসেন খোকা যুক্তরাষ্ট্র যান। যুক্তরাষ্ট্রে থাকাকালে সাদেক হোসেন খোকার বিরুদ্ধে দেশে কয়েকটি দুর্নীতির মামলা হয়। রাজধানীর বনানী সুপার মার্কেটের কার পার্কিংয়ের ইজারা দুর্নীতির মামলায় খোকাসহ ৪ জনের ১০ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড হয়। গত বছরের ২৮ নভেম্বর ঢাকা বিভাগীয় স্পেশাল জজ মিজানুর রহমান খান এ রায় ঘোষণা করেন।

সাদেক হোসেন খোকা ১৯৫২ সালের ১২ মে ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। মাওলানা ভাসানীর ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টিতে (ন্যাপ) যোগ দিয়ে রাজনীতিতে প্রবেশ করেন তিনি। পরবর্তীতে আশির দশকে বামপন্থী রাজনীতি ছেড়ে বিএনপিতে যোগ দেন।১৯৯১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রথম সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন এবং তার দল সরকার গঠন করলে তিনি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব লাভ করেন। পরবর্তীতে ১৯৯৬ এবং ২০০১ সালেও তিনি সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন এবং ২০০১ সালে তার দল সরকার গঠন করলে তিনি মৎস্য ও পশুসম্পদ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব লাভ করেন। তিনি সরাসরি নির্বাচনে জয় লাভের মাধ্যমে ২০০২ সালের ২৫ এপ্রিল ঢাকার মেয়র হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

ওডি/এআর 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড