• বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড চান রওশন এরশাদ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১১ জুলাই ২০১৯, ২২:১২
রওশন এরশাদ
জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ। (ছবি : সংগৃহীত)

জাতীয় সংসদে বিরোধীদলীয় উপনেতা রওশন এরশাদ শিশুদের প্রতি সহিংসতা ও ধর্ষণের অপরাধে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সংসদের বাজেট অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে তিনি এই দাবি জানান।

স্কুল-মাদ্রাসা কোনও জায়গায় শিশুরা সুরক্ষিত নয়, নিরাপদ নয় এমন কথা জানিয়ে রওশন এরশাদ বলেন, শিক্ষার্থীদের নুসরাতের মতো জীবন দিতে হলে তা ভীষণ লজ্জা ও দুঃখজনক ব্যাপার। দেশে আইন আছে। সে আইনের প্রয়োগ করা প্রয়োজন। কোনও ফাঁক রাখা যাবে না। সরাসরি মৃত্যুদণ্ড দিতে হবে, যাতে শিশুদের নিরাপদ রাখা যায়।

গ্যাসের দামের ব্যাপারে বিরোধীদলীয় উপনেতা বলেন, বাজেট পাসের দিন গ্যাসের দাম বাড়ানো হলো। বাংলাদেশে যখন গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়েছে, তখন ভারতে দাম কমানো হয়েছে। বাংলাদেশে কেন গ্যাসের দাম বাড়ানো হলো, প্রশ্ন তোলেন তিনি।

উন্নয়ন চাইলে গ্যাসের দাম বাড়বে— প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রওশন এরশাদ বলেন, আমরা উন্নয়ন চাই, কিন্তু গ্যাসের দাম বাড়াতে চাই না। এটাই আসল কথা। এটা আমার কথা নয়, জনগণের কথা।

শিক্ষা খাতে বরাদ্দ বাড়ানোর দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, লাখ লাখ জিপিএ-৫ দরকার নেই। দরকার গুণগত মানসম্পন্ন জাতি।

বিরোধীদলীয় উপনেতা বলেন, বাংলাদেশ থেকে বিশ্বের ১৫১টি দেশে ওষুধ রফতানি হয়। কিন্তু দেশের বাজারে ভেজাল, নকল ওষুধ বিক্রি হচ্ছে। আদালত অচিরেই মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বাজার থেকে উঠিয়ে নিতে আদেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু তা মানা হয়নি। খাদ্যে ভেজাল বন্ধ হয়নি। বাচ্চাদের খাবারের বিষয়ে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে।

জাতীয় পার্টির আমলে এরশাদ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের কথা তুলে ধরেন তিনি বলেন, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় নেতা এইচ এম এরশাদ অনেক অসুস্থ। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এ সময় এরশাদের জন্য সবার কাছে দোয়া চান রওশন।

ওডি/এসএইচএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড