• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কাঁচা চুলের সম্পাদক তাজবীর হোসাইন

  সাইদুল আজীম

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৭:৫৩
তাজবীর হোসাইন
তাজবীর হোসাইন

ছাপা কাগজের শেষ প্রান্তে একটি নামের পেছনে অনেক গল্প থাকে। যে গল্পের ভেতর থাকে অসংখ্য নতুন গল্প। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় আশ্চর্য ‘সময়’ যে গল্পের মহা-নায়ক। সময়ের পরিক্রমায় সংবাদের আঁতুড়ঘরে নিজেকে মেলে ধরা সেই মানুষগুলোর ছায়াতলেই আলো ছড়ায় সংবাদপত্র। সম্পাদক, পাঁচ অক্ষরের পাহাড়সম এ শব্দের ভার কাঁধে নেন।

খবর দুনিয়ার পাকা সৈনিকদের মঞ্চ ও সংবাদের আঁতুড়ঘরে নিজেকে মেলে ধরেছেন কাঁচা চুলের সম্পাদক তাজবীর হোসাইন। অনেকের কাছে তাজবীর সজীব নামেও পরিচিত তিনি।

তাজবীর হোসাইন দৈনিক অধিকার ও অধিকার ডটনিউজের সম্পাদক এবং প্রধান নির্বাহী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি একাধারে শিক্ষক, সংগঠক ও উদ্যোক্তা হিসেবে সুপরিচিত। ছেলেবেলা থেকে সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে নেতৃত্বের চৌকস গুণাবলি সম্পন্ন হয়ে বিভিন্ন সংগঠন গড়ে তুলেছেন। তার মেধা ও শ্রমে ব্যবসায়িক বেশ কিছু উদ্যোগ সাফল্যের আলো ছুয়েছে। এমনকি গণমাধ্যমের উদ্যোক্তা হিসেবেও আবির্ভূত হয়েছেন একাধিকবার।

বাংলা সাহিত্যের সাধক কবি গোলাম মোস্তফার কয়েক বাড়ি পরে, ঝিনাইদহের শৈলকূপা থানার মনোহরপুর গ্রামে নানার বাড়িতে তার জন্ম। সাংস্কৃতিক রাজধানীখ্যাত কুষ্টিয়া জেলার সন্তান হিসেবে সেখানেই বেড়ে ওঠা।

কুষ্টিয়া জিলা স্কুলে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ার সময় ইউনিসেফ-এর সংবাদ সংস্থা এমএমসি’র (মাস মিডিয়া কমিউনিকেশন) মাধ্যমে সাংবাদিকতায় হাতেখড়ি। দশম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় শিশু সাংবাদিকতায় অবদান রাখায় তৎকালীন হোটেল শেরাটনে তথ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে সম্মাননা পান তিনি। পরবর্তীতে নটর ডেম কলেজে একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত অবস্থায় বেশ কিছু জাতীয় সংবাদমাধ্যমে সাংবাদিকতার চর্চায় নিজের অভিজ্ঞতার ঝুলি বাড়িয়েছেন।

নটর ডেম কলেজে স্টুডেন্টস অব দ্য ইয়ার (অনারেবল ম্যানসন) প্রাপ্ত হয়ে তৎকালীন শিক্ষা উপদেষ্টার কাছ থেকে সম্মাননা গ্রহণ করেন তিনি। তাজবীর হোসাইন নটর ডেম কলেজের সহশিক্ষা কার্যক্রমের একটি ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি। তার নেতৃত্বে টানা ১০ বছর ‘নটর ডেম নাট্যদল’ জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন আয়োজন করে।

তাজবীর হোসাইন দুটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ বিভাগ থেকে এমএমএস সহ মোট তিনটি পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন করেন। তিনি দেশি বিদেশি প্রতিষ্ঠান থেকে ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ে ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট কোর্স শেষে (বুয়েট থেকেও আছে সার্টিফিকেট কোর্স) নিজের জ্ঞানের সাগরের এক ফোঁটা জল আরও বাড়িয়ে নিতে চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ এর সাথে পথচলার শুরু করেন।

সাহসী সাংবাদিকতা ও সম্পাদনা এবং সংগঠক হিসেবে জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন সম্মাননা স্বারক গ্রহণ করেন তিনি। তরুণ উদ্যোক্তা হিসেবেও ২০১৩ সালে তৎকালীন শিল্পমন্ত্রীর হাত থেকে সম্মাননা গ্রহণ করেন তাজবীর হোসাইন। ওই বছরই তিনি সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটি এবং এনআইএফটিতে (ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ফ্যাশন টেকনোলজি) খণ্ডকালীন শিক্ষকতা করছেন। বিভিন্ন কোর্সের পাশাপাশি পড়িয়েছেন অর্গানাইজেশন বিহেবিয়ার ও ইফেক্টিভ মেথড অফ সেলফ ডেভলপমেন্ট। শিক্ষার্থীদের মাঝে আত্মোন্নয়ন ঘটানোর প্রয়াসে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কেন্দ্রিক সফট স্কিল ও ক্যারিয়ার ম্যাপিং এর মতো বিষয় নিয়ে মোটিভেশনাল বিভিন্ন সেশন বা কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে অংশগ্রহণ করছেন তিনি।

তাজবীর হোসাইনের লেখালেখির শুরু পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ার সময় থেকে। কবিতা দিয়ে শুরু এরপর বেশ কিছু বসন্ত পাড়ি দিয়ে ছোট গল্প, একাধিক সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে নিজের লেখনী শক্তির বুক প্রসারিত করেন।

তার মৌলিক ছোট গল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে- হৃদয় খুঁড়ে, জল টলমল নদী, শিরোনামে তুমি, জোছনা বিলাস, ফাগুনের বাতাসে ঝড়ে পড়া পাতা, ভাগ্যবতী, স্বপ্ন সমুদ্র, পত্র, ফাগুন চলে যায়, বিনিময়, প্রিয়জন, প্রাণভোমরা।

গণমাধ্যমের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় ও সময় উপযোগী তাত্ত্বিক বিষয় নিয়ে তিনি সম্পাদনা করেছেন ‘গণমাধ্যমের গন্তব্য’ নামে একটি গ্রন্থ। ২০২০ সালে অমর একুশে বইমেলায় গ্রন্থটি প্রকাশিত হয়।

তার গল্প গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে- প্রাণভোমরা (২০১৬), অধিকার (২০২০), শিরোনামে তুমি (২০২১)। তাত্ত্বিক জ্ঞানের ভিত্তিতে ২০২১ সালে তিনি রচনা করেন ‘ইফেকটিভ মেথড অব ডিজিটাল মার্কেটিং’ গ্রন্থটি। তার প্রথম সম্মিলিত কাব্যগ্রন্থ বাউন্ডুলে কাব্য (২০১৫)।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড