• বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দৈনিক অধিকার নবান্ন সংখ্যা-১৯

বুকচাপা কষ্টে শ্লোক বেঁধেছি নৈঃশব্দের শিবিরে

  আদিল সাদ

০৩ মার্চ ২০২০, ১১:০৭
কবিতা
মৃদু শিহরনে শিহরিত জলছাপ (ছবি : সম্পাদিত)

স্মৃতির নকশা

আমার শহরে বৃষ্টি ঠিক অন্যরকম ছুঁয়ে দেয় মৃদু শিহরনে শিহরিত জলছাপ ছুঁয়ে দেয় বরষায় স্মৃতিতে প্রেয়সীর হাতে কদম্বফুলের ঘ্রাণ। এঁকে দেয় মেঘে ঢাকা গোধূলি স্মৃতির নকশায় আঁকাবাঁকা মেঠোপথ ঠিক যেন অদূর আকাশে, অদেখা স্বপ্ন প্রভাত। তুমিহীন সময়, বৃষ্টির নিমগ্ন দুপুরে কল্পনায় ভেসে থাকে অপূর্ণ প্রেম কয়েদী শিকলে আটকানো জীবন এ যেন ফেরারি গল্প রাজসাক্ষী হওয়ার স্মৃতি বিষাদময় জীবনের সমাপ্তি।

স্বর্গীয় প্রেম

যখনই ভাবতে শিখলাম ভবঘুরে নেশাটা আমায় সন্ন্যাসী করে দিল কোন কবিতা হয়ে একটি নদীর ভাঙ্গা গড়া শব্দে স্রোতের টানে আঁকড়ে আঁকড়ে বুকে জড়িয়ে রাখতো কোন নির্বাসিত জীবনের অমরত্ব ভালোবাসার স্বর্গীয় প্রেম।

আজ নির্বাসিত জীবনে এই প্রেমই যুগলবন্দী কোন হৃদয়ের প্রেরণা কোন নদীর স্বচ্ছ জলের মতন ভালোবাসার স্বর্গীয় প্রেমের উপমা! আমার প্রেম, আমার ঈশ্বর, আমার ধর্ম,আমার ভালোবাসা আমার ভক্তিতে উক্তিতে বচন-প্রবচনকে আত্মবিশ্বাসী করে! হয়তো কেউ এসে নিস্থর নিবিড় শূন্যতা ঘিরে লিখে দিয়ে যায় এক একটি কষ্টের নীল কবিতা।

দৃশ্য অদৃশ্য

পূর্ণিমার চাঁদ, শীতের উষ্ণতা ছুঁয়ে দেয়

ছুঁয়ে দেয় নিয়ন আলোর শহর

খুঁজে দেয় আবছা আলোর আঁধারে

জোনাকির লুকোচুরির মুখোশ।

জোনাকির নীল আকাশে

উড়ে আসা মেঘে

চিঠি আসে, চিঠি পৌঁছে

কোন খামহীন ঠিকানায় ।

প্রতিউত্তরে দৃশ্য অদৃশ্য নামহীন চিঠি

কবিতা হয়ে, ছন্দ সুরে

কথোপকথনে, মান অভিমানে

স্মৃতিতে ভাসিয়ে দেয়

অভিমানী স্মৃতির অতলান্ত প্রহর।

সারাজীবনের গাণিতিক সমাধানে

অতীতের রোমান্টিকতা,বর্তমানে বিদ্বেষে বলি

‘নারী তোমার বর্তমান দেখে

আমি পৈশাচিক আনন্দে মাতি।’

উড়ে বেড়াই শকুন্ত বেশে

আজ পাশে নেই তুমি তাইতো, বিরহ আঁধারে একটা জোনাকি ফেরারি হয়ে তোমার মতন শূন্য! যার নিস্তব্ধতা নির্নিমেষে আমি উপলব্ধি করি দক্ষিণার বারান্দায়। রাতের অবয়বে প্রকৃতির সাথে মিশে কোন গল্পের শিরোনাম হয়ে খোলা আকাশে অরণ্য শূন্য ভূমিতে উড়ে বেড়াই শকুন্ত বেশে তোমার ভালোবাসার এক চিমটি সকালের রোদ্দুর আলো হয়ে যার নিজস্বতা আমি বুঝি ঝরের রাতের কবলে ছটফট করা কবিতায়! তুমি ঠিক আমারই মতন ভালোবাসার অভিমানী গল্পটায়।

কষ্টের রং নীল

আজ আমি নিরস্ত্র সিপাহি নিশ্চুপ ফেরারি যাত্রী বাধাহীন শিকলে আঁটকে আছি কয়েদি না হয়ে ‘পাপী’। জেগে আছি আমি, ঘুমন্ত রয়েছে পৃথিবী জেগে আছে মেঘ, বৃষ্টিহীন কোন রাত্রি জেগে আছে মন, বিষাদ ঘেরা আঁধারে সব কিছু দেখে তাই, কম্পিত হয় জীবন, চূর্ণবিচূর্ণে। আজ আমি দুঃখী, আকাশে ঢাকা মেঘে- ফেরারি হয়ে একাকী, গড়েছি এই অদৃশ্য মায়া কোন ভালোবাসার সমুদ্রে। বুকচাপা কষ্টে শ্লোক বেঁধেছি নৈশব্দের শিবিরে, কষ্টের রং নীল হয়েছে, বেদনাময় জীবনে মিশে।

আরও পড়ুন : কেউ একটা গোলাপ হাতে আজও আয়েশার দরোজায় কড়া নাড়েনি

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড