• বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চিকিৎসার জন্য থাইল্যান্ড গেলেন হাজী সেলিম!

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০২ মে ২০২২, ১৮:২৮
থাইল্যান্ড গেলেন হাজী সেলিম (ছবি: সংগৃহীত)

দেশ ছেড়েছেন ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিম। গত শনিবার (৩০ এপ্রিল) বিকেলে তিনি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। তিনি দুর্নীতির মামলায় ১০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি।

সোমবার (২ মে) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাজী সেলিমের ছোট ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ ইরফান সেলিম।

তিনি জানান, চিকিৎসার জন্য থাইল্যান্ড গেছেন তার বাবা। দুই-তিনদিনের মধ্যেই দেশে ফিরে আসবেন। এরপর আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করবেন।

দুর্নীতির মামলায় ১০ বছরের দণ্ড হওয়ার পরও কোন প্রক্রিয়ায় বিদেশ গেলেন, এমন প্রশ্নে কোনো উত্তর দিতে পারেননি ইরফান সেলিম। তিনি জানান, একটি টেলিভিশন চ্যানেল তার বাবার বিরুদ্ধে দেশ থেকে পালিয়েছেন বলে অপপ্রচার চালাচ্ছে। এটা সঠিক নয়। বাবা ফিরে আসবেন।

বিশ্বস্ত একটি সূত্র জানায়, সফরসঙ্গী হিসেবে ঘনিষ্ঠ কাউকে নিয়ে যাননি হাজী সেলিম। তবে পৃথকভাবে তার ঘনিষ্ঠ কেউ থাইল্যান্ড গিয়ে থাকতে পারেন।

হাজী সেলিমের বড় ছেলের নাম সোলাইমান সেলিম। রবিবার (১ মে) একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, তার বাবা এখন দেশে নেই। এরপর থেকে বিষয়টি জানাজানি হয়। তার বিদেশ সফরের বৈধতা এবং ইমিগ্রেশন পুলিশের কর্মকাণ্ড নিয়ে ফেসবুকে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে।

দুর্নীতির মামলায় এক যুগ আগে বিচারিক আদালতের রায়ে ১৩ বছরের কারাদণ্ড হয়েছিল সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের। সেই সাজার রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন তিনি।

এ আপিলের শুনানি নিয়ে গত বছরের ৯ মার্চ বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ রায় ঘোষণা করেন। এরপর ১০ ফেব্রুয়ারি পূর্ণাঙ্গ রায়টি প্রকাশ করা হয়। রায়ের অনুলিপি পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭-এ আত্মসমর্পণ করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এ সময়সীমার মধ্যেই দেশ ছেড়েছেন আওয়ামী লীগের এই সাংসদ।

ওডি/কেএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড