• শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৩ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কক্সবাজারকে আন্তর্জাতিকমানের পর্যটন নগরী গড়ে তোলার কাজ চলছে -রেলপথ মন্ত্রী

  শাহ্‌ মুহাম্মদ রুবেল, কক্সবাজার

১২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৫০
কক্সবাজার
কক্সবাজারে রেলপথ মন্ত্রী মো: নুরুল ইসলাম সুজন

রেলপথ মন্ত্রী মো: নুরুল ইসলাম সুজন এমপি বলেছেন. কক্সবাজারকে একটি পরিপূর্ণ আন্তর্জাতিকমানের পর্যটন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা যায় সে পরিকল্পনা নিয়েই কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। হয়ত অনেক কিছুর সুফল আমরা নাও পেতে পারি, কিন্তু পরের যে প্রজন্ম তারা সব সুফল ভোগ করবে। ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য ভাল কিছু করে যাওয়ার প্রত্যয় নিয়েই আমরা কাজ করছি।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার যে ১০টি মেগা প্রকল্প রয়েছে তার মধ্যে দোহাজারী-কক্সবাজার-ঘুমধুম পর্যন্ত ১০২ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণ কাজ অন্যতম। শুধু রেল লাইন নয় কক্সবাজারের উন্নয়নের জন্য অনেকগুলো মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন প্রধানমন্ত্রী।

মন্ত্রী আজ দোহাজারী-কক্সবাজার ডুয়েলগেজ রেললাইন প্রকল্পের কক্সবাজার প্রান্তে ঝিলংজার হাজি পাড়া, রামুর ফতেখাঁরকুল সহ বিভিন্ন স্থানে কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন। এরপর কক্সবাজারের ঝিলংজা হাজিপাড়ায় রেললাইন প্রকল্পের অধিগ্রহণকৃত চারজন ভূমি-মালিকদের মাঝে প্রায় এক কোটি টাকার ক্ষতিপূরণের চেক বিতরণ করেন। এসময় রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো: মফিজুর রহমান, কক্সবাজারের ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো: আশরাফুল আফসার, ভুমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা শামীম হোসেন, রেলওয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা সহ প্রকল্প ও ভূমি অধিগ্রহণ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

২০২২ সালের জুন মাসের মধ্যে প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হওয়ার কথা রয়েছে। প্রকল্পটি যথা সময়ে বাস্তবায়িত হলে ২০২২ সালের জুন মাসের মধ্যে ঢাকার সাথে কক্সবাজারের সরাসরি রেল যোগাযোগ সম্ভব হবে। ঢাকা থেকে কক্সবাজার রেল চলাচল শুরু হলে দেশের পর্যটন শিল্প ও অর্থনৈতিক খাতে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটবে বলে আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড