• রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে বাংলাদেশ : সরকারের নানামুখী পরিকল্পনা 


২৩ অক্টোবর ২০১৮, ২৩:৪৪
আওয়ামী লীগ সরকার
ছবি : সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তরুণ প্রজন্মকে দেশের সব থেকে বড় শক্তি আখ্যায়িত করে এবং তাদের কর্মসংস্থানে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে বলেন, ‘আওয়ামী লীগের শাসনে গত দশ বছরে দেশের জনগণ অভূতপূর্ব উন্নয়ন প্রত্যক্ষ করেছে। কাজেই আমাদের সব থেকে বড় শক্তি তরুণ প্রজন্মের কাছে আগামীর নির্বাচনের জন্য ভোট চাইব যাতে করে দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতাটা বজায় থাকে।’ 

তিনি উপজেলা পর্যায়ের ৬৬টি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম, ৬টি জেলার যুব প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)’র সিনথেটিক টার্ফ সমৃদ্ধ মাল্টি স্পোর্টস কমপ্লেক্সের উদ্বোধন করেন এবং স্থানীয় জনসাধারণ এবং উপকারভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশলের অধীনে বাংলাদেশকে ৪ কোটি ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র

ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশলের অধীনে বাংলাদেশকে ৪ কোটি ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র। এই সহায়তার ফলে এই অঞ্চলের অন্যান্য দেশের সঙ্গে শিপিং খাতের তথ্য আদান-প্রদানের মাধ্যমে বিভিন্ন ঝুঁকি চিহ্নিত করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে। 

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, অস্ট্রেলিয়া ও জাপান মিলে একটি ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশল ঘোষণা করেছে প্রায় দুই বছর আগে। ওই ব্যাপারে বাংলাদেশ প্রথম থেকেই আলোচনায় যুক্ত ছিল।

ঢাকা ও রিয়াদের মধ্যে ৫টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর

বাংলাদেশ ও সৌদি আরব শিল্প ও বিদ্যুৎ খাতে সহযোগিতা সংক্রান্ত পাঁচটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে। সমঝোতা স্মারকগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো বাংলাদেশে সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প উন্নয়ন বিষয়ে বাংলাদেশের শিল্পমন্ত্রী ও সৌদি আরবের আলফানার কোম্পানির মধ্যে সমঝোতা স্মারক এবং বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেপজা) ও সৌদি আরবের আল বাওয়ানী কো. লি. এর মধ্যে সমঝোতা স্মারক।

বিশ্ব দক্ষতা ফোরামের সদস্য হলো বাংলাদেশ

বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক ‘বিশ্ব দক্ষতা’ ফোরামের সদস্য হয়েছে। নেদারল্যান্ডের আমস্টারডামে বিশ্ব দক্ষতা সম্মেলন ২০১৮-তে বাংলাদেশকে ৭৯তম দেশ হিসেবে এ স্বীকৃতি দেওয়া হয়। বিশ্বের ৭৯তম সদস্য বিশিষ্ট দেশের এ বৈঠকে ৪ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল অংশগ্রহণ করে। সারা বিশ্বের যুবকদের দক্ষতা উন্নয়নে এ ফোরাম অনেকদিন ধরে কাজ করছে।

ক্ষুধা দূরীকরণে ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

মানবসম্পদ উন্নয়নে এগিয়ে থাকার পর এবার ক্ষুধা দূর করার ক্ষেত্রেও ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়েছে বাংলাদেশ। ক্ষুধা দূরীকরণে গত বছরের তুলনায় দুই ধাপ অগ্রগতি হয়েছে বাংলাদেশের। বিশ্বের ১১৯টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ এবার ৮৬তম, যা গত বছর ছিল ৮৮তম। বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচক-২০১৮তে এ তথ্য মিলেছে। যৌথভাবে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছে খাদ্যনিরাপত্তাবিষয়ক সংস্থা কনসার্ন ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ও হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ড।

১৫ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন

পুরাতন ব্রহ্মপুত্র, ধরলা, তুলাই এবং পুনর্ভবা নদীর নাব্য উন্নয়ন ও পুনরুদ্ধারসহ ১৫ প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এগুলো বাস্তবায়নে মোট খরচ ধরা হয়েছে ১৩ হাজার ২১৮ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৮ হাজার ৪৭৯ কোটি ২২ লাখ টাকা, বাস্তবায়নকারী সংস্থা থেকে ৪৪৮ কোটি ৪৩ লাখ টাকা এবং বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৪ হাজার ২৯০ কোটি ৬৬ লাখ টাকা খরচ করা হবে।

সরকারি প্রাথমিক প্রাক প্রাথমিকে নিয়োগ হবে আরও ২৬ হাজার শিক্ষক

প্রাথমিক শিক্ষার মান বাড়াতে সরকার দেশের প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক প্রাথমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতোমধ্যে পুরোনো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩৭ হাজার ৮৯৫ জন প্রাক প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এবার জাতীয়করণ হওয়া ২৬ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক প্রাথমিক পর্যায়ে বড় নিয়োগ আসছে। আগামী ডিসেম্বরে প্রাক প্রাথমিকে নিয়োগ হবে ২৬ হাজার শিক্ষক।

বৈশ্বিক প্রতিযোগিতা সক্ষমতা সূচকে বাংলাদেশের উন্নতি

ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বিচারে গত এক বছরে প্রতিযোগিতা সক্ষমতায় বাংলাদেশ উন্নতি করেছে। ডব্লিউইএফ-এর ‘গ্লোবাল কম্পিটিটিভনেস রিপোর্ট’২০১৮ বলছে- এবার ১৪০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশ রয়েছে ১০৩তম অবস্থানে। একটি দেশের অবস্থান বিচারের জন্য প্রতিষ্ঠান, অবকাঠামো, তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার, সামষ্টিক অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা, স্বাস্থ্য, দক্ষতা, পণ্য বাজার, শ্রমবাজার, আর্থিক ব্যবস্থা, বাজারের আকার, বাজারের গতিশীলতা, নতুন ধারণার আত্বীকরণ এই ১২টি মানদণ্ড ব্যবহার করেছে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম।

রপ্তানি আয় ৫৫ শতাংশ বৃদ্ধি

দেশের রপ্তানি আয়ে উল্লম্ফন ঘটেছে। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসের চেয়ে এ বছরের একই মাসে ৫৫ শতাংশ বেশি রপ্তানি আয় এসেছে। এই প্রবৃদ্ধি অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি। চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) রপ্তানি আয় বেড়েছে প্রায় ১৫ শতাংশ। রপ্তানি আয়ের হালনাগাদ যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যায়, চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি থেকে ৯৯৪ কোটি ডলার আয় হয়েছে।

সেপ্টেম্বরে মূল্যস্ফীতি কমে দাঁড়িয়েছে ৫.৪৩ শতাংশ

সেপ্টেম্বরে সার্বিক মূল্যস্ফীতি পয়েন্ট-টু-পয়েন্ট হারে কমে দাঁড়িয়েছে ৫ দশমিক ৪৩ শতাংশে, যা আগের মাসে ছিল ৫ দশমিক ৪৮ শতাংশ। একই সময়ে খাদ্য পণ্যের মূল্যস্ফীতি কমে দাঁড়িয়েছে ৫ দশমিক ৪২ শতাংশ, যা তার আগের মাসে ছিল ৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ। সম্প্রতি আন্তর্জাতিক বাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য বাড়লেও ভোগ্যপণ্যের দাম এখনও বাড়েনি। তাই মূল্যস্ফীতি এখন কমছে।

আত্মকর্মসংস্থান প্রকল্পে সফলদের ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ

আত্মকর্মসংস্থান প্রকল্পের জন্য সরকার বর্তমানে এক লাখ টাকা করে ঋণ দিচ্ছে। তবে যারা সফল তাদের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিদ্যমান কর্মসূচির পাশাপাশি ‘আত্মকর্মী হতে উদ্যোক্তা উন্নয়ন ঋণ’ কর্মসূচি নামে পরীক্ষামূলকভাবে একটি ঋণ কর্মসূচি আগামী জানুয়ারি থেকে আটটি বিভাগে শুরু করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এই কর্মসূচির মাধ্যমে প্রত্যেককে সাড়ে তিন লাখ টাকা করে ঋণ দেওয়ার ব্যবস্থা থাকবে।

উদ্বোধন হল এমএনপি সেবা

মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলে ‘মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি’ (এমএনপি) সেবা উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চলতি মাসের ১ তারিখ থেকে বাংলাদেশে পরীক্ষামূলকভাবে বাণিজ্যিকভাবে বহুল প্রতীক্ষিত এমএনপি সেবা চালু করা হয়েছে। ফলে বাংলাদেশ এমএনপি সেবা দেয়া ৭২তম দেশ হয়েছে। এ সেবা চালু হওয়ার ফলে গ্রাহকরা তার নম্বর অপরিবর্তিত রেখেই যে কোনো কোম্পানির নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার স্বাধীনতা পাবেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড