• সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০, ২৯ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

শতাধিক কাশ্মীরি শিক্ষার্থী গ্রহণ করছে না ভারত 

  শার্শা প্রতিনিধি, যশোর

২৪ মার্চ ২০২০, ১৮:১৩
ভারতীয়
আন্তর্জাতিক প্যাসেঞ্জার টার্মিনালের সামনে অপেক্ষা করছে ভারতীয় শিক্ষার্থীরা (ছবি : দৈনিক অধিকার)

যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দরে আটকে গেল বাংলাদেশে অধ্যয়নরত শতাধিক ভারতীয় মেডিকেল শিক্ষার্থী।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সকাল থেকে বেনাপোল স্থলবন্দরে তারা অবস্থান করলেও ভ্রূক্ষেপ নেই পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনের।

সূত্র জানায়, ভারত কোনো পাসপোর্টধারী যাত্রী গ্রহণ না করায় বাংলাদেশে অধ্যয়নরত শতাধিক মেডিকেল শিক্ষার্থী বেনাপোল চেকপোস্টে আটকা পড়ে আছে। এসব শিক্ষার্থীরা গাজীপুর ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ ও ঢাকা কমিউনিটি বেস্ট মেডিকেলে অধ্যয়নরত ছিলেন। এদের বাড়ি ভারতের কাশ্মীর প্রদেশে।

মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে তারা ভারতে প্রবেশের অপেক্ষায় বেনাপোল আন্তর্জাতিক প্যাসেঞ্জার টার্মিনালের সামনে বসে আছে। তবে এসব যাত্রীদের বেনাপোল ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা করতে কোনো বাধা নেই।

ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাদের গ্রহণ করতে রাজি নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে বেনাপোল ইমিগ্রেশনকে। অপরদিকে আবার সে দেশে আটকা পড়া বাংলাদেশিদের তারা ইমিগ্রেশনের আনুষ্ঠানিকতা শেষে বাংলাদেশে পাঠাচ্ছে। এসব বাংলাদেশি যাত্রীদের বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ গ্রহণ করছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি আহসান কবির বলেন, ভারতে লকডাউন করায় এবং তাদের কাছে সকল দেশ থেকে যাত্রী প্রবেশে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের বিধিনিষেধ আরোপ সংক্রান্ত চিঠি ইস্যুর কারণে তারা তাদের নিজ দেশের যাত্রীদেরও নিতে অপরাগতা প্রকাশ করছে। এতে প্রায় শতাধিক মেডিকেল শিক্ষার্থী বেনাপোল আন্তর্জাতিক প্যাসেঞ্জার টার্মিনালের সামনে অপেক্ষা করছে।

আরও পড়ুন : শ্রীপুরে শিলাবৃষ্টিতে বাড়ি ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

তিনি আরও বলেন, আমাদের উপরের থেকে কোনো নির্দেশনা আসে নাই যে, কোনো যাত্রী প্রবেশ করানো যাবে না। যার কারণে বিদেশি যাত্রী বাদে শুধু আটকে পড়া বাংলাদেশি যাত্রীদের প্রবেশ করাচ্ছি। এর মধ্যে অধিকাংশ ভারতে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলন। তারা ফেরত আসছেন।

ওডি/এএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড