• রোববার, ০৫ জুলাই ২০২০, ২১ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সম্পর্কের কলহে অপরাধ বাড়ছে

  অধিকার ডেস্ক

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৬:১১
সম্পর্ক
প্রতীকী ছবি

অপরাধ ঢুকে পড়েছে এখন সম্পর্কের মধ্যে। বন্ধনগুলো এখন অনেকটাই আলগা হয়ে উঠছে। স্বামী-স্ত্রী, সন্তান-অভিভাবক, বন্ধুত্ব, ভাই-বোন, প্রেমিক-প্রেমিকা এমনকি এই হিংসাত্মক আচরণ থেকে বাদ যাচ্ছে না দাদা-নাতিরাও।

সম্পর্কগুলো এখন আর বিচ্ছেদের মধ্যে নয় মৃত্যুর কারণ হয়ে উঠছে। কেউ কাউকে যেন সহ্য করতে পারছে না। অতিরিক্ত হিংস্রতা যুক্ত হয়েছে। অতিশয় হিংস্রতাপূর্ণ পৈশাচিকতায় এবং বীভৎস অপরাধের ঘন ঘন পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। এর ফলে সামাজিকতা ক্রমেই কমে যাচ্ছে, সমাজ নির্বিকার হয়ে পড়ছে, ব্যক্তি এবং পরিবার বন্ধনে বিচ্ছিন্নতা হু হু করে বাড়ছে।

উদাহরণ হিসেবে দেখালে চলে আসে কলেজছাত্রী সাজিয়া আফরিন রোদেলার (১৮) কথা। বিয়ের মাত্র দেড় মাস না যেতেই স্বামীর বাড়িতে নির্যাতনে নিহত হন তিনি।

ফরিদপুর শহরের আলিপুর খাঁ মহল্লার শওকত হোসেন খান ওরফে শকার একমাত্র মেয়ে রোদেলা। তিনি সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজে ইংরেজিতে অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিল।

রোদেলাকে রাতের বেলা স্বামী, শাশুড়ি ও ননদ মিলে পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে।

এর বিপরীত ঘটনা ঘটেছে গাজীপুরের শ্রীপুরে। সেখানে স্বামীকে হত্যা করে স্ত্রী নিজে এবং একা। নিহত আব্দুর রহমানের ৪র্থ স্ত্রী সামিরা এ ঘটনা ঘটান।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি তার ব্যবসায়িক পার্টনারের সঙ্গে স্ত্রী সামিরাকে জোরপূর্বক যৌন কাজে লিপ্ত করে আব্দুর রহমান। এ ঘটনায় স্ত্রী সামিরা পরদিন রাত তিনটার দিকে বাসায় থাকা ধারালো দা দিয়ে স্বামী আ. রহমানকে ঘুমন্ত অবস্থায় জবাই করে এবং মৃত্যু নিশ্চিত হওয়ার পর লাশকে তোশকে মুড়িয়ে রাখে। পরে মুখমণ্ডল অ্যাসিড দিয়ে ঝলসে দেয়।

সম্পর্কের নানা ডালপালা গজায়। একটি ছেলে এবং একটি মেয়ে পরিণত বয়সে সম্পর্কে জড়াতে পারে। যা হওয়ার কথা মধুর। কিন্তু তাতেও ছেদ পড়ছে।

আশুলিয়ার নরসিংহপুর এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে সামিউল। কৌশলে ওই তরুণীকে নিজ কক্ষে নিয়ে বন্ধু আরিফ ও রানাকে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে।

অপরদিকে, সন্তানদের মুখের দিকে তাকিয়েও রক্ষা হয় না সম্পর্ক। কুলিয়ারচরে আম্বিয়া খাতুন ও মাদরাসা শিক্ষক জজ মিয়া দম্পতির সংসারে চার ছেলে-মেয়ে ছিল। বিষয়টি জজ মিয়ার ভাই বাসিরসহ তার পরিবারের লোকজন সহজভাবে মেনে নিতে পারেনি। এরই জেরে গভীর রাতে বাসির কয়েকজন সহযোগীসহ সিঁধ কেটে তার ভাবির ঘরে ঢুকে শ্বাসরোধে আম্বিয়াকে হত্যা করে।

অন্যদিকে মা-ছেলের সম্পর্ক কতটা আস্থার যা এখন হুমকির মুখে এসে দাঁড়িয়েছে। কুষ্টিয়ায় মাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন বিচারক। ওই ছেলে কোদাল দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে মাকে।

ময়মনসিংহের নান্দাইলে সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় ছেলের বউয়ের মামলায় জেলে যেতে হয়েছে শ্বশুরকে। আর ওই ছেলের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে ১০৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ দাদা-দাদী। নান্দাইল উপজেলার আগমুশল্লি গ্রামে এ অমানবিক ঘটনাটি ঘটেছে।

আরও পড়ুন : মন্ত্রী-এমপিরা দুদকের টার্গেটে কেন, প্রশ্ন কাদেরের

এসব কোনোভাবেই সুস্থ স্বাভাবিক সমাজের লক্ষণ নয় বলে মন্তব্য করেছেন সমাজ বিজ্ঞানীরা। তাদের মতে এই সমাজকে এখনি সঠিক পথে না আনতে পারলে ভয়াবহ রূপ ধারণ করবে সামনে।

ওডি/এএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড