• শুক্রবার, ২২ মার্চ ২০১৯, ৮ চৈত্র ১৪২৫  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে রাতেই চালু চিকিৎসা সেবা

  অধিকার ডেস্ক    ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭:১২

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল
শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। (ছবি : সংগৃহীত)

রাজধানীর শেরে-বাংলা নগরে অবস্থিত শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৫টায় ভয়াবহ এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। যদিও এ ঘটনার পর একই দিন দিবাগত রাতে চিকিৎসা সেবা পুনরায় চালু করে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এদিন দিবাগত রাত আনুমানিক ১টা ৩০ মিনিটে হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. মামুন মোর্শেদ এই চিকিৎসা সেবা পুনরায় চালুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের সময় হাসপাতালে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে তখনও আমাদের জরুরি বিভাগ চালু ছিল। আইসিইউ-তে ১০ জন রোগী ছিল, যাদের পরবর্তীতে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়।’ 

হাসপাতালের এ উপপরিচালক আরও বলেছেন, ‘রাত ১২টার পর থেকেই আমাদের এক এবং সাত নম্বর ওয়ার্ডে যেসব রোগী ফিরে আসছেন তাদের চিকিৎসা শুরু হয়েছে।’ সকালের মধ্যে সব রোগী হাসপাতালে পুনরায় চলে আসবেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে রাত সোয়া ১০টায় এক সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ বলেছিলেন, ‘সোহরাওয়ার্দী থেকে স্থানান্তর হওয়া রোগীরা আসতে চাইলে বাধার শিকার হবেন না, তারা আসতে পারবেন। হাসপাতালের ইমার্জেন্সি ওয়ার্ড চালু আছে।’

এর আগে একই দিন বিকাল ৫টা ৫০ মিনিটে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের নতুন ভবনের তৃতীয় তলার এক স্টোর রুম থেকে এই আগুনের সূত্রপাত হয় বলে জানিয়েছিল ফায়ার সার্ভিস। এ সময় দ্রুত এই আগুনের শিখা ভবনের দ্বিতীয় এবং নিচ তলায় ছড়িয়ে পড়ে। পরে ফায়ার সার্ভিসের অন্তত ১৬টি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় আড়াই ঘণ্টার বেশি চেষ্টা চালিয়ে এই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। 

আগুন দেখে হাসপাতালে উপস্থিত রোগী এবং তাদের স্বজনরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় সেখান থেকে রোগীদের ঢাকা এবং মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ছাড়াও কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে তাৎক্ষণিক স্থানান্তর করা হয়।

উল্লেখ্য, হাসপাতালে আগুন লাগার প্রকৃত কারণ অনুসন্ধানে হাসপাতালটির পরিচালক ডা. উত্তম কুমারকে প্রধান করে ইতোমধ্যে ৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিন থেকে সাত কর্ম দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড