• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

আবারও ডেঙ্গুর প্রকোপ বাড়ার আশঙ্কা

  অধিকার ডেস্ক

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৫৬
হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে ডেঙ্গু রোগীরা
হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে ডেঙ্গু রোগীরা (ছবি : সংগৃহীত)

গত এক সপ্তাহ ধরে রোগীর সংখ্যা কমলেও গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৭৫০ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী। বর্তমানে প্রতিদিন ৭০০ থেকে ৮০০ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন। 

এ দিকে বৃষ্টির কারণে ডেঙ্গুর প্রকোপ কিছুটা বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, গত দু-তিন দিন ধরে মাঝে মধ্যে বৃষ্টি হচ্ছে। আগামী আরও দু-তিন দিন বৃষ্টি হতে পারে। এ ধরনের বৃষ্টি ডেঙ্গুর প্রকোপ বৃদ্ধির সহায়ক।

ডেঙ্গু রোগী কমতির দিকে জানিয়ে রোগ নিয়ন্ত্রণ বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, বর্তমানে বৃষ্টির কারণে প্রকোপ বাড়ার শঙ্কা রয়েছে। তবে বাড়লেও আগস্টের মতো হবে না। 

তারা আরও জানান, এডিস মশা নিধন ও প্রজননস্থল কমে গেছে। পাশাপাশি মানুষ আগের তুলনায় সচেতন হয়েছে। ডেঙ্গু ভাইরাস বহনকারী রোগীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় এটি ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে পড়বে না।

ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা কমছে জানিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেন, ডেঙ্গুর প্রকোপ কমছে। এখন আবার বৃষ্টি হচ্ছে। এভাবে বৃষ্টি হলে প্রকোপ কিছুটা বাড়তে পারে। তবে ভয়ের কিছু নেই।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন ও কন্ট্রোল রুমের সহকারী পরিচালক ডা. আয়শা আক্তার জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় (বুধবার সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) সারা দেশে ৭৫০ জন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। এর মধ্যে রাজধানীর ২৩৭ এবং বাইরের জেলাগুলোর ৫১৩ জন রয়েছে। 

তিনি আরও জানান, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত ৭৯ হাজার ৩৬৭ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়। 

এসব রোগীর মধ্যে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) ডেথ রিভিউ কমিটিতে ১৯৭ জনের মৃত্যুর তথ্য জমা হয়েছে। কমিটি ১০১টি মৃত্যুর কারণ পর্যালোচনা করে ৬০ জন ডেঙ্গুতে মারা গেছে বলে নিশ্চিত করে। বাকি মৃত্যুর ঘটনাগুলো পর্যালোচনাধীন।

ওডি/এসএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড