• বৃহস্পতিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঈদযাত্রায় বিমানে রাজধানী ছাড়ছেন দৈনিক ৬ হাজার মানুষ

  অধিকার ডেস্ক

০৯ আগস্ট ২০১৯, ১০:৪২
আকাশপথে ঈদযাত্রা
ছবি : সংগৃহীত

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঈদযাত্রায় আকাশপথের চাহিদা বেড়েছে। অনেক আগেই বিক্রি হয়ে গেছে অভ্যন্তরীণ রুটের সব ফ্লাইটের টিকিট। বিমানের বাড়তি যাত্রী চাহিদার কারণে অতিরিক্ত ফ্লাইট দিয়েছে এয়ারলাইনসগুলো। ফলে চার এয়ারলাইনস মিলে অভ্যন্তরীণ রুটে রাজধানী থেকে দেশের অন্য গন্তব্যগুলোয় প্রতিদিন আসন সক্ষমতা ছয় হাজার ছাড়িয়েছে।

এ বিষয়ে এয়ারলাইনস-সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, আকাশপথে যোগাযোগ ব্যবস্থা দ্রুত ও নিরাপদ হওয়ায় নাড়ির টানে বাড়ি ফেরা যাত্রীদের আগ্রহ বাড়ছে। অভ্যন্তরীণ রুটগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি চাহিদা রয়েছে সৈয়দপুর ও রাজশাহী রুটে। এরই মধ্যে এ দুই রুটের প্রায় ৯৯ শতাংশ টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। অভ্যন্তরীণ রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে দেশের চারটি এয়ারলাইনস- বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস, নভোএয়ার, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস ও রিজেন্ট এয়ারওয়েজ। এর মধ্যে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস, নভোএয়ার ও ইউএস-বাংলা চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, রাজশাহী ও বরিশাল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। আর চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ।

কুরবানির ঈদকে সামনে রেখে সরকারি-বেসরকারি এয়ারলাইনস সব মিলে প্রতিদিন শতাধিক অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট পরিচালনা করছে। চাহিদার কথা বিবেচনা করে ঢাকা-সৈয়দপুর ও ঢাকা-রাজশাহী রুটে অতিরিক্ত ফ্লাইট দিয়েছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস।

অন্যান্য সময়ে নভোএয়ার রাজধানী থেকে প্রতিদিন যশোর পাঁচটি, চট্টগ্রাম পাঁচটি, কক্সবাজার পাঁচটি, সৈয়দপুর পাঁচটি, সিলেট দুটি, বরিশাল ও রাজশাহীতে একটি করে ফ্লাইট পরিচালনা করে। তবে ঈদ উপলক্ষে চারটি রুটে নিয়মিত ফ্লাইটের পাশাপাশি অতিরিক্ত ফ্লাইট দিয়েছে এয়ারলাইনসটি। এছাড়া ঈদের আগে ঢাকামুখী যাত্রীদের জন্য বিশেষ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে সংস্থাটি।

নিয়মিত ফ্লাইটের পাশাপাশি অতিরিক্ত ফ্লাইটের বিষয়ে নভোএয়ারের সিনিয়র মার্কেটিং ম্যানেজার একেএম মাহফুজুল আলম জানান, যাত্রী চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে নভোএয়ার সৈয়দপুর রুটে নিয়মিত ফ্লাইটের পাশাপাশি আগস্টের ৮ তারিখ থেকে ১১ তারিখ পর্যন্ত প্রতিদিন অতিরিক্ত দুটি ফ্লাইট, যশোর ও রাজশাহী রুটে ৮ থেকে ১১ আগস্ট নিয়মিত ফ্লাইটের পাশাপাশি প্রতিদিন অতিরিক্ত একটি করে ফ্লাইট পরিচালনা করবে। এছাড়া ৯ থেকে ১১ আগস্ট বরিশাল রুটে নিয়মিত ফ্লাইটের পাশাপাশি প্রতিদিন অতিরিক্ত একটি করে ফ্লাইট পরিচালনা করবে নভোএয়ার। এ দিকে ৬ থেকে ১২ আগস্ট পর্যন্ত যশোর, সৈয়দপুর, বরিশাল ও রাজশাহী থেকে ঢাকামুখী যাত্রীরা ভ্রমণ করতে পারছে সর্বনিম্ন মাত্র ২ হাজার ১৯ টাকায়।

স্বাভাবিক সময়ে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস ঢাকা থেকে সৈয়দপুর রুটে দৈনিক চারটি, যশোরে চারটি, রাজশাহী ও বরিশালে একটি ফ্লাইট পরিচালনা করে। এছাড়া ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম রুটে দৈনিক চারটি, কক্সবাজারে দুটি ও সিলেটে দুটি ফ্লাইট চলে এয়ারলাইনসটির।

ঈদ উপলক্ষে চাহিদা বাড়ায় ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসও অতিরিক্ত ফ্লাইট পরিচালনা করছে। এই এয়ারলাইনসের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা জানান, চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে সৈয়দপুর, যশোর ও রাজশাহী রুটে নিয়মিত ফ্লাইটের তিনটি করে অতিরিক্ত ফ্লাইট দেওয়া হয়েছে। সব ফ্লাইটের প্রায় সব টিকিটই এরই মধ্যে বিক্রি হয়ে গেছে। চট্টগ্রামে সব এয়ারলাইনসের অনেক ফ্লাইট থাকে, যে কারণে চট্টগ্রামে চাপ তুলনামূলকভাবে একটু কম। তাই চট্টগ্রাম রুটে অতিরিক্ত ফ্লাইট দেওয়া হচ্ছে না। তবে ঈদের পর চট্টগ্রামে চাপ অনেক বেশি থাকে।

ঈদযাত্রায় আকাশপথের চাহিদা বাড়ার বিষয়ে আর্ক ট্রাভেলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আহসান হাবিব বলেন, ঈদের আগের মতো ঈদের পর ঢাকায় ফিরতি ফ্লাইটগুলোর টিকিটও বিক্রি হয়ে গেছে। ২০ আগস্ট পর্যন্ত টিকিটের জন্য যাত্রীদের ব্যাপক চাপ রয়েছে। যদিও টিকিট দেওয়া যাচ্ছে না। এবার অভ্যন্তরীণ রুটে সর্বোচ্চ ৮ হাজার ৫০০ টাকায় ওয়ানওয়ে টিকিট বিক্রি হচ্ছে। এতে চাহিদা মেটানো সম্ভব না। কারণ হাজার হাজার মানুষ টিকিট চাচ্ছে। বাড়তি ফ্লাইট দেওয়া ছাড়া এত বড় জোগান দেওয়া এয়ারলাইনসগুলোর পক্ষে সম্ভব নয়।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড