• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এক সপ্তাহে শনাক্ত বাড়ল ২২৮ শতাংশ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:৫৪
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর (ফাইল ফটো)

দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার। গত এক সপ্তাহে তার আগের সপ্তাহের তুলনায় ২২৮ শতাংশ রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) দুপুরে দেশের করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক ও মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম।

তিনি জানান, গত সাত দিনে দেশে ২৭ শতাংশের বেশি পরীক্ষা বেড়েছে। এক সপ্তাহে ২ লাখ ৩ হাজার ১২২টি পরীক্ষা হয়েছে। রোগী শনাক্ত হয়েছে ৩৪ হাজার ৪০৫ জন। এর আগের সপ্তাহের তুলনায় গত সাত দিনে প্রায় সাড়ে ১০ হাজার রোগী বেশি শনাক্ত হয়েছে। আগের সপ্তাহের তুলনায় গত সপ্তাহে ২২৮ শতাংশ রোগী বেড়েছে।

গত এক সপ্তাহে করোনায় সংক্রমিত ৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা আগের সপ্তাহের চেয়ে ৩৭ জন বেশি। শনাক্ত, পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ও মৃত্যুর পরিসংখ্যান বলছে, দেশে বেশিসংখ্যক মানুষ করোনায় সংক্রমিত হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, দেশে শনাক্তের হার বাড়লে হাসপাতালে করোনা রোগী বাড়েনি। তবে এতে আত্মতুষ্টির সুযোগ নেই। যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে বেশি সংক্রমণ হচ্ছে করোনার ওমিক্রন ধরনের। পাশের দেশেও ওমিক্রন বেশি ছড়াচ্ছে। সাধারণত কোনো নতুন ভ্যারিয়েন্ট এলে সেটি পুরোনো ধরনকে প্রতিস্থাপন করে। তবে এখন পর্যন্ত দেশে যে পরিসংখ্যান পাওয়া যাচ্ছে, তাতে করোনার ডেল্টার ধরনই বেশি ছড়াচ্ছে।

আরও পড়ুন: মুসলিম রাষ্ট্রগুলোর স্বীকৃতি চায় তালিবান

এদিকে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, বর্তমানে ঢাকাসহ ১২টি জেলা করোনার উচ্চ ঝুঁকিতে এবং ৩২টি জেলা মধ্যম ঝুঁকিতে আছে। উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা জেলাগুলো হল- ঢাকা, চট্টগ্রাম, গাজীপুর, রাজশাহী, যশোর, কুষ্টিয়া, বগুড়া, দিনাজপুর, রাঙ্গামাটি, লালমনিরহাট, খাগড়াছড়ি ও পঞ্চগড়।

ওডি/আজীম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড