• রোববার, ২০ জুন ২০২১, ৬ আষাঢ় ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বজ্রপাত থেকে বাঁচতে ৭ পরামর্শ স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৭ জুন ২০২১, ১২:০৫
বজ্রপাত
বজ্রপাত। ফাইল ছবি

মহামারির মাঝে গত এপ্রিল থেকেই দেশজুড়ে বজ্রপাতে প্রাণহানি আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। সম্প্রতি রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে বজ্রপাতে মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় মানুষের মাঝে রীতিমতো আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সর্বশেষ রবিবার (৬ জুন) একদিনে সারাদেশে অন্তত ২৮ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে।

এমতাবস্থায় বজ্রপাতে থেকে রক্ষা পেতে রবিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কিছু নির্দেশনা দিয়েছে।

অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক মোহাম্মদ রোবেদ আমিন বলেছেন, ‘বাংলাদেশে সাধারণত এপ্রিল থেকে মে মাসে সর্বোচ্চ হলে জুন মাস পর্যন্ত বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। বজ্রপাত একটি আকস্মিক ঘটনা, যা প্রতিরোধ করা অত্যন্ত কঠিন।’

তবুও বজ্রপাতে মৃত্যু ও হতাহত এড়াতে কিছু সতর্কতা অবলম্বনের নির্দেশনা দিয়েছেন অধ্যাপক রোবেদ আমিন। বজ্রপাতে হতাহত এড়াতে পরামর্শগুলো হলো-

# বজ্রঝড় সাধারণত ৩০ থেকে ৩৫ মিনিট স্থায়ী হয়। তাই এই সময়টুকু ঘরে অবস্থান করুন। অতি জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে যেতে হলে রাবারের জুতা পরে বাইরে যাবেন, এটি বজ্রঝড় বা বজ্রপাত থেকে সুরক্ষা দেবে।

# বজ্রপাতের সময় ধানক্ষেত বা খোলার মাঠে যদি থাকেন তাহলে পায়ের আঙুলের ওপর ভর দিয়ে এবং কানে আঙুল দিয়ে নিচু হয়ে বসে পড়তে হবে।

# বজ্রপাতের আশঙ্কা দেখা দিলে যত দ্রুত সম্ভব ভবন বা কংক্রিটের ছাউনির নিচে আশ্রয় নিতে হবে। এই সময়ে ভবনের ছাদে বা উঁচু ভূমিতে যাওয়া উচিত হবে না।

# বজ্রপাতের সময় যে কোনো ধরনের খেলাধুলা থেকে শিশুকে বিরত রাখতে হবে। পাশাপাশি ঘরের ভেতরে অবস্থান করতে হবে।

# খালি জায়গায় যদি উঁচু গাছপালা, বৈদ্যুতিক খুঁটি, ধাতব পদার্থ বা মোবাইল টাওয়ার থাকে, তার কাছাকাছি থাকবেন না। বজ্রপাতের সময় গাছের নিচে থাকা বিপজ্জনক।

# বজ্রপাতের সময় ছাউনিবিহীন নৌকায় মাছ ধরতে না যাওয়া উচিত। আর এই সময়ে সমুদ্র বা নদীতে থাকলে মাছ ধরা বন্ধ রেখে নৌকার ছাউনির নিচে আশ্রয় নিতে হবে।

# যদি কেউ গাড়ির ভেতর অবস্থান করেন, তাহলে গাড়ির ধাতব অংশের সাথে শরীরের সংযোগ রাখা যাবে না।

আরও পড়ুন : বুধবার থেকে চলবে আরও ১৯ জোড়া ট্রেন

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, দেশে প্রতিবছর বজ্রপাতে দেড় শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়। এর বেশিরভাগ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে হাওর অঞ্চলে। মানুষ ছাড়াও বজ্রপাতে প্রচুর গবাদি পশুও মারা যায়। সরকার বজ্রপাতকে জাতীয় দুর্যোগ হিসেবে ঘোষণা করেছে। তবে গত বছর এবং চলতি বছরের ৬ মাসে বজ্রপাতে আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্যের চেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

ওডি/আইএইচএন

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড