• বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লিবিয়ার বন্দিদশা থেকে ১৬০ বাংলাদেশির মুক্তি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৬ মে ২০২২, ০৯:৫০
লিবিয়ার বন্দিদশা থেকে ১৬০ বাংলাদেশির মুক্তি
লিবিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশিরা (ফাইল ছবি)

উত্তর আফ্রিকার দেশ লিবিয়ার ডিটেনশন সেন্টারে আটকে থাকা বাংলাদেশিদের মধ্যে ১৬০ জন মুক্তি পেয়ে দেশে ফিরছেন। বাংলাদেশ দূতাবাসের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা এবং আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) সহায়তায় এবার তাদের দেশে পাঠানো হচ্ছে।

বুধবার (২৫ মে) দিবাগত রাতে লিবিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে পাঠানো বিবৃতিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

সেখানে বলা হয়, আইওএমের ভাড়া করা লিবিয়ার বুরাক এয়ারের একটি ফ্লাইট (ইউজেড-২২২) সদ্য মুক্তি পাওয়া ১৬০ বাংলাদেশিকে নিয়ে ত্রিপোলির মেতিগা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বুধবার বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটে উড্ডয়ন করে। বৃহস্পতিবার (২৬ মে) সকালে ফ্লাইটটি ঢাকায় অবতরণ করার কথা রয়েছে।

লিবিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল এস এম শামিম উজ জামান মেতিগা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রত্যাবর্তনকারীদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এরপর সকলকে বিদায় জানান।

আরও পড়ুন : তিউনিসিয়ায় অভিবাসীবাহী নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৭৫

এ সময় ফ্লাইটটি যথাসময়ে পরিচালনা করার ক্ষেত্রে সর্বাত্মক সহযোগিতার জন্য লিবিয়ার অভিবাসন অধিদফতর এবং মেতিগা বিমানবন্দরসহ সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষ ও আইওএমকে ধন্যবাদ জানান এই রাষ্ট্রদূত।

সংশ্লিষ্টদের মতে, দূতাবাসের পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সমন্বয়ের পর লিবিয়ার ডিটেনশন সেন্টারে আটক বাংলাদেশিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করা হয়। এরপর তাদের কল্যাণে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়।

একই সঙ্গে দেশে প্রত্যাবাসনের জন্য আইওএমের কাছে পর্যায়ক্রমে তাদের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করা হয়। মূলত এরই ধারাবাহিকতায় ১৬০ বাংলাদেশিকে দেশে প্রত্যাবাসন করা হলো।

আরও পড়ুন : ম্যাঙ্কিপক্সের আতংকে উদ্বিগ্ন প্রবাসীরা

উল্লেখ্য, অবশিষ্টদেরও দ্রুত দেশে প্রত্যাবাসনের জন্য দূতাবাসের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে জানান কর্মকর্তারা।

ওডি/কেএইচআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড