• রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দীপু মনির স্বামীকে দেখতে গেলেন প্রধানমন্ত্রী

  অধিকার ডেস্ক

১১ আগস্ট ২০১৯, ১৫:৪০
দীপু মনি-প্রধানমন্ত্রী
ছবি : সংগৃহীত

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির স্বামী ব্যারিস্টার ড. তৌফিক নেওয়াজকে দেখতে ঢাকার ইউনাইটেড হাসপাতালে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রবিবার (১১ আগস্ট) দুপুর ১২টার পর তাকে দেখার জন্য হাসপাতালে যান তিনি।

সেখানে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন থাকা ড. তৌফিক নেওয়াজের চিকিৎসার খোঁজখবর নেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় প্রধানমন্ত্রী সেখানে থাকা শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গেও কথা বলেন।

এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আবুল খায়ের গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ব্যারিস্টার ড. তৌফিক নেওয়াজের পাশে প্রায় ১৫ মিনিট অবস্থান করেন। এরপর ১২টা ৩০ মিনিটের দিকে তিনি হাসপাতাল ত্যাগ করেন।

উল্লেখ্য, জুলাইয়ের ১৯ তারিখ রাতে ড. তৌফিক নেওয়াজ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য আজ তার ভারত যাওয়ার কথা রয়েছে।

৯ আগস্ট শিক্ষামন্ত্রীর একান্ত সচিব আব্দুল আলিম খান জানান, ৭২ বছর বয়সী তৌফীক নাওয়াজ জুলাই মাসে ব্রেইন স্ট্রোক হওয়ার পর থেকে ২১ দিন ধরে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় রয়েছেন। এখন নিজে শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে পারেন। তবে চোখ মেলে তাকান না।

শিক্ষামন্ত্রীর একান্ত সচিব আরও বলেন, এর মধ্যে ভারতের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা এসে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে তার অস্ত্রোপচার করে গেছেন। মাথার ভেতরে অপারেশন করে দুটো রিং পরানো হয়েছে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক করতে। তারপরে এখনও অজ্ঞান অবস্থায়। তবে তার অবস্থার খুব একটা উন্নতি হয়নি। তাই তাকে এখন ভারতে নেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।

আব্দুল আলিম খান জানান, তৌফীক-দীপু মনি দম্পতির দুই সন্তান, ছেলে দেশের বাইরে লেখাপড়া করেন। বাবার চিকিৎসার জন্য তিনি এরই মধ্যে মুম্বাই পৌঁছে গেছেন।

শিক্ষামন্ত্রীর স্বামী আইনজীবী তৌফীক ধ্রুপদী সঙ্গীত চর্চা করেন। তিনি ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড