• বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার ৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আরও কি পরিমাণ পানি আসবে এমন তথ্য নেই পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে।
১/৪
বুধবার (২০ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে তিস্তা নদীর পানি বিপৎসীমার ৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আরও কি পরিমাণ পানি আসবে এমন তথ্য নেই পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে।
হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল জানান, তিস্তা নদীর পানি হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়ায় পানির স্রোতে বড়খাতা-হাতীবান্ধা বাইপাস সড়কটি বিভিন্ন স্থানে ভেঙে গেছে। এতে তার ইউনিয়নের কয়েক হাজার পরিবার পানিবন্দিসহ পুরো লালমনিরহাট জেলার ৫ উপজেলার তিস্তা তীরবর্তী হাজার হাজার একর ফসলি জমি পানিতে ডুবে গেছে।
২/৪
হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক শ্যামল জানান, তিস্তা নদীর পানি হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়ায় পানির স্রোতে বড়খাতা-হাতীবান্ধা বাইপাস সড়কটি বিভিন্ন স্থানে ভেঙে গেছে। এতে তার ইউনিয়নের কয়েক হাজার পরিবার পানিবন্দিসহ পুরো লালমনিরহাট জেলার ৫ উপজেলার তিস্তা তীরবর্তী হাজার হাজার একর ফসলি জমি পানিতে ডুবে গেছে।
জেলা পরিষদ সদস্য শাকিল হোসেন জানান, বালু পড়ে তিস্তা ব্যারেজের গেটগুলো বন্ধ হয়ে গেলেও ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ গেট থেকে বালু সরিয়ে ফেলেনি। ফলে তিস্তা ফ্লাড বাইপাসে পানির চাপ বেড়ে গিয়ে তা ভেঙে যায়। এতে তিস্তার পানি শহরে ঢুকে পড়ছে।
৩/৪
জেলা পরিষদ সদস্য শাকিল হোসেন জানান, বালু পড়ে তিস্তা ব্যারেজের গেটগুলো বন্ধ হয়ে গেলেও ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ গেট থেকে বালু সরিয়ে ফেলেনি। ফলে তিস্তা ফ্লাড বাইপাসে পানির চাপ বেড়ে গিয়ে তা ভেঙে যায়। এতে তিস্তার পানি শহরে ঢুকে পড়ছে।
এ ব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর দৈনিক অধিকারকে বলেন, পানির চাপে তিস্তা ফ্লাড বাইপাস ভেঙে গেছে। এতে তিস্তার তীরবর্তী অঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ইউএনওদের মাধ্যমে বন্যা পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।
৪/৪
এ ব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর দৈনিক অধিকারকে বলেন, পানির চাপে তিস্তা ফ্লাড বাইপাস ভেঙে গেছে। এতে তিস্তার তীরবর্তী অঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ইউএনওদের মাধ্যমে বন্যা পরিস্থিতির খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে।

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড