• সোমবার, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৬ মাঘ ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ছুটির দিনে ফাঁকা রাজধানীর রাজপথ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২০ জানুয়ারি ২০২৩, ১৩:৫৫
ছুটির দিনে ফাঁকা রাজধানীর রাজপথ
রাজধানীর রাজপথ ফাঁকা (ফাইল ছবি)

রাজধানী ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা গাজীপুরের টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে। আজ শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) ফজরের নামাজের পর শুরু হয় দ্বিতীয় পর্বের মূল আনুষ্ঠানিকতা। যদিও গতকাল বৃহস্পতিবার বাদ আসর থেকে মাওলানা আব্দুস সাত্তারের জিম্মাদারিতে আমবয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমার অনানুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়।

দ্বিতীয় পর্বেও দেশের ৬৪ জেলা ছাড়াও বিদেশি মুসল্লিরা ইজতেমায় অংশগ্রহণ করেছেন। এবারের ইজতেমার শুরুর দিন সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় যান চলাচলে নেই বাড়তি চাপ। রাজধানীর গুলিস্তান, পল্টন, মৎস্য ভবন, কাকরাইল, শাহবাগ, সাইন্সল্যাব এলাকায় যানচলাচল অনেকটাই স্বাভাবিক।

আজ শুক্রবার দুপুরের দিকে এসব এলাকায় ঘুরে এমন পরিস্থিতি চোখে পড়েছে।

সাধারণত ইজতেমাকে কেন্দ্র করে রাজধানী ও আশপাশের এলাকার সড়কে থাকে যানবাহনের বাড়তি চাপ। কিন্তু আজ সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় রাজধানীর সড়কে যানবাহনের তেমন চাপ দেখা যায়নি। সড়কে যান চলাচল অনেকটাই স্বাভাবিক। ফলে ইজতেমার ময়দানে জুমার নামাজে অংশ নিতে যাওয়া মুসল্লিরা আজ ভোগান্তি ছাড়াই সড়কে যাতায়াত করতে পারছেন।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, মাঝেমধ্যে কিছু বাস আসছে। এ সময় অপেক্ষমাণ যাত্রীরা বাসে উঠে নিজের গন্তব্যে যাচ্ছেন।

রাজধানীর গুলিস্তান থেকে মিরপুর ১০ নম্বরে যেতে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন সজীব। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করতেই সদরঘাট থেকে আসা এক বাসে ওঠেন তিনি। এর আগে জাগো নিউজকে সজীব বলেন, যানজটের কারণে সাধারণত বাসের জন্য দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। আজ সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় সড়কে বাস কম। এ কারণে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হয়েছে।

ধানমন্ডি থেকে শাহবাগ আসা মাহবুব নামের অপর এক যাত্রী বলেন, রাস্তাঘাট ফাঁকাই আছে। ছুটির দিনে বাড়তি চাপ নেই। ইজতেমা তো আর এইদিকে না যে গাড়ির বেশি চাপ থাকবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড