• সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সবার রোজা কবুল করুন

  রহমান মৃধা

০৭ এপ্রিল ২০২৩, ১৫:১৬
সবার রোজা কবুল করুন
ফাইজারের প্রোডাকশন অ্যান্ড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের সাবেক পরিচালক রহমান মৃধা (ছবি : সংগৃহীত)

থাকি শীতের দেশে, বছরের প্রায় নয় মাসই ঠাণ্ডা। শরীরের তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বাইরের তাপমাত্রা কখনো মাইনাস ৩০ ডিগ্রী কখনো প্লাস ৩০ ডিগ্রী। শ্বাস প্রশ্বাসের কারণে আমার শরীর প্রতিক্ষণ যে পরিমাণ শক্তি ব্যয় করছে সেটা নিয়ে ভাবছি। এও ভাবছি কি চমৎকার ভাবে শরীরের নানা অঙ্গ প্রত্যঙ্গ সক্রিয়ভাবে কাজ করে শরীরের তাপমাত্রা সারাক্ষণ নিয়ন্ত্রণে রেখেছে। একই সময় রক্ত পা থেকে মাথা অবধি চলাচল করছে এবং অক্সিজেন থেকে শুরু করে যেখানে যা দরকার সেটা সময় মত পৌঁছে দিচ্ছে।

শরীরের স্নায়ুতন্ত্র সময় মত যখন যে বার্তা যেখানে দরকার পাঠিয়ে চলছে। ভাবনা তার গতিতে কাজ করে চলছে। পাকস্থলী খাবারকে হজম করা থেকে শুরু করে যথাযথভাবে তার দায়িত্বে অটুট। চোখ, কান, নাক, ব্রেন শতভাগ দায়িত্ব পালনে অটুট। আমি স্রষ্টার সৃষ্টি মানুষ, আমি পৃথিবীর শুধু শ্রেষ্ঠ জীব নই আমি পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ কোম্পানি।

কীভাবে বুঝব আমার কোম্পানি শ্রেষ্ঠ? যখন সবকিছু চমৎকারভাবে পরিচালিত হচ্ছে, যখন আমি ফিলিং গুড তখন মনে হচ্ছে আমার কোম্পানি শ্রেষ্ঠ। কিন্তু যখন ফিলিং ব্যাড তখন সাহায্যের জন্য ছুটি। এমনও সময় মাঝে মধ্যে দেখা দেয় যখন কোন উপায় থাকে না সমাধানের, তখন কি করি? স্রষ্টার কাছে প্রার্থনা করি। সে প্রার্থনা হতে পারে এক বা একাধিক। তবে স্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং তার রহমতের প্রশংসা করি কখন জানেন?

নানা জনের নানা উত্তর হতে পারে। তবে প্রতিদিন পাঁচ বার নামাজে প্রতিটি রাকাতে যে সুরাটি পাঠ করি সেটা হচ্ছে সুরা ফাতিহা। মূলত সুরা ফাতিহা সেই সত্যিকার মোনাজাত যেখানে রয়েছে স্রষ্টার প্রতি কৃতজ্ঞতা এবং তার রহমতের প্রশংসার চাবিকাঠি।

স্রষ্টা সুরা ফাতিহার মাধ্যমে জানিয়েছেন কীভাবে মোনাজাত করতে হয়।

পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মত সুইডেনেও রোজা চলছে। সুইডেন মূলত একটি লম্বা দেশ, দেখতে এমন।

সবার রোজা কবুল করুন

প্রচণ্ড শীত এখানে এবং শীতে দিন ছোট রাত বড় হয়ে থাকে। এবছর রোজা পড়েছে চমৎকার একটি সময়ে দেখুন সূর্য অস্ত এবং উদয়ের টাইম টেবিলটি।

সবার রোজা কবুল করুন

এ বছর রোজা রাখা জটিল বলে মনে হচ্ছে না। তবে জটিল মনে হচ্ছে যখন দেখছি সারা বিশ্বে রমজান মাসে খাবারে পিছে বেশি অর্থ ব্যয় হচ্ছে! খাবার এমন একটি জিনিষ যা সবারই প্রয়োজন। চাহিদানুযায়ী খাবার না পাওয়া গেলে খাবারে সংকট দেখা দেয়। সংকটের কারণে দামও চড়া হতে থাকে।

যাদের টাকা আছে তারা চড়া দামে সেটা কেনে। পরে এমন একটি সময় আসে তখন অর্থ থাকলেও খাবার পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ে আর তখনই শুরু হয় ক্রাইসিস; পরিবার, সমাজ, দেশ এবং গোটা বিশ্বে কিন্তু রমজান মাসে খাবারে ক্রাইসিস বুজতে পারছিনে! আমরা প্রকৃত পক্ষে রোজা পালন করার যে তাৎপর্য সেটা কি সঠিক ভাবে মেনে চলছি? ভাবছি!

হঠাৎ মনে হলো রমজান মাসে আসুন সবাই বার বার সুরা ফাতিয়াকে অনুসরণ এবং অনুকরণ করি।

পরম করুণাময় অতীব দয়ালু আল্লাহর নামে।

সমস্ত প্রশংসা জগত সমূহের প্রতিপালক আল্লাহর জন্যে।

অনন্ত দয়াময়, অতীব দয়ালু।

প্রতিফল দিবসের মালিক।

আমরা শুধু আপনারই দাসত্ব করি এবং শুধু আপনারই নিকট সাহায্য কামনা করি।

আমাদের সরল পথনির্দেশ দান করুন।

তাদের পথে, যাদের আপনি অনুগ্রহ করেছেন।

এবং তাদের পথে নয় যারা আপনার ক্রোধের শিকার ও পথভ্রষ্ট ।

লেখক : রহমান মৃধা, সাবেক পরিচালক (প্রোডাকশন অ্যান্ড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট), ফাইজার, সুইডেন।

[email protected]

(মতামত পাতায় প্রকাশিত লেখা একান্ত লেখকের মত। এর সঙ্গে পত্রিকার সম্পাদকীয় নীতিমালার কোনো সম্পর্ক নেই।)

চলমান আলোচিত ঘটনা বা দৃষ্টি আকর্ষণযোগ্য সমসাময়িক বিষয়ে আপনার মতামত আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই, সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড