• মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

চলতি সপ্তাহেই ভাঙা হবে বিজিএমইএ ভবন

  অধিকার ডেস্ক

২১ অক্টোবর ২০১৯, ২০:৩৩
বিজিএমইএ ভবন
বিজিএমইএ ভবন। (ছবি : সংগৃহীত)

চলতি সপ্তাহেই শুরু হচ্ছে বিজিএমইএ ভবন ভাঙার কাজ। সনাতন পদ্ধতিতে ভাঙা হবে ভবনটি যার ফলে এটি ভাঙার জন্য সময় দেওয়া হবে ছয় মাস। তবে এ কাজে কিছু আধুনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহৃত হবে বলে জানিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) কর্মকর্তারা।

বিজয় সরণির র‌্যাংগস ভবনের মতো দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি যাতে না ঘটে, সে জন্য শ্রমিকদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার রাখতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

২০১১ সালের ৩ এপ্রিল হাইকোর্ট এক রায়ে বিজিএমইএর ভবনটিকে ‘হাতিরঝিল প্রকল্পে একটি ক্যানসারের মতো’ উল্লেখ করে রায় প্রকাশের ৯০ দিনের মধ্যে সেটি ভেঙে ফেলতে নির্দেশ দেন। এর বিরুদ্ধে বিজিএমইএ লিভ টু আপিল করে, যা ২০১৬ সালের ২ জুন আপিল বিভাগে খারিজ হয়। পরে ভবন ছাড়তে উচ্চ আদালতের কাছে সময় চায় বিজিএমইএ।

প্রথমে ছয় মাস এবং পরে সাত মাস সময় দেওয়া হয়। সর্বশেষ গত বছর আবার এক বছর সময় বাড়ানো হয়। সে সময় ভবিষ্যতে আর সময় চাইবে না বলে মুচলেকা দেয় বিজিএমইএ। সেই সময় শেষ হয় গত ১২ এপ্রিল। এরপর ১৬ এপ্রিল বিজিএমইএ ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেয় রাজউক।

হাতিরঝিলে গড়ে ওঠা বিজিএমইএ ভবনের নির্মাণকাজ শেষ হয় ২০০৬ সালের দিকে। জলাশয়ে ভবনটি নির্মাণ করায় শুরু থেকেই এর বিরোধিতা করে আসছিলেন পরিবেশবাদীরা। পরে বিষয়টি আদালতে গড়ায়।

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) কর্মকর্তারা জানান, ১৬ তলা বিজিএমইএ ভবন ভাঙার বিষয়ে সোমবার সাত সদস্যের কার্যকরী কমিটির বৈঠক হবে।

রাজউকের প্রধান প্রকৌশলী ও হাতিরঝিল প্রকল্পের পরিচালক রায়হানুল ফেরদৌস রবিবার বলেন, আগামী বুধবার নাকি বৃহস্পতিবার বিজিএমই ভবন ভাঙার কাজের সূচনা হবে, তা সোমবারের সভায় চূড়ান্ত হবে। ভাঙার সময় পরিবেশগত দিক ও জানমালের নিরাপত্তার দিকটি বিশেষভাবে দেখা হবে। ভাঙার কাজে ফায়ার সার্ভিস ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) বিশেষজ্ঞও থাকবেন।

ওডি/এসএইচএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড