• শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ২০ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে চিরুনি অভিযান চলবে, এগিয়ে না আসলে জরিমানা

  অধিকার ডেস্ক

২৮ জুন ২০২০, ১০:২২
এডিস মশা ধ্বংস করে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে চিরুনি অভিযান
এডিস মশা ধ্বংস করে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে চিরুনি অভিযান (ছবি : সংগৃহীত)

এডিস মশা ধ্বংস করে ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে চিরুনি অভিযান অব্যহত রাখার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। 

মেয়র আতিকুল বলেন, চিরুনি অভিযান চলবে, তবে মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। মানুষ এগিয়ে আসলে আমাদের জরিমানা করতে হবে না। 

শনিবার (২৭ জুন) রাতে করোনাকালীন সংকট নিয়ে বিশেষ ওয়েবিনার ‘বিয়ন্ড দ্য প্যানডেমিক’-এর সপ্তম পর্বে  ‘জনস্বাস্থ্য ও স্থানীয় সরকার’ শীর্ষক আলোচনায় সভায় অংশগ্রহণকারী জনপ্রতিনিধিরা এ আহ্বান জানান। এর আগে আওয়ামী লীগের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) আয়োজিত এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানিয়ে দুই মেয়র বলেন, প্রথমেই জরিমানা করতে চাই না। আমরা চাই জনগণ নিজে থেকে মশক নিধনে সম্পৃক্ত থাকুক। স্বতস্ফুর্ত ভাবে সিটি করপোরেশনকে জানালে আমাদের লোকজন গিয়ে লার্ভা ধ্বংস করে দিয়ে আসবে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু নিয়ে একটা মৌসুমে কিছু সভা-সেমিনার বা কিছু করা না। ডেঙ্গু নিয়ে ৩৬৫ দিনই কাজ করতে হবে। আমি প্রথম দিন থেকে এ নিয়ে কাজ শুরু করেছি।

ডেঙ্গুর বিরুদ্ধে চিরুনি অভিযান শুরু করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, এডিস মশার জন্য কয়েল বা ওষুধ না এটা প্রতিরোধ করতে হবে। এটি জন্মাতে দেওয়া যাবে না। ডেঙ্গু জমে থাকা পরিষ্কার পানিতে জন্ম নেয়। ডেঙ্গু বিষয়ে মানুষকে সচেতন হতে হবে। 

আতিকুল ইসলাম বলেন, চিরুনি অভিযানটা অব্যহত থাকবে, মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। মানুষ এগিয়ে আসলে আমাদের জরিমানা করতে হবে না।

সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, প্রথমে জরিমানা করতে চাই না। আমরা চাই জনগণই সত্বস্ফুর্তভাবে সম্পৃক্ত থাকুক। তারা নিজেরাই যদি আমাদের জানায় যে তাদের আঙ্গিনায় লার্ভা আছে তবে আমাদের লোকজন গিয়ে তা ধ্বংস করে দেবে। এজন্য সামান্য সার্ভিস চার্জ নেওয়া হয়।  আমরা এটি শুরু করেছি এবং ভালো সাড়া পাচ্ছি। মানুষ কীভাবে রেসপন্স করে তার ওপর আমরা সিদ্ধান্ত নেবো।

বছরব্যাপী সমন্বিত মশক নিধন কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তাপস বলেন, সমন্বিত মশক নিধন কাজের অংশ হিসেবে জলাশয়গুলোতে তেলাপিয়া মাছের চাষ এবং হাঁস পালন করা হচ্ছে। কোথাও যেন পানি জমে না থাকে সে জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ এবং ডেঙ্গু প্রতিরোধে ব্যাপক কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে। 

তিনি বলেন, আগে ওষুধ ছিটানো হতো সন্ধ্যার আগে। কিন্তু সন্ধ্যার আগে মশা উড়ে যায়। এজন্য আমরা লার্ভার সঙ্গে অ্যাডাল্ট মশা মারার জন্য দিনের বেলায় ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। 

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার শাহ আলী ফরহাদের সঞ্চালনায় এতে আলোচক হিসেবে অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান (লিটন), নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু।

ওডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড