• বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬ ফাল্গুন ১৪৩০  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীরের মায়ের গাজীপুর জয়

গৃহিণী জায়েদার কাছে পরাস্ত প্রবীণ আ. লীগ নেতা

  আব্দুল মালেক, স্টাফ রিপোর্টার (গাজীপুর)

২৬ মে ২০২৩, ০১:৪৪
গাসিক
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ও তার মা জায়েদা খাতুন (ছবি : সংগৃহীত)

গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর বড় জয় পেলেন সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুন। এখন পর্যন্ত মোট ৪৮০টি কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী- টেবিলঘড়ি প্রতীকে দুই লাখ ৩৮ হাজার ৯৩৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। এ সময় তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী আজমত উল্লা খান নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন দুই লাখ ২২ হাজার ৭৩৭ ভোট পেয়েছেন।

এর মাধ্যমে জায়েদা খাতুন মোট ১৬ হাজার ১৯৭ ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন।

এছাড়া হাতপাখা প্রতীকে গাজী আতাউর রহমান ৪৫ হাজার ৩৫২ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন।

জায়েদা খাতুনের প্রধান নির্বাচনি এজেন্ট ও তার ছেলে সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলম নিজের মায়ের পক্ষে এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, গাজীপুরে নৌকা জিতেছে, ব্যক্তি হেরেছেন। এ বিজয় জনগণের, এ বিজয় গাজীপুরবাসীর, এই বিজয়ের জন্য আমি নগরবাসীকে আমার মায়ের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাই। একটি পরিকল্পিত সুন্দর আধুনিক নগর গড়তে সকলের সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।

তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে সকলকে সঙ্গে নিয়েই একটি সুন্দর নগর গড়ে তুলবো। একটি সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন উপহার দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা, নির্বাচন কমিশন এবং প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ চলে। এরপর শুরু হয় ভোট গণনা।

এদিন কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ছাড়াই গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা, মারামারি-হানাহানি বা কেন্দ্র থেকে এজেন্ট বের করে দেওয়ার মতো ঘটনা ঘটেনি। ভোটাররা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিতে পেরেছেন। ভোটের সার্বিক পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন ভোটার এবং প্রার্থীরাও।

এবার গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটযুদ্ধে অংশ নেন ৩৩৩ জন প্রার্থী। এরমধ্যে মেয়র পদে ৮ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২৪৬ জন ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে ৭৯ জন প্রার্থী রয়েছেন।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন অ্যাডভোকেট মো. আজমত উল্লা খান, জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে লাঙল প্রতীকে এম এম নিয়াজ উদ্দিন, গণফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে মাছ প্রতীকে আতিকুল ইসলাম, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী হাতপাখা প্রতীকে গাজী আতাউর রহমান ও জাকের পার্টির প্রার্থী হিসেবে গোলাপ ফুল প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন মো. রাজু আহম্মেদ। এ ছাড়া তিনজন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। তারা হলেন- টেবিলঘড়ি প্রতীকে সাবেক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের মা জায়েদা খাতুন, ঘোড়া প্রতীকে মো. হারুন-অর-রশীদ ও হাতি প্রতীক নিয়ে লড়েন সরকার শাহনুর ইসলাম।

গাজীপুর সিটি করপোরেশনে মোট ভোটার ১১ লাখ ৭৯ হাজার ৪৬৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫ লাখ ৯২ হাজার ৭৪৭ জন, নারী ভোটার ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৬৯৮ জন ও তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার আছে ১৮ জন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড