• রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

স্রোত নিয়ন্ত্রণে এলেই শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ফেরি চলবে

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:১৯
শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুট
শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ফেরি চলাচল (ফাইল ফটো)

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বর্তমানে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে পদ্মায় চার নটিক্যাল মাইল বেগে স্রোত বইছে। এ স্রোতের মধ্যে আমরা ফেরি চলাচলে ঝুঁকি নিতে চাচ্ছি না। স্রোত কমলেই এ রুটে ফেরি চলাচল শুরু হবে।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ রুটে পদ্মা নদীতে এখন চার নটিক্যাল মাইলের স্রোত বইছে। এর নিচে আসলে তখন আমরা চালু করতে পারবো। তবে পদ্মায় পানির প্রবাহ এখনও বাড়ছে। আজও (৮সেপ্টেম্বর) আমরা খবর নিয়েছি অতিরিক্ত পানি প্রবাহ আছে। এ অবস্থায় শিমুলিয়া থেকে বাংলাবাজার ঘাটে যেতে অসুবিধা নেই, কিন্তু ফেরাটা খুব সমস্যা। কারণ আমাদের চ্যানেলটা ইত্যোমধ্যে ৫০ শতাংশ ভাঙন হয়ে গেছে। এটা এখন থাকবে কিনা তাও বলা যাচ্ছে না। তাই এতো স্রোতের মধ্যে আমরা ঝুঁকি নিতে চাচ্ছি না।

তিনি বলেন, গত বছর যখন ফেরি চলছে তখন পদ্মা সেতুর ওপরে স্প্যান বসানো ছিল না। বর্তমানে একটা সুনিদিষ্ট পকেটের মধ্য দিয়ে আমাদের ফেরিগুলো চালাতে হয়। পদ্মা সেতুর সব স্প্যান বসে গেছে, সেতু অলমোস্ট রেডি আছে। এ রকম একটি অবস্থায় যখন নদীতে ঘূর্ণায়ন শুরু হয় তখন ফেরি নিয়ন্ত্রণ করা খুবই কঠিন হয়। এরই মধ্যে কয়েকটা ঘটনা ঘটে গেছে। এই ঘটনাগুলোর কারণে আমরা যতটুকু তাদের উদাসীনতা ও কর্তব্যে অবহেলা ছিল সেজন্য ব্যবস্থাও নিয়েছি। তারপরও জনগণের মধ্যে এ বিষয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখেছি এবং সে ব্যাপারে সবাই মতামত দিয়েছেন। সেই কারণে বলেছি, এমন ঘটানার মধ্য দিয়ে আমরা দেশবাসীকে আর আতঙ্ক বা পেনিকের মধ্যে রাখতে চাই না।

আরও পড়ুন: আমলাতন্ত্র এখন আমলা লীগ হয়ে গেছে: ফখরুল

প্রসঙ্গত, পদ্মায় তীব্র স্রোতের কারণে ফেরি চলাচলকালে এখন পর্যন্ত সেতুতে ৫বার আঘাত লেগেছে। এ অবস্থায় গত ১৮ আগস্ট থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

ওডি/আজীম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড