• শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ৫ মাঘ ১৪২৫  |   ১৭ °সে
  • বেটা ভার্সন

জয়তু নড়াইলের ‘প্রিন্স অব হার্ট’

  আকাশ আহমেদ ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ১২:৪৯

নির্বাচন
নির্বাচনি প্রচারণায় মাশরাফি (ছবি : সংগৃহীত)

‘মুক্তিযোদ্ধারা যদি পায়ে গুলি নিয়ে যুদ্ধ করতে পারেন আমি কেন সামান্য সার্জারি নিয়ে বোলিং করতে পারব না।’ হ্যাঁ, অনেকে না পারলেও তিনি পারেন। কারণ তিনি মাশরাফি, মাশরাফি বিন মর্তুজা। বাংলাদেশের ক্রিকেটে এক ধ্রুবতারার নাম।

ছোটবেলা থেকে খেলাধুলার প্রতি তীব্র নেশা ছিল তার। কিন্তু শিক্ষাজীবনেও তিনি ছিলেন মেধাবী। দর্শনশাস্ত্রে ভর্তি হয়েছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে, কিন্তু খেলার ব্যস্ততায় আর পড়াশোনাটা চালানো হয়নি তার। বাংলাদেশ জাতীয় দলে খেলেছেন মাশরাফি এবং জয় করেছেন সকলের হৃদয়।

নড়াইলের এই কৃতি সন্তানকে বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেটার হিসেবে ধরা হয়। দীর্ঘ ১৭ বছরের ক্যারিয়ারের অনেকটা সময় তাকে ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে, কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে দেশের টানে মাশরাফি ফিরে এসেছে বার বার।

তিনি বলেছেন, ‘পা দুটো বেইমানি করলেও ঘাড়ের রগ বাঁকা করে চ্যালেঞ্জ করব নিজেকেই। শুধু একটা বল করতে চাই বাংলাদেশের হয়ে।’ বল তিনি করেছেন এবং করছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের এখন অন্যতম বোলিং স্তম্ভ মাশরাফি।

মাশরাফি বিন মর্তুজা সাম্প্রতিককালে কিছুটা আলোচিত সমালোচিত হয়েছেন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায়, কিন্তু তাতে নড়াইলের ‘প্রিন্স অব হার্ট’ এর জনপ্রিয়তায় এতটুকু ভাটা পড়েনি, পেয়ে যাচ্ছেন অকুণ্ঠ সমর্থন। তিনি ঘোষণা করেছেন দেশ ও এলাকার কল্যাণের স্বার্থেই তার এ মহতী উদ্যোগ। মাশরাফি বিন মর্তুজা এগিয়ে যাক, দেশের কল্যাণে কাজ করুক, এটাই আমাদের প্রত্যাশা। জয়তু মাশরাফি, জয়তু নড়াইলের ‘প্রিন্স অব হার্ট’।

লেখক : শিক্ষার্থী, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

চলমান আলোচিত ঘটনা বা দৃষ্টি আকর্ষণযোগ্য সমসাময়িক বিষয়ে আপনার মতামত আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। তাই, সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইলকরুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড