• শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আমাদের মাথাপিছু আয় ভারতকেও ছাড়িয়ে যাবে : তথ্যমন্ত্রী

  অধিকার ডেস্ক

১৯ অক্টোবর ২০১৯, ১৮:২৫
বাংলাদেশের মাথাপিছু আয়
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ (ছবি : ফাইল ফটো)

বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে, কয়েক বছর পর ভারতকেও ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শনিবার (১৯ অক্টোবর) চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ে (সিভাসু) ইন্টেন্সিফিকেশন অব লাইভস্টক অ্যান্ড ফিশারিজ ফর অ্যাচিভিং ফুড সেইফটি অ্যান্ড নিউট্রিশনাল সিকিউরিটি: চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড অপরচ্যুনিটি শীর্ষক দুই দিনব্যাপী সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন।

দেশের চাহিদা মিটিয়ে বাংলাদেশ আজ বিদেশে খাদ্য রপ্তানি করছে বলে জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, উন্নয়নের অনেক সূচকে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে পাকিস্তানকে এবং কিছু কিছু সূচকে ভারতকেও অতিক্রম করেছে। আমাদের মাথাপিছু আয় পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে। কয়েক বছরের মধ্যে ভারতকেও ছাড়িয়ে যাবে।

তিনি বলেন, স্বপ্ন ছাড়া কোনো দেশ বেশিদূর এগুতে পারে না। ২০০৯ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ এবং দিনবদলের সনদ ঘোষণার মাধ্যমে উন্নত বাংলাদেশ গঠনের যে স্বপ্ন দেখিয়েছেন তা আজ বাস্তবে পরিণত হতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে আমরা উন্নয়নশীল দেশের কাতারে চলে এসেছি।

হাছান মাহমুদ বলেন, স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের জনসংখ্যা কয়েকগুণ বেড়েছে। কমেছে আবাদি জমির পরিমাণ। এরপরেও বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। কোনো ম্যাজিকের মাধ্যমে এটি সম্ভব হয়নি। সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ম্যাজিক লিডারশিপের কারণে।

আগে কুরবানির ঈদে পশুর জন্য ভারতের ওপর নির্ভরশীল ছিল বাংলাদেশ বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কয়েক বছর আগেও ঈদুল আযহার সময় কুরবানি পশুর জন্য ভারতের দিকে তাকিয়ে থাকতে হতো। এখন আমরা পশুতেও স্বয়ংসম্পূর্ণ। এটি সম্ভব হয়েছে গবেষণা এবং নতুন নতুন আবিষ্কারের ফলে। এর পেছনে অবদান রয়েছে সিভাসু’র মতো বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষকদের।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, একটি বিশ্ববিদ্যালয় কত বড় সেটার ওপর বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও মর্যাদা নির্ভর করে না। সুনাম ও মর্যাদা নির্ভর করে গুণগত শিক্ষা ও গবেষণা কাজের ওপর। পৃথিবীতে অনেক ছোট ছোট বিশ্ববিদ্যালয় আছে যেগুলো শিক্ষা ও গবেষণায় খুবই ভালো।

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সিভাসু কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাব, আপনারা বেশি শিক্ষার্থী ভর্তির বিষয়ে মনযোগ না দিয়ে গুণগত শিক্ষা এবং গবেষণা কাজের প্রতি মনযোগ দিন। কারণ সংখ্যা বাড়লে মান কমে। মান ধরে রাখা কঠিন হয়ে পড়ে।’

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) উপাচার্য প্রফেসর ড. গৌতম বুদ্ধ দাশের সভাপতিত্বে সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান সৈয়দা সরওয়ার জাহান।

ওডি/এআর

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড