• বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারত-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু নাট্য উৎসব : খান শওকতের লেখনীতে নব ইতিহাসের সূচনা

  নিখিল কুমার রায়

০৭ নভেম্বর ২০২২, ১১:১৬
ভারত-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু নাট্য উৎসব : খান শওকতের লেখনীতে নব ইতিহাসের সূচনা

“ভারত বাংলাদেশ মৈত্রী চিরজীবী হোক” এই স্লোগানকে সামনে রেখে আসছে ১৮ ডিসেম্বর ২০২২ তারিখে কলকাতায় যাদবপুরের গরফায় সংস্কৃতি চক্র মঞ্চে এবং ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে ময়মনসিংহের ত্রিশালের কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে, ঝিনাইদহে, খুলনার ডুমুরিয়ায়, যশোরের নোয়াপাড়ায় এবং কলকাতার একাধিক স্থানে নিউইয়র্ক প্রবাসী নাট্যকার খান শওকতের লেখা “বঙ্গবন্ধু নাট্য সমগ্র”- তে প্রকাশিত বাংলাদেশের জাতির পিতা, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি ও পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে বাঙালি জাতির মুক্তিদাতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনভিত্তিক নাটকসমূহ নিয়ে দুই বাংলায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ভারত-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু নাট্য উৎসব-২০২২ এবং ২০২৩; ফেব্রুয়ারি মাসের ২ থেকে ১২ তারিখ পর্যন্ত বাংলাদেশে এবং ১৭ ও ১৮ তারিখে কলকাতার রাশবাহারীর তপন থিয়েটারে এ নাট্য উৎসব অনুষ্ঠিত হবে।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর এ পর্যন্ত কখনো বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে দুই দেশের নাট্যকর্মীদের অংশগ্রহণে ভারত-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু নাট্য উৎসব অনুষ্ঠিত হয়নি। এবার সেই ঐতিহাসিক আয়োজন সফল হতে যাচ্ছে। আর সবচেয়ে আনন্দের কথা যে এই উৎসবে যতগুলো নাটক মঞ্চস্থ হবে তার সবকটি নাটকের লেখক নিউইয়র্ক প্রবাসী নাট্যকার খান শওকত। তার লেখা নিয়েই এ নতুন ইতিহাসের সূচনা হতে যাচ্ছে দুই বাংলায়। উল্লেখিত ডিসেম্বর ও ফেব্রুয়ারির নাট্য উৎসবের সফলতা দেখে ২০২৩ সালের মার্চ/এপ্রিল থেকে যে কোন নাট্যকারের লেখা বঙ্গবন্ধু বিষয়ক নাটক তাদের নাট্য উৎসবে সংযুক্ত করা হবে।

সেসব নাট্যকার বা নাট্যদলকে এ নাট্য উৎসব পরিষদের অংশীদার করা হবে। মোটকথা এই নাট্য উৎসব কমিটি চেষ্টা করছে সবাইকে নিয়ে দুই বাংলায় এবং প্রবাসে “শুধুমাত্র বঙ্গবন্ধু বিষয়ক নাটক” প্রদর্শনীর বিষয়ে একটা বড় প্লাটফরম তৈরি করতে। এ ধরনের উদ্যোগ নিঃসন্দেহে নাট্যাঙ্গনকে আরও সমৃদ্ধ করবে।

উক্ত নাট্য উৎসবে কলকাতার: যাদবপুর দলমাদল পরিবেশন করবে- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব, গোবরাপুর সংবিত্তি নাট্য সংস্থা পরিবেশন করবে- হানাদার, বাকসা ব্রাত্য নাট্যজন পরিবেশন করবে- খুনি ডালিম বলছি, এবং টাকীর আমরা অমলকান্তি পরিবেশন করবে- আসামির কাঠগড়ায় মেজর ডালিম। আর বাংলাদেশের সিলেটের দেশ থিয়েটার পরিবেশন করবে- স্বাধীনতার ঘোষক, পাবনা থিয়েটার-৭৭ এর- আমার বাড়ি টুঙ্গীপাড়া, জয়পুরহাটের পাঁচবিবি থিয়েটারের- ৭ই মার্চের ভাষণ, ত্রিশালের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যুগবাণী থিয়েটারের শিল্পীরা পরিবেশন করবেন আমার নেতা শেখ মুজিব, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নাটক- মুজিব বাইয়া যাওরে, টঙ্গীর নাট্যভূমির নাটক- শহীদ রাসেল, ফরিদপুরের নাটমহলের নাটক, কুমিল্লার গ্রাম থিয়েটারের নাটক, ঝিনাইদহের অংকুর নাট্যগোষ্ঠীর নাটকসহ বেশ কয়েকটি নাট্যদল উক্ত নাট্য উৎসবে অংশ নেবেন।

নাট্যকার খান শওকত রচিত “বঙ্গবন্ধু নাট্য সমগ্র”-র নাটক সমূহ নিয়ে এই নাট্য উৎসবের বাইরেও দুই বাংলার বেশ কিছু নাট্যদল কাজ করছেন।

বঙ্গবন্ধু নাট্য সমগ্রে প্রকাশিত নাটক ও চরিত্র সংখ্যা হলো : (১. বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক, ২৬ টি চরিত্র), ২. কলঙ্কিত-৭৫ (১ দৃশ্যের নাটক, ১ টি চরিত্র). ৩. আমাদের বঙ্গবন্ধু (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক, ২৫ টি চরিত্র), ৪. স্বাধীনতার ঘোষক (১ দৃশ্যের নাটক, ৫ টি চরিত্র). ৫.বঙ্গবন্ধুর সামনে জিয়া (১ দৃশ্যের নাটক, ৫ টি চরিত্র). ৬. মহামান্য রাষ্ট্রপতি (১ দৃশ্যের নাটক, ৭ টি চরিত্র). ৭. খুনি ডালিম বলছি (১ দৃশ্যের নাটক, ৭ টি চরিত্র). ৮. আমার বাড়ি টুঙ্গীপাড়া (১ দৃশ্যের নাটক ১ টি চরিত্র). ৯. ৬ দফা ও ১১ দফা আন্দোলন (১ দৃশ্যের নাটক, ৯ টি চরিত্র). ১০. মুজিবনগর থেকে মুক্তিযুদ্ধ (১ দৃশ্যের নাটক, ৪ টি চরিত্র). ১১. হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু (১ দৃশ্যের নাটক, ৯ টি চরিত্র). ১২. বঙ্গবন্ধুর বাকশাল (১ দৃশ্যের নাটক, ৩ টি চরিত্র). ১৩. বাকশালী মোশতাক (১ দৃশ্যের নাটক, ২ টি চরিত্র). ১৪. মোশতাকের তেলেসমাতি (১ দৃশ্যের নাটক, ৪ টি চরিত্র). ১৫. খুনি মোশতাক (১ দৃশ্যের নাটক. ৪ টি চরিত্র). ১৬. বঙ্গবন্ধুকে হত্যায় বিদেশী শক্তি (১ দৃশ্যের নাটক. ৬ টি চরিত্র). ১৭. মোশতাকের ষড়যন্ত্র (১ দৃশ্যের নাটক. ৭ টি চরিত্র). ১৮. মুক্তিযুদ্ধে বিদেশীদের অবদান (১ দৃশ্যের নাটক. ৫ টি চরিত্র). ১৯. স্বাধীনতা তুমি (গীতিনাট্য). ২০. জনতার সংগ্রাম (গীতিনাট্য). ২১. বাংলাদেশের মাটি (গীতিনাট্য). ২২. ৭ই মার্চের ভাষণ (১ দৃশ্যের নাটক. ৫টি চরিত্র). ২৩. বাংলার নবাব সিরাজউদ্দৌলা (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক. ১২ টি চরিত্র). ২৪. হানাদার (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক. ৭ টি চরিত্র). ২৫. বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধু (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক. ৯ টি চরিত্র). ২৬. রক্তাক্ত ১৫ই আগস্ট (১ দৃশ্যের নাটক. ১৪ টি চরিত্র). ২৭. মুজিব হত্যা (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক. ২০ টি চরিত্র). ২৮. মুজিব হত্যার বিচার (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক). ২৯. আসামির কাঠগড়ায় মেজর ডালিম. (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক, ১৮ টি চরিত্র). ৩০. আমরা তোমাদের ভুলবো না (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক, ১১ টি চরিত্র). ৩১. জেল হত্যা (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক, ১০ টি চরিত্র). ৩২. আমার নেতা শেখ মুজিব (পূর্ণদৈর্ঘ্য নাটক, ৫ টি চরিত্র). ৩৩. শহীদ রাসেল (১ দৃশ্যের নাটক, ৫ টি চরিত্র). ৩৪. বাকশাল নিয়ে বঙ্গবন্ধু ও জিয়া (১ দৃশ্যের নাটক, ৩ টি চরিত্র). এবং ৩৫. আমার নাম শেখ মুজিব (১ দৃশ্যের নাটক, ২ টি চরিত্র)। এছাড়া আগস্ট ট্রাজেডির কারণ এবং মুজিব বাইয়া যাওরে নামে তিনি আরও দুটো নাটক রচনা করেছেন। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে তার লেখা নাটকের সংখ্যা মোট ৩৭ টা। ইতিমধ্যে এসব নাটক নিয়ে দুই বাংলায় নাট্যকর্মীদের উদ্যোগে নাট্য-সেমিনার এ পাঠচক্র শুরু হয়েছে। যেগুলো বেশ প্রশংসিত হচ্ছে।

খুলনার ডুমুরিয়ার শাহপুরের সন্তান নাট্যকার খান শওকত ৩০ বছর বয়সে ভাগ্যান্বেষণে ১৯৯০ সালে নিউইয়র্কে আসেন। এসেই নির্মাণ করেন প্রবাসী কম্যুউনিটির শিল্পীদের উদ্যোগে নির্মিত প্রথম ভিডিও চলচ্চিত্র “স্বপ্ন সুখের আমেরিকা”। প্রায় ৫৩ জন শিল্পী ও কলাকুশলী নিয়ে কাজ করেছিলেন। তিনি এ ছবির পরিচালক ও কেন্দ্রীয় অভিনেতা। ১৯৯৩ সালের ২৩ জুন তারিখে এ ছবিটি মুক্তি পেয়েছিলো। এরপর নেশাগ্রস্থ শিল্পীর মতো ম্যাজিক শো শুরু করলেন। টানা প্রায় ৩০ বছর তার বিস্ময়কর জাদু প্রদর্শনী উপভোগ করেছেন দেশী বিদেশী কম্যুউনিটির লাখ লাখ মানুষ। জাদু দেখিয়ে আটবার আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেয়েছেন। ২০২০ সালের জুলাই মাস থেকে অদ্যাবধি চালু রয়েছে অনলাইন ইন্টারন্যাশনাল ম্যাজিক কম্পিটিশন ফেসবুক গ্রুপে প্রতিমাসে বিশ্ব জাদু প্রতিযোগিতা। এটি বিশ্বময় বেশ জনপ্রিয়। খান শওকত এই প্রতিযোগিতা কমিটির জুরি বোর্ডের সভাপতি। নিউইয়র্কে সমস্যাগ্রস্ত ও নবাগত প্রবাসীদের কল্যাণে চালু করেন চাকুরি বিষয়ক বিনামূল্যে সহযোগিতা প্রোগ্রাম “জব সেমিনার”। ২০০১ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত আয়োজিত ১৬০টি জব সেমিনারের সহায়তায় প্রায় সাড়ে ছয় হাজার প্রবাসী চাকুরি পেয়ে এবং প্রায় ৩০০টি পরিবার অতি অল্প ভাড়ায় সরকারি বাসা পেয়ে উপকৃত হয়েছেন।

১৯৯৩ সাল থেকে তিনি বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গবেষণা শুরু করেন। প্রথমে নির্মাণ করেন “কেন তিনি জাতির পিতা”। এরপর বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে একের পর এক নাটক লেখেন। ২০১৫ সাল থেকে তার লেখা নাটক আমেরিকা, কানাডা, ভারত, কাতার, দুবাই ও বাংলাদেশে মঞ্চস্থ হচ্ছে। ২০১৮ সালে তার লেখা নাটক “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব” মঞ্চস্থ হয় কলকাতার জ্ঞান মঞ্চে। উক্ত প্রদর্শনীতে আমি নিজে উপস্থিত ছিলাম। ভারতের মাটিতে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এমন সফল আয়োজন আমি আগে কখনো দেখিনি।

ইউটিউবে Bongobondhu drama written by Khan Showkat লিখে এ নাটকের ভিডিয়ো দেখা যায়। তার লেখা অত্যন্ত নিরপেক্ষ, হৃদয়গ্রাহী এবং সত্য ইতিহাস। আমার বিশ্বাস তার লেখা নাটকগুলোর মাধ্যমে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক ও সংগ্রামী জীবনের ঘটনা নাটকের সংলাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়বে সবার মাঝে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে। কোন নাট্যকারের জীবদ্দশায় তার লেখনী নিয়ে দুই বাংলায় নাট্য উৎসব খুব কম দেখা যায়। এদিক দিয়ে বলা যায় খান শওকত ভাগ্যবান।

যেহেতু তার নাটকের নায়ক হলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, তাই তার লেখা এতো দ্রুত জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। কারণ বঙ্গবন্ধুর ভক্ত অগণিত। এবং বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কোন একক লেখক এতগুলো নাটক রচনা করেননি। ইতিমধ্যে তার লেখা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব নাটকটি ঢাকার উত্তরার ইবাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্য বিভাগে পাঠ্য করা হয়েছে।

তার নাটকসমূহ নিয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. রুবেল আনসারের লেখা গবেষণা গ্রন্থ “নাট্যকলায় বঙ্গবন্ধু” সরকারি অনুদানে বাংলা একাডেমি থেকে প্রকাশিত হয়েছে। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি তার লেখা নাটকসমূহ একদিন অনেক সুনাম বয়ে আনবে। এসব লেখনীর মাধ্যমে তিনি স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। আমি তার এবং ভারত-বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু নাট্য উৎসবের সর্বাঙ্গীণ সফলতা কামনা করছি। নাটকের জয় হোক।

লেখক : বীর মুক্তিযোদ্ধা,কবি ও নাট্যকার এবং সভাপতি, গাঙচিল সাহিত্য পরিষদ ও সহ সভাপতি বঙ্গবন্ধু থিয়েটার, নিউইয়র্ক, যুক্তরাষ্ট্র।

(মতামত পাতায় প্রকাশিত লেখা একান্ত লেখকের মত। এর সঙ্গে পত্রিকার সম্পাদকীয় নীতিমালার কোনো সম্পর্ক নেই।)

চলমান আলোচিত ঘটনা বা দৃষ্টি আকর্ষণযোগ্য সমসাময়িক বিষয়ে আপনার মতামত আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই, সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড