• রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০, ১৫ চৈত্র ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কিছুক্ষণের মধ্যেই খালেদার মুক্তি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৫ মার্চ ২০২০, ১৪:২১
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল (ফাইল ফটো)

বিএনপির কারাবন্দি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আর কিছুক্ষণের মধ্যেই মুক্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। খালেদা জিয়াকে দুইটি শর্তে ও তার ছোট ভাই শামীম ইস্কান্দারের জিম্মায় মুক্তি দেওয়া হচ্ছে।

বুধবার (২৫ মার্চ) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা জানান তিনি।

আরও পড়ুন : যে কোনো মুহূর্তে খালেদার মুক্তি : কাদের

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়াকে দুইটি শর্তে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। এক রাজধানী ঢাকার নিজ বাসায় তার চিকিৎসা সেবা নিতে হবে ও বাংলাদেশের বাইরে ভ্রমণ করতে পারবেন না। ইতোমধ্যে জিওতে (গভর্মেন্ট অর্ডার) স্বাক্ষর হয়ে গেছে। আরও কিছু আনুষ্ঠানিকতা রয়েছে, সেটা  শেষ হলেই বেগম জিয়াকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

আজ বুধবার বেগম জিয়া মুক্তি পেতে পারেন তা অনেকেরই জানা ছিল। কিন্তু কখন তিনি মুক্তি পাবেন, সেটা দুপুর দেড়টা পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ভিসি কনক কান্তি বড়ুয়া জানান, কারা কর্তৃপক্ষের ছাড়পত্র পাওয়ার পর তারা পরবর্তী কার্যক্রমে যাবেন। দুপুর দেড়টা পর্যন্ত বিএসএমএমইউ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছাড়পত্র হাতে পাননি বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, বেগম জিয়া তার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসা-পরামর্শ অনুসরণ করছিলেন না।

এ দিকে, ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল আলম দুপুর ১টার দিকে চিঠি হাতে না পাওয়ার কথা জানিয়েছেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের প্রিজন সেলে চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার অপেক্ষায় আছেন বিএনপিপন্থী ডাক্তারদের সংগঠন ড্যাবের কয়েকজন নেতা, মহিলা দল ও সহযোগী সংগঠনের বেশ কিছু নেতাকর্মীরা। তবে খালেদা জিয়ার পরিবারের সদস্যরা এখনো সেখানে এসে পৌঁছায়নি। বিএসএমএমইউর সামনে কারা সদস্যরা উপস্থিত আছেন।

এর আগে, মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকালে গুলশানে জরুরি সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়াকে সরকার দুটি শর্তে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি বলেন, বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ফাইল পাঠানো হয়েছে।

দুই বছর আগে ২০১৮ সালে ফেব্রুয়ারির ৮ তারিখে গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’ থেকে পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে গিয়েছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সেখান থেকে ২০১৯ সালের ১ এপ্রিল তাকে নিয়ে আসা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে। দীর্ঘ ৭৭৬ দিন কারাবাসের পর আবার সেই ফিরোজায় উঠতে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া।

উল্লেখ্য, বিএনপি চেয়ারপারসন ‘জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট’ দুর্নীতি মামলায় সাজা পেয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে রয়েছেন। এ মামলায় প্রথমে তার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হলেও পরে উচ্চ আদালত তার শাস্তি বাড়িয়ে ১০ বছর করে। অন্যদিকে ‘জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট’ দুর্নীতি মামলাতেও তার সাত বছরের কারাদণ্ড হয়। বর্তমানে পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে তাকে চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিজন সেলে রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে মোট মামলার সংখ্যা ৩৩টি।

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড