• রোববার, ০৯ আগস্ট ২০২০, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বছরজুড়ে ‘ঘটনাবহুল’ আদালতপাড়া

  সুলতান মাহমুদ বান্না

০২ জানুয়ারি ২০২০, ১৯:০৯
হাইকোর্ট
হাইকোর্ট (ছবি : সংগৃহীত)

দেশের বিচারাঙ্গনে ২০১৯ সালে ঘটেছে নানা আলোচিত ঘটনা। ঘটে যাওয়া ঘটনায় ঘটেছে ইতিহাস। উচ্চ আদালতের মতো নিম্ন আদালতেও স্মরণ করার মতো আছে ঘটনাবহুল ঘটনা। শুরুতেই আলোচনা উচ্চ আদালতের ঘটনা নিয়ে।

সকাল-বিকাল রাস্তায় পানি ছিটানোর নির্দেশ

উন্নয়নমূলক কাজের কারণে ঢাকা মহানগরীতে ধুলাবালিতে বায়ুদূষণ প্রতিরোধে সকাল-বিকাল রাস্তায় পানি দিতে ২৮ জানুয়ারি নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ঢাকা শহরে যারা বায়ুদূষণের কারণ সৃষ্টি করছে, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সপ্তাহে দুবার ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করতে পরিবেশ অধিদফতরকে নির্দেশ দেয়া হয়।এসব নির্দেশনা বাস্তবায়নের পরের দুই সপ্তাহের মধ্যে পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক এবং ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের দুই মেয়র ও নির্বাহী কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দিতে বলেন হাইকোর্ট। ঢাকা সিটির বায়ুদূষণ রোধে হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের (এইচআরপিবি) করা রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি এ এফ নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ ওই আদেশ দেন।

জাহালমকাণ্ড : বিনা দোষে কারাভোগ

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কাণ্ডে বিনা দোষে তিন বছর কারাভোগের পর ৩রা ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের নির্দেশে মুক্তি লাভ করেন পাটকল শ্রমিক জাহালম। সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির অভিযোগে আবু সালেক নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ৩৩টি মামলা করে দুদক। কিন্তু দুদকের ভুলে সালেকের বদলে আটক হতে হয় টাঙ্গাইলের জাহালম। তিন বছর তাকে কাটাতে হয় কারাগারে। এ নিয়ে একটি পত্রিকার প্রতিবেদন হাইকোর্টের নজরে আনা হলে আদালত স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুল জারি করেন। পরবর্তী আইনি প্রক্রিয়া শেষে জাহালম মুক্তি পান।

শবে বরাতের তারিখ নিয়ে বিব্রত

৬ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি সভা করে জানায়, ওইদিন দেশের আকাশে কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে ৮ এপ্রিল থেকে শাবান মাস গণনা শুরু হবে এবং ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালিত হবে। কিন্তু ‘মজলিসু রুইয়াতিল হিলাল’ নামে একটি সংগঠন দাবি করে, খাগড়াছড়িতে চাঁদ দেখা গেছে। ২০ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লাইলাতুল বরাত পালিত হওয়ার কথা। এ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। এ অবস্থায় ১৫ এপ্রিল হাইকোর্টে আবেদন করার অনুমতি চেয়ে একটি আবেদন হয়। সে আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট বলেন, এখন একেবারেই লাস্ট স্টেজ। তাই আমরা বিষয়টি নিয়ে বিব্রতবোধ করছি এবং এ অবস্থায় নতুন করে বিভ্রান্তির অবকাশ নেই।

৫২ ভেজাল পণ্য প্রত্যাহারের নির্দেশ

গত ১২ই মে পরীক্ষায় নিম্নমানের বলে প্রমাণ হওয়ায় ৫২টি খাদ্যপণ্য বাজার থেকে ১০ দিনের মধ্যে প্রত্যাহার করে নিতে ১২ মে আদেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে, মানের পরীক্ষায় কৃতকার্য না হওয়া পর্যন্ত তাদের উৎপাদন বন্ধ করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এছাড়া সঙ্গে এসব খাদ্যপণ্য বিক্রি ও সরবরাহে জড়িতদের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের প্রতি নির্দেশ দেয়া হয়। যতক্ষণ পর্যন্ত ওই ৫২ পণ্য বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় পুনরায় উত্তীর্ণ না হচ্ছে, ততক্ষণ এসব পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেয়া হয়। মাদকবিরোধী অভিযানের মতো খাদ্যে ভেজাল মেশানোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ

গত ২০শে জুন দুই বাসের রেষারেষিতে রাজধানীর তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হাসানের হাত হারানোর পর মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষতিপূরণ হিসেবে ৫০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আপিল করেন তারা। এরপর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারকের আপিল বেঞ্চ নিহত রাজীবের পরিবারকে এক মাসের মধ্যে ক্ষতিপূরণের ১০ লাখ টাকা পরিশোধ করতে স্বজন পরিবহনকে নির্দেশ দেন।

এছাড়া গ্রিনলাইন পরিবহনের বাসের চাপায় পা হারানো রাসেল সরকারের ক্ষতিপূরণের ৫০ লাখ টাকার মধ্যে ১০ লাখ টাকা এবছর পরিশোধ করা হয়। তবে ক্ষতিপূরণ প্রশ্নে জারি করা রুল হাইকোর্টে নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত আট কিস্তিতে বাকি ৪০ লাখ টাকা দেয়ার বিষয়টি স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। রাসেলের পা হারানের ঘটনায় হাইকোর্ট ক্ষতিপূরণ প্রশ্নে রুল জারি করেন এবং পরবর্তীতে রাসেল সরকারকে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে নির্দেশ দেন আদালত।

পরকীয়ার সাজা প্রদানের বিষয়ে রুল

পরকীয়ার সাজা সংক্রান্ত দণ্ডবিধির (পেনাল কোড) ৪৯৭ ধারা কেন অবৈধ ও অসাংবিধানিক ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে ৮ জুলাই রুল জারি করেন বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ ওই রুল জারি করেন। দণ্ডবিধির ৪৯৭ ধারা অনুযায়ী কোনো স্ত্রী পরকীয়া করলে যার সঙ্গে পরকীয়া করবে শুধু সেই ব্যক্তির বিরুদ্ধে শাস্তির বিধান রয়েছে। অথচ স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর কিছুই করার নেই। একইভাবে স্বামী পরকীয়া করলে স্ত্রী স্বামীর বিরুদ্ধে বা যার সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িত হবেন, তার বিরুদ্ধে কোনো প্রতিকার পাবেন না। যা সংবিধানের ২৭, ২৮ ও ৩২ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এবং এটা অদ্ভুত ও বৈষম্যমূলক।

বিশুদ্ধ পানি নিয়ে রুল

রাজধানীর কয়েকটি এলাকায় ওয়াসার পানিতে মল ও ব্যাকটেরিয়ার অস্তিত্ব নিয়ে পানি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ওয়াসা’র উদ্দেশে ২৪ জুলাই হাইকোর্ট বলেন, ‘আমাদের দরকার বিশুদ্ধ পানি। আমরা অতশত বুঝি না, বিশুদ্ধ পানি চাই।’ পানিতে ব্যাকটেরিয়া ও মলের অস্তিত্ব রয়েছে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশের পর ওয়াসা কর্তৃপক্ষের বক্তব্য বা ব্যাখ্যা কী, তা জানতে চেয়ে শুনানিতে হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ এ কথা বলেন।

দুধ নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ

বিএসটিআইয়ের লাইসেন্সধারী ১৪ কোম্পানির পাস্তুরিত দুধ উৎপাদন ও বিপণন বন্ধে ২৮ জুলাই নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এসব দুধ ক্রয় ও মজুত করা থেকেও বিরত থাকতে বলা হয়। বিএসটিআইয়ের লাইসেন্সধারী এই ১৪ কোম্পানির উৎপাদিত দুধে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর অ্যান্টিবায়োটিক ও ধাতব উপাদানের (সিসা) উপস্থিতি থাকায় আদালত ওই নিষেধাজ্ঞা দেন। হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞার আদেশ স্থগিত করেন আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত।

অসদাচরণের অভিযোগ তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে

গত ২২শে আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের তিন বিচারপতির নাম কার্যতালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়। অর্থাৎ তারা সে থেকে আর দৈনন্দিন বিচারিক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করছেন না। তাদের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চলছে জানিয়ে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন জানায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে পরামর্শ করে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিন বিচারপতি হলেন সালমা মাসুদ চৌধুরী, কাজী রেজা উল হক এবং এ কে এম জহুরুল হক।

হাইকোর্টে অতিরিক্ত নয় বিচারপতি নিয়োগ

২০ অক্টোবর সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে অতিরিক্ত বিচারপতি হিসেবে শপথ গ্রহণের দিন থেকে পরবর্তী দুই বছরের জন্য নিয়োগ পান ৯ জন। এই অতিরিক্ত ৯ বিচারপতিকে নিয়ে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে এখন মোট বিচারপতির সংখ্যা ১০০ জন। এর আগে সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩০ মে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে ১৮ অতিরিক্ত বিচারপতি নিয়োগ দেওয়া হয়।

মোবাইল কোর্টে সাজাপ্রাপ্ত সব শিশুকে মুক্তির নির্দেশ

গত ৩১ অক্টোবর বিভিন্ন অপরাধে মোবাইল কোর্টে সাজাপ্রাপ্ত শিশু-কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে থাকা সব শিশুকে অবিলম্বে মুক্তির নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এর মধ্যেক ১২ বছরের কম বয়সি শিশুদের তাৎক্ষণিক মুক্তি ও ১২ বছর থেকে ১৮ বছর বয়সি শিশুদের ছয় মাসের জামিনে মুক্তির নির্দেশ দেয়া হয়। বিচারপতি শেখ হাসান আরিফের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন নজরে নিয়ে স্বপ্রণোদিতভাবে এ আদেশ দেন।

তুরিন আফরোজকে অপসারণ

গত ১১ই নভেম্বর মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজকে অপসারণ করা হয়। শৃঙ্খলা ও পেশাগত আচরণ ভঙ্গ এবং গুরুতর অসদাচরণের দায়ে তাকে অপসারণ করে আইন মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করে। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর তুরিন আফরোজকে শৃঙ্খলা ও পেশাগত আচরণ ভঙ্গ এবং গুরুতর অসদাচরণের দায়ে নিয়োগ বাতিলক্রমে প্রসিকিউটর পদ থেকে অপসারণ করা হয়।

ডেঙ্গু মশার উপদ্রব নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতায় আদেশ

বিদায়ী বছর ডেঙ্গু মশার উপদ্রব নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থতার কারণ উদঘাটন ও দায়ীদের সনাক্তকরণে বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ঢাকার জেলা জজ ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম সচিবকে এ বিষয়ে তদন্ত করতে বলা হয়েছে। আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি এ তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে হবে। গত ১২ নভেম্বর এ সংক্রান্ত এক রুলের শুনানিকালে বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এর নিকট হতে অগ্রগতির তথ্য চাওয়া হয়।

এফিডেভিট ও ফাইলিং শাখায় নজিরবিহীন বদলি

হাইকোর্টের এফিডেভিট ও ফাইলিং শাখায় নানা অনিয়ম আর হয়রানির অভিযোগে সব কর্মকর্তা-কর্মচারিকে এক সঙ্গে বদলি করা হয়। ইতোপূর্বে এমন ঘটনা এর আগে ঘটেনি সুপ্রিম কোর্টে। এ নিয়ে প্রধান বিচারপতি সংশ্লিষ্টদের সতর্ক করেন। কিন্তু তেমন কোনো কাজ হচ্ছিল না। পরে এই দুই শাখায় সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হয়। এতেও সুরাহা মিলছিলনা।

এ্যাটর্নি অফিসে নতুন এএজি ও ডিএজি নিয়োগ

বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের হাই কোর্ট বিভাগ ও আপীল বিভাগে সরকারের পক্ষে মামলা পরিচালনার জন্য এটর্নি জেনারেলের নেতৃত্বে ডেপুটি ও সহকারী এটর্নি জেনারেলগণ কাজ করে থাকেন। ২০০৯ সালে নিয়োগপ্রাপ্ত আইনজীবিদেরকে পদত্যাগ করার পর গত বছর বিপুল সংখ্যক সরকার সমর্থিত আইনজীবিদেরকে নতুন এএজি ও ডিএজি হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হয়।

আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির জামিন

হাইকোর্টের নির্দেশে বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে কারাগার থেকে মুক্তি দেওয়া হয়। গ্রেপ্তারের ৪৮ দিন পর বরগুনা জেলা কারাগার তাকে মুক্তি দেয়। জামিনের সঙ্গে দুটি শর্ত দেয় আদালত। প্রথম শর্ত, জামিনে থাকাবস্থায় মিন্নি তার বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোরের জিম্মায় থাকবেন। আর দ্বিতীয় শর্ত, মিন্নি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন না। এই দুই শর্তের ব্যত্যয় ঘটলে মিন্নির জামিন বাতিল হবে বলে রায়ে উল্লেখ করেন হাইকোর্ট। উল্লেখ্য, ২৬ জুন রিফাতকে বরগুনা কলেজের সামনে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এরপর ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সারা দেশে আলোচনার সৃষ্টি হয়।

আপিল বিভাগের এজলাসে হট্টগোল

গত ৫ ডিসেম্বর সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন শুনানিকে কেন্দ্র করে নজিরবিহীন হট্টগোলের ঘটনা ঘটে। জামিন না পেয়ে বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা মুহুর্মুহু স্লোগান দিতে থাকে এজলাসে। চলে হট্টগোল। পরিস্থিতি শান্ত না হওয়ায় ১০টার দিকে প্রধান বিচারপতিসহ অন্য বিচারপতিরা এজলাস ত্যাগ করেন। আপিল বিভাগের কার্যক্রমও বন্ধ হয়ে যায়। সাড়ে ১১টার দিকে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনসহ অন্য বিচারপতিরা ফের এজলাসে আসেন। আপিল বিভাগ এসময় কার্যতালিকার পরবর্তী মামলা শুনানি শুরুর কথা বলেন। মিনিট কয়েকপর বিএনপি সমর্থক সব জুনিয়র আইনজীবী একযোগে দাঁড়িয়ে যান। তারা ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ স্লোগান দিতে থাকেন। বেলা সোয়া ১টা পর্যন্ত চলে এ পরিস্থিতি।

নিম্ন আদালতের উল্লেখযোগ্য ঘটনা-

নুসরাত হত্যা এবং রায়

দেশজুড়ে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি করেছিল ফেনীতে মাদ্রাসা ছাত্রী হত্যাকাণ্ড। ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহানের শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছিল ৬ই এপ্রিল। চারদিন পর ১০ই এপ্রিল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনার সাত মাসেরও কম সময়ের মধ্যে ২৪শে অক্টোবর স্থানীয় আদালতে বিচার শেষ হয়েছে। বিচারিক আদালতে মাদ্রাসার অধ্যক্ষসহ আসামী ১৬জনেরই ফাঁসির রায় দেয়া হয়েছে। সেই রায়ের পর তখন প্রতিক্রিয়ায় নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসা সন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। তিনি দাবি করেন, আইনগত পরের প্রক্রিয়াগুলো যেনো দ্রুত হয়।

এমপিপুত্র রনির যাবজ্জীবন

চার বছর আগে মগবাজারের নিউ ইস্কাটনে গাড়ি থেকে হঠাৎ এলোপাতাড়ি গুলিতে প্রাণ হারান নিরপরাধ দু’জন মানুষ। পরে জানা যায়, ঘটনাটি ঘটিয়েছেন মহিলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও সংরক্ষিত আসনের তৎকালীন সংসদ সদস্য পিনু খানের ছেলে বখতিয়ার আলম রনি। তবে এমপিপুত্র হয়েও ছাড় পাননি তিনি, এসেছেন বিচারের আওতায়। ওই খুনের ঘটনায় এমপিপুত্র রনিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন ঢাকার একটি আদালত। একই সঙ্গে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে তার আরও ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেন বিচারক।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দণ্ডপ্রাপ্ত ওসি মোয়াজ্জেম

বিদায়ী বছরের শেষদিকে আট বছরের কারাদণ্ড হয় ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের। শ্লীলতাহানীর অভিযোগ দিতে থানায় গেলে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দি ভিডিও করেন তিনি। সেই ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয় ওসি মোয়াজ্জেমের নামে। এ মামলায় গত ২৮ নভেম্বর সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেন দু’টি ধারায় মোয়াজ্জেমকে মোট আট বছর কারাদণ্ড দেন। এসময় ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে দু’টি ধারায় আরও ছয় মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ডও দেওয়া হয় তাকে। ২০১৮ সালে পাস হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে প্রথম সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তি হচ্ছেন ওসি মোয়াজ্জেম।

হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় সাতজনের মৃত্যুদণ্ড

রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় বর্বরোচিত জঙ্গি হামলা মামলায় সাতজনকে গত ২৭ নভেম্বর মৃত্যুদণ্ড দেন ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনাল। পাশাপাশি তাদের ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। ২০০৯ এর ৬ (২) (অ) ধারায় মৃত্যুদণ্ড হলেও ২০০৯ এর ৭ ধারায় প্রত্যেককে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড; ২০০৯ এর ৮ ধারায় প্রত্যেককে ছয় মাসের সশ্রম কারাদণ্ড; ২০০৯ এর ৯ ধারায় পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় হামলা চালিয়ে বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। তাদের গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তাও নিহত হন। পরে অভিযানে পাঁচ জঙ্গি নিহত হন।

দিয়া-রাজীবের মৃত্যু : দুই চালকসহ তিনজনের যাবজ্জীবন

বেপরোয়া দুই বাসের রেষারেষিতে রাজধানীর রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী আবদুল করিম রাজীব ও দিয়া খানম মিমের মৃত্যু ২০১৮ সালে আলোড়ন সৃষ্টি করে। সারাদেশের শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে আসেন নিরাপদ সড়কের দাবিতে। আলোচিত এ ঘটনায় হওয়া মামলায় রায় হয়েছে দেড় বছরের মধ্যেই। গত ১ ডিসেম্বর ওই রায়ে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ দুই বাসের চালকসহ তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- জাবালে নূর পরিবহনের দুই চালক মাসুম বিল্লাহ ও জুবায়ের সুমন এবং এক বাসের সহকারী কাজী আসাদ। এর মধ্যে কাজী আসাদ পলাতক থাকলেও বাকি দুইজন কারাগারে রয়েছেন। রায়ে জাবালে নূর পরিবহনের মালিক জাহাঙ্গীর আলম ও বাসচালকের সহকারী এনায়েত হোসেনকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড