• বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৮ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

করোনা ভাইরাস নিয়ে দুশ্চিন্তার কথা জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:০৫
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি
সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি (ছবি : সংগৃহীত)

বিশ্বব্যাপী বেড়েই চলেছে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক। ভাইরাসটির শনাক্তস্থল চীনের সীমানা পেরিয়ে এর প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়েছে আরও অন্তত ৩০টি দেশে। এরই মধ্যে করোনা ভাইরাসের প্রভাব পরতে শুরু করেছে বিভিন্ন দেশের অর্থনীতিতে।

এ দিকে করোনা ভাইরাসের কারণে চীন থেকে ম্যানুফ্যাকচারিং মালামাল বিভিন্ন ইকুইপমেন্ট ও কাঁচামাল আমদানি ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে বাংলাদেশ।

করোনা ভাইরাসের কারণে সম্ভাব্য ক্ষতির দিক বিবেচনা করে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, আমরা একটু দুশ্চিন্তার মধ্যে আছি। তারপরও আমরা সবদিকে লক্ষ্য রাখছি। করোনা ভাইরাসের কী পরিমাণ চাপ আসতে পারে। সেটা নিয়ে একটা আলোচনা হচ্ছে। এর প্রভাব গার্মেন্টস সেক্টরে কী পরিমাণ সে ব্যাপারে খুব সম্ভবত ১৬ তারিখে একটা রিপোর্ট পাব।

তিনি আরও বলেন, আমরা লক্ষ্য রাখছি ফ্যাক্টরিগুলোর সাপ্লাইয়ের দিকে। চায়নাতে হলিডে শেষ হলো। আজ খবর পেলাম চায়নার মার্কেটগুলো খুলতে শুরু করেছে। আমরা সেটা অবজার্ভ করছি।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইন্টারন্যাশনাল ফায়ার সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি এক্সপো-ইফসির উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

চীন থেকে ম্যানুফ্যাকচারিং মালামাল বিভিন্ন ইকুইপমেন্ট ও কাঁচামাল আমদানি ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে বলে জানিয়েছে বিজিএমইএ। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, হঠাৎ করে বলা মুশকিল, এটা অত্যন্ত গভীর সমস্যা।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, রেডিমেড গার্মেন্টস সেক্টরের হঠাৎ করে সাপ্লাইটা কোথায় সোর্সিং করব? সেটা তো সময়ের ব্যাপার। আমরা লক্ষ্য রাখছি, আশা করছি অল্টারনেটিভ মার্কেট পেয়ে যাব। যদিও এর জন্য সময় দরকার। কারণ, যে স্পেসিফিকেশন কাঁচামাল আনতে হয় সেটা অন্য কোথাও পেতে হলে তো সময় দিতে হবে। বায়ারকে একসেপ্ট করতে হবে। এটা নিয়ে আমরা একটু দুশ্চিন্তার মধ্যে আছি বটে।

আরও পড়ুন : করোনার থাবায় ১৩৫৫ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ৬০ হাজার

বাজারে ইতোমধ্যে রসুনের দাম বাড়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, আমাদের বাজার মনিটরিং আছে। আমাদের ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরসহ সরকারের বিভিন্ন জায়গায় যারা ইমপ্লিমেন্টেশন করবে তাদের বলা হয়েছে, চিঠি পাঠিয়ে বলা হয়েছে, আপনারা বাজারে যান, বাজার মনিটরিং করেন। পাইকারি ও খুচরা বাজারে কী দামে বিক্রি হচ্ছে, তা মনিটরিং করতে বলা হয়েছে। বাজারে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে রাখতে বলা হয়েছে। কেউ যদি মূল্যের অতিরিক্ত দামে পণ্য বিক্রি করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

ওডি/এসএস

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড