• সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ :

নিজ দেশে ফিরে যেতে রোহিঙ্গাদের দুই শর্ত||এ পি জে আব্দুল কালামের স্মৃতিতে ভূষিত প্রধানমন্ত্রী  ||উদ্বেগ থাকলেও ভারতের ওপর বিশ্বাস রাখতে চাই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ||ছাত্রলীগের চাঁদাবাজি ঢাকতেই ছাত্রদলের কাউন্সিল বন্ধ : রিজভী ||কাশ্মীরে জঙ্গি অনুপ্রবেশের অভিযোগে সীমান্তে‌ হাই অ্যালার্ট||ভারতের পর এবার বিশ্বকে পরমাণু যুদ্ধের হুঁশিয়ারি পাকিস্তানের||সোমবার আনুষ্ঠানিক দায়িত্ব নেবেন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক||মেক্সিকোয় কুয়া থেকে ৪৪ মরদেহ উদ্ধার করল বিজ্ঞানীরা||অন্যায় করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না : কাদের    ||সৌদির তেল স্থাপনাতে হামলায় ইরানকে দায়ী করল যুক্তরাষ্ট্র

বিএনপিকে আবারও নেতৃত্ব ভাড়া করতে হবে : তথ্যমন্ত্রী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২০ মে ২০১৯, ১৫:০০
ড. হাছান মাহমুদ
তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ (ছবি : ফাইল ফটো)

বিএনপির প্রধান দুই নেতৃত্ব দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের হাতে নেই দল বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। 

সোমবার (২০ মে) দুপুরে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন মন্ত্রী। 

তিনি বলেন, বিএনপির নেতৃত্ব খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের হাতে নেই। তাই দীর্ঘদিন ধরে দলটি ভাড়া করা নেতা দিয়ে চলছিল। নেতৃত্বের দুর্বলতার কারণেই দলটির এ দৈনদশা হয়েছে। 

বিএনপির নেতৃত্বের প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, তারেক রহমানের ভুল নির্দেশনা ও রাজনৈতিক দৈন্যতার কারণে বিএনপিকে আবারও নেতৃত্ব ভাড়া করতে হবে। 

বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিলেও মাঠে তৎপর ছিল না বলে মন্তব্য করে মন্ত্রী বলেন, তাদের কোনো প্রচারণা ছিল না, অনেকে কেন্দ্রে এজেন্ট দেয়নি। আর মনোনয়ন বাণিজ্য তো হয়েছেই। এক আসনে একাধিক প্রার্থী ছিল। 

তিনি আরও বলেন, মনোনয়ন বাণিজ্যের কারণে লেজেগোবড়ে হয়ে গেছে তাদের নির্বাচন। লন্ডন থেকে সেই মনোনয়ন বাণিজ্যের সূত্রপাত। ঢাকাতেও বাণিজ্য হয়েছে। সোজা কথা, বিএনপি দৈন্য দশায় পৌঁছে গেছে।

খালেদা জিয়ার মামলায় সরকার হস্তক্ষেপ করছে না বলে উল্লেখ করেন ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া আদালতে শাস্তি পেয়েছেন। তার বিচারের জন্য সরকার তো কোনো বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করেনি, মামলাও সরকার দেয়নি, বরং তারা যতবার আদালত থেকে সময় নিয়েছে, সেটা নজিরবিহীন। সরকার আইনকে প্রভাবিত করেনি, বরং তারা বারবার সময় নিয়ে আদালতকে হেনস্তা করেছে।’

ওডি/এআর 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড