• রোববার, ১২ জুলাই ২০২০, ২৮ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্বার্থ ছাড়া ভালোবাসা নেই

  রহমান ‍মৃথা

২৫ মে ২০২০, ২২:৪৩
রহমান মৃধা
সুইডেন প্রবাসী রহমান মৃধা

হঠাৎ যদি বলি স্বার্থ ছাড়া ভালোবাসা নেই, তবে সবাই প্রথমে আমার ওপর একটি কমেন্ট করবে, যা হতে পারে পজেটিভ বা নেগেটিভ। একটি মতামত তৈরি হবে, কেউ কেউ কিছু কটু কথাও বলে ফেলবে। 

আমি যদিও তাদের কোনো ক্ষতি করিনি এবং তাদের অনেককে চিনিও না। আমি যে নানা মন্তব্য করছি এটাও যে সঠিক হবে তারও কিন্তু নিশ্চয়তা নেই। তারপরও আমি হুট করে অদ্ভুত কাণ্ড ঘটিয়ে মন উক্তি করে কিছু লিখলাম বা বললাম। এখন দেখা গেল আমার “স্বার্থ ছাড়া ভালোবাসা নেই” বলার পেছনে যথেষ্ট যুক্তি রয়েছে যা সবার কাছে হয়তবা গ্রহণযোগ্য হবে। 

অনেকে পুরো লিখাটি পড়ার পর তাদের ভুল বুঝবে, মনে মনে কেউ ভুলের স্বীকার করবে আবার কেউ করবে না। কেউ কেউ লিখে মনের কথা প্রকাশ করবে যে ভুল করে কিছু গালিও দিয়েছে আমাকে ইত্যাদি। আমরা মানব জাতি সব কিছুতেই একটি ’conclusion’ খুঁজি এবং তা খুঁজতে গিয়ে ঝটপট করে কিছু করি বা বলি। ভুল হলে ক্ষমা চাই। আমরা সব সময় কিছু পেতে চাই। আমাদের চাওয়া এবং পাওয়ার মাঝে জড়িত রয়েছে যে জিনিসটি তা হোল প্রত্যাশা। 

এখন এই প্রত্যাশা হতে পারে স্বার্থ এবং এই স্বার্থের অনুভুতিটা হতে পারে ভালোবাসা। সবাই বলবে বাবা-মার ভালবাসা নিঃস্বার্থ। সেক্ষেত্রে আমার বক্তব্য সম্পূর্ণ ভুল “স্বার্থ ছাড়া ভালোবাসা নেই।” আমি বলবো বাবা-মার ভালোবাসাতেও রয়েছে স্বার্থ জড়িত। তারা নিজেরাও কিন্তু কোন এক সময় একে অপরকে ভালোবেসে ছিল। সেই যে সম্পর্ক তৈরি, তারপর সন্তানের আগমন, তাকে আদর করা, গড়ে তুলতে সাহায্য করা বাবা-মার দায়িত্ব এবং কর্তব্যের একটি অংশ, যে অংশে জড়িত রয়েছে ভালোবাসার বন্ধন। তাহলে “স্বার্থ ছাড়া ভালোবাসা নেই” এই কথা সঠিক নয় বাবা-মার ভালোবাসার ক্ষেত্রেও। ভালোবাসায় রয়েছে শুধু ভালোবাসা। সেক্ষেত্রে বাবা-মার ভালোবাসায় জড়িত রয়েছে প্রেম, প্রীতি, অনুভূতি, দায়িত্ব এবং কর্তব্য যা বড় ধরণের স্বার্থ।

আমরা জানি অ্যাকশন এবং রিঅ্যাকশন থিওরি বা জল পড়ে পাতা নড়ে। কিছু ছাড়া যে কিছু ঘটেনা বা হতে পারে না এ বিষয়ে আমার জানা নেই। ভালেবাসা ছাড়া যে ভালোবাসা হয় বা হতে পারে আমি জানিনা। এ ক্ষেত্রে ভালোবাসা “itself is a” স্বার্থ। যদি কারও জানা থাকে স্বার্থ ছাড়া ভালোবাসা থাকতে পারে জানালে খুশি হবো।

চলমান আলোচিত ঘটনা বা দৃষ্টি আকর্ষণযোগ্য সমসাময়িক বিষয়ে আপনার মতামত আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই, সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড