• রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আন্দোলনে রিকশামালিক কয়জন?

  মনিরুল ইসলাম মনি

১০ জুলাই ২০১৯, ২১:৩৭
মানববন্ধনে রিকশাচালক-মালিকদের একাংশ; (ছবি : সংগৃহীত)

প‌থে-ঘা‌টে বে‌রো‌লেই দুই-একজন রিকশাচাল‌ককে ঠুন‌কো ব্যাপার নি‌য়ে নির্যাত‌নের শিকার হ‌তে দে‌খি। মা‌ঝে মা‌ঝে খু‌নের ম‌তো ঘটনাও দে‌খি প‌ত্রিকার পাতা কিংবা টে‌লি‌ভিশ‌নের পর্দায়। কিন্তু আমার কা‌ছে একটা ব্যাপার নি‌য়ে ব্যাপক খটকা ছিল, অবাকও হতাম, এখনো হই। ‌সে‌টি হ‌চ্ছে একসম‌য়ের তি‌লোত্তমা নগরীর ঐতিহ্য রিকশার চালকরা অবলীলায় পিটুনি খাচ্ছে, অথচ এত সংখ্যাগরিষ্টতা থাকার পরও তারা কোনো প্রতিবাদই করছে না। এটি মনের মধ্যে শুধুই কৌতুহল হিসেবে ছিল। কারণ যাচাই করিনি কখনো, চেষ্টাও করিনি। আমার মধ্যে তখন একটা প্রশ্নও কাজ করত। বাস, ট্রাক, সিএনজিচালক বা মালিকদের সংগঠন থাকলেও রিকশাচালকদের কোনো সংগঠন নাই কেন? অবশ্য মালিকদের একটি শক্তিশালী সংগঠন আছে। প্রথমে ভাবতাম, লেখাপড়া না জানাটাই মনে হয় কারণ হবে। পরে ভাবলাম, পরিবহন সেক্টরের অন্য সংগঠনের সদস্যরাও তো অশিক্ষিত। হয়তো কেউ কেউ শিক্ষিত। খুঁজলে এমনটি রিকশাচালকদের মধ্যেও পাওয়া যাবে। 

রাজধানীর প্রধান সড়কে রিকশা বন্ধের সিটি কর্পোরেশনের এমন সিদ্ধান্তের পর দেখি অগণিত রিকশাচালক রাস্তা অবরোধ করে আন্দোলন করছে। আন্দোলন দেখে আরেকবার অবাক হলাম। এরা এত তাড়াতাড়ি এত সংঘবদ্ধ হলো কীভাবে?

ব্যাপারটা নিয়ে একটু ভাবলাম। একটু ভেবে, একটা কারণ উদঘাটন করলাম। জানি না এটা কতটা যৌক্তিক! উদঘাটিত কারণটা একটু শেয়ার করি- 
রাজধানীর যারা রিকশাচালক তাদের বেশিরভাগই ভাড়া রিকশা চালায়। আর কারও রিকশা থাকলেও সেটা ১০০ জনের মধ্যে হয়তো ১টা হবে। আর মালিকদের সংখ্যা খুবই কম। কিন্তু তারা তথাকথিত মহাজনের ভূমিকায় মহাজনি অঙ্ক কষেন এখনো। রিকশা ভাড়া দিয়ে বনে গেছে কোটিপতিতে! একটি রিকশা ২৪ ঘণ্টায় ২ বার ভাড়া দেন। অর্থাৎ একটি রিকশা থেকে একদিনে ডাবল আউটপুট! কি দারুণ ব্যবসা! তাই না? 

রাজধানীতে যদি টোটালি রিকশা বন্ধও হয়ে যায় তাহলে রিকশাচালকদের হয়তো তেমন কোনো যায় আসবে না। কারণ এখন কাজের লোকের খুব বেশি খরা। কিন্তু প্রকৃত অর্থে ক্ষতিগ্রস্ত হবে তথাকথিত মহাজনরা। যারা একটি টিকিটে ডাবল প্রোগ্রাম উপভোগ করেন। আহ্ কি মজা? তাদের স্বার্থ উদ্ধারেই তারা রিকশাচালকদের আন্দোলনে ব্যবহার করছেন। মূলত এটি রিকশাচালকদের আন্দোলন নয়, রিকশামালিকদের আন্দোলন। অনেকটা এইরকম- ডিম পাড়ে মুরগি, খায় দারোগা বাবু।

লেখক: স্টাফ রিপোর্টার, মোহনা টিভি

চলমান আলোচিত ঘটনা বা দৃষ্টি আকর্ষণযোগ্য সমসাময়িক বিষয়ে আপনার মতামত আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই, সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড