• বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

‘বিএসএমএমইউর নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের সুযোগ নেই’

  অধিকার ডেস্ক

১৩ জুন ২০১৯, ১৬:০০
বঙ্গবন্ধু মেডিকেল
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (ছবি : ফাইল ফটো)

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলের সুযোগ নেই বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া। 

তিনি বলেন, ‘নিয়োগ পরীক্ষা নিয়ে অভিযোগ মিথ্যা। নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা চলবে।’ 

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে সিন্ডিকেট বৈঠক শেষে এই সিদ্ধান্ত জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘পরীক্ষা নিয়ে যেসব অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এসব অভিযোগের কোনও সত্যতা পাওয়া যায়নি। পরীক্ষা শতভাগ স্বচ্ছ হয়েছে। পরীক্ষা বাতিলের বা পুনরায় পরীক্ষা নেওয়ার কোনও সুয়োগ নেই। যত দ্রুত সম্ভব মৌখিক পরীক্ষার তারিখ জানানো হবে।’

কান্তি বড়ুয়া বলেন, গত ১১ জুন বিএসএমএমইউ’তে ঘটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিন্ডিকেট। এই কমিটি আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে তাদের প্রতিবেদন দেবে। 

তিনি আরও বলেন, বিএসএমএমইউ’তে ওইদিনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে। ওই ঘটনার কারণেই আজকের এই জরুরি সিন্ডিকেট মিটিং। সেদিন যারা ভাঙচুর চালিয়েছিল তদন্ত কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল অফিসার পদে লিখিত পরীক্ষায় অনুত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীরা গত প্রায় এক মাস ধরে পরীক্ষা বাতিল ও পুনঃনিরীক্ষণের দাবিতে আন্দোলন করে আসছিলেন। গত মঙ্গলবার (১১ জুন) মেডিকেল অফিসার পদে নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা চলার দ্বিতীয় দিনে তা আপাতত স্থগিত করার কথা জানিয়েছিলেন বিএসএমএমইউর উপাচার্য। 

২০০টি মেডিকেল অফিসার পদে ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয় বিএসএমএইউ কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে ১৮০ জন এমবিবিএস ও ২০ জন বিডিএস চিকিৎসক চাওয়া হয়। 

প্রথম দফায় নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হলেও তা পিছিয়ে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে পরীক্ষার দিন ঠিক করা হয়। পরীক্ষা নেওয়ার জন্য প্রশ্নপত্রও ছাপানো হয়। কিন্তু অনিবার্য কারণ দেখিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরীক্ষা স্থগিত করে। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ছাপা হওয়ার দেড় বছর পর গত ২২ মার্চ সেই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর থেকেই আন্দোলনে নামেন চিকিৎসকদের একাংশ।

ওডি/এআর 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড