• বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মালামালের মায়ায় মানুষ, জোর করে আশ্রয়ে নেওয়ার নির্দেশ

  বরিশাল প্রতিনিধি

০৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:৪৩
ঘূর্ণিঝড় বুলবুল
ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের প্রভাবে ঝুঁকি মোকাবিলায় স্থানীয়দের আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হচ্ছে (ছবি : দৈনিক অধিকার)

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’- এর জন্য বরিশালের ভোলাসহ উপকূলীয় নয় জেলায় ১০ নম্বর মহাবিপদ সংকেত জারি করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এ খবরে নড়েচড়ে বসেছে বরিশালের প্রশাসন, সরকারি-বেসরকারি নানা সংগঠন ও সংস্থা।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, শুধুমাত্র অবহেলার কারণে ২০০৭ সালের ঘূর্ণিঝড় সিডরে কয়েক হাজার মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। সেই কান্না এখনো শেষ হয়নি। কেবল অবহেলার জন্য একই ঘটনা এবার ঘটতে দেওয়া যায় না।

জানা গেছে, সরকারি-বেসরকারি নানা সংগঠন ও সংস্থার ব্যাপক প্রচার করার পরও ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার বহু মানুষ তাদের মালামাল ও সম্পদের মায়ায় আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে চাচ্ছেন না।

এ দিকে মহাবিপদ সংকেতের খবর পাওয়ার পরও লোকজন আশ্রয়কেন্দ্রে নিজ ইচ্ছায় যেতে না চাইলে, প্রয়োজনে তাদের জোর করে আশ্রয়কেন্দ্রে নিতে নির্দেশ দিয়েছেন বরিশালের বিভাগীয় কমিশনার মো. ইয়ামিন চৌধুরী।

শনিবার (৯ নভেম্বর) বেলা ১২টায় জেলা সার্কিট হাউস মিলনায়তনে ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় ডাকা জরুরি সভায় এ নির্দেশ দেন তিনি।

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ আজ সন্ধ্যায় উপকূলে আঘাত শুরু করবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

ইয়ামিন চৌধুরী বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার বাসিন্দাদের জীবন বাঁচানোর জন্যই জোর করে আশ্রয়কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার কথা বলা হ‌য়েছে। কারণ উপকূলের বেশ কিছু এলাকার লোকেরা মালপত্র রেখে আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে অনীহা প্রকাশ করছেন।

বিভাগীয় কমিশনার বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কথা হয়েছে। তারা মানুষের মালপত্র হেফাজতে রাখার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন। উপকূলের যেসব এলাকায় বাঁধ নেই, সেসব এলাকায় জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কাও আছে। তাই আমরা চাচ্ছি, সবাই যেন নিরাপদ থাকে।

ওডি/এমআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড