• রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সব মেনে নেওয়ার পরও আন্দোলন কেন : প্রধানমন্ত্রী 

  অধিকার ডেস্ক

১২ অক্টোবর ২০১৯, ১২:৪৫
আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ড
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (ছবি : ফাইল ফটো)

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করা হয়েছে, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে এরপরেও আন্দোলন করার যৌক্তিকতা নেই বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (১২ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর খামারবাড়িতে কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে মহিলা শ্রমিক লীগের জাতীয় সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

সব কিছু মেনে নেওয়ার পরেও আন্দোলন কেন প্রশ্ন তুলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পর কারও দাবি দাওয়ার জন্য অপেক্ষা না করে জড়িতদের গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এরপর আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের সব দাবি মেনে নেয়া হয়েছে। তারপরও আন্দোলন কেন? এখন আন্দোলনের যৌক্তিকতা নেই।

নারী পাচার রোধে সবাইকে সতর্ক হবার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের নারী জাগরণের অগ্রদূত ছিলেন বঙ্গবন্ধু। তিনি এ দেশের নারীদের পথ দেখিয়ে দিয়েছেন। এখন দেশে সবক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে নারীরা।

গত ৬ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তদারকির নামে বুয়েটের শেরে বাংলা হলে ছাত্র আবরার ফাহাদকে ডেকে নিয়ে নির্যাতন চালায় শাখা ছাত্রলীগ। নির্যাতনের মুখে নিহত হন আবরার ফাহাদ। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আরও জড়িতদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে। এদিকে আবরার হত্যার প্রতিবাদে ১০ দফা দাবিতে ষষ্ঠ দিনের মতো আন্দোলন করছেন বুয়েটের শিক্ষার্থীরা। গতকাল শুক্রবার শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠকে আবরার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনিকভাবে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন এবং ছাত্র রাজনীতি নিষিদ্ধের কথাও জানান। তবে শিক্ষার্থীরা পাঁচ শর্ত বাস্তবায়ন না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলমান রাখার ঘোষণা দেন।

ওডি/এআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড