• শনিবার, ২০ আগস্ট ২০২২, ৫ ভাদ্র ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এমন কেন হলো?

  রহমান মৃধা

২৯ জুলাই ২০২২, ০১:৫১
এমন কেন হলো?
ফাইজারের প্রোডাকশন অ্যান্ড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্টের সাবেক পরিচালক রহমান মৃধা (ছবি : সংগৃহীত)

জীবনের প্রথম বাইশ বছর

ছিলাম আমি বাংলাদেশে

কেটেছে দিন সহজভাবে

ভালোবাসা ছিল বলে।

চল্লিশ বছর ধরে আমি

দূর পরবাসে বসত করি

অতীতে কে কবে কী করছে

সেটা যেমন সবাই বলে

কেউ বলে না একবারও

এত বছর পার হয়ে গেল

কিছু করলাম নারে।

আদর করে যে শাসন করে

সে আদর, সোহাগ ভুলে গিয়ে

করছে শোষণ প্রাণভরে

বললে কিছু টনক নড়ে

সম্পর্ক ছিন্ন করে কিন্তু

সম্পত্তি ছাড়ে না

চল্লিশটি বছর পার হয়ে গেলে

কিছুই করতে পারলাম না তোমার জন্য

একথা কেউ একরারও বলল না

কিন্তু সেই চল্লিশ বছর আগে

কে কী করেছিল সেটাই শুধু বলে গেল!

অথচ তুমি কিন্তু আমার সবকিছু ভোগ করে চলেছ!

সেটা একবারও বললে না।

ভুলে যখন গেছোই মোরে

কী হবে আর সে কথা বলে

ভাবছি বসে একা!

শ্রদ্ধা এবং ভালোবাসার টানে

জীবনে শুধু দিয়েছে যারা

ঘৃণা আর করুণা ছাড়া

তেমন কিছু পায় না তারা

এটা নতুন কিছু নয়।

প্রতিযোগিতার যুগে

নতুন উদ্দীপনা নিয়ে

একা একা খেলতে

ভালো লাগে কার?

লড়তে হবে সরল মনে

গড়তে হবে দেশ

থাকবে শুধু হৃদয় জুড়ে

ভালোবাসার রেশ

তা নাহলে বাঁধবে বিবাদ

শেষ হবে না ক্লেশ।

অনুকরণ অনুসরণ যদি না থাকতো

একা একা সব কিছু করা কঠিন হতো

পিছে তোরা ছিলি বলে সহজ হয়ে ছিল

সত্যি কথা বলছি বলে লাগছে বড্ড ভালো।

আমাকে আজ পিছে ফেলে সামনে চলে গেলি

যাবার বেলা খিল খিলিয়ে

হাসলি দুটো চোখ ফেলিয়ে

ভুলে গেলি আমি ছিলাম তোদের সবার আগে।

বড় কষ্ট হতো তখন একা একা যেতে

কেউ ছিলনা সামনে আমার বুঝবো কী করে

চলছি তখন একা বটে দিলটি ছিল ভালো

তাইতো তোদের সঙ্গে নিয়ে যাত্রা শুরু হলো।

আমার দেখাদেখি তোরা এত সাহস পেলি

তাই বুঝি আজ আমায় ফেলে সবাই চলে গেলি!

লেখক : রহমান মৃধা, সাবেক পরিচালক (প্রোডাকশন অ্যান্ড সাপ্লাই চেইন ম্যানেজমেন্ট), ফাইজার, সুইডেন।

[email protected]

চলমান আলোচিত ঘটনা বা দৃষ্টি আকর্ষণযোগ্য সমসাময়িক বিষয়ে আপনার মতামত আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই, সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড