• শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯  |   ২১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রাজপথ থেকে হঠাৎ উধাও বাস 

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১০ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২৭
রাজপথ থেকে হঠাৎ উধাও বাস 
ফাঁকা সড়ক (ফাইল ছবি)

বিএনপির সমাবেশ ঘিরে চাপা উত্তেজনার মধ্যে আজ শনিবার (১০ ডিসেম্বর) সকাল থেকেই রাজধানী ঢাকার রাজপথ থেকে বাস উধাও হয়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যা ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা চললেও অন্যান্য দিনের চেয়ে সেগুলোর সংখ্যাও কম।

এদিন সকালে আসাদগেট, মোহাম্মদপুর, সংসদ মোড়, প্রগতি সরণি এলাকা ঘুরে দেখা যায় এসব এলাকায় বাস প্রায় চলছেই না। সকালে বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশ্যে যারা বাসা থেকে বের হয়েছেন তাদের পড়তে হয়েছে বিপাকে। ঘণ্টা খানেক অপেক্ষা করে একটি বাসের দেখা মিলছে। অবশ্য রাস্তায় মানুষের সংখ্যাও অন্যান্য দিনের চেয়ে কম।

আসাদগেট মোড়ে কথা হয় বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী সোলাইমান হকের সঙ্গে। তিনি বলেন, আধাঘণ্টার বেশি সময় ধরে দাঁড়িয়ে আছি। কিন্তু কোনো বাস পাইনি। আমাদের মতো আজ যাদের অফিস খোলা তারা তো বিপদে পড়ে গেলাম।

একই স্থানে অপেক্ষা করছিলেন ফারজানা ইয়াসমিন। তিনি বলেন, রাস্তায় নেমে শুনছি বাস নাকি নেই। মানুষের নানা ধরনের প্রয়োজন থাকে। আজ সারাদিন বাস না পেলে তো ভোগান্তির মাত্রা বেড়ে যাবে।

যাত্রীবাহী বাস না থাকায় মানুষকে বিকল্প হিসেবে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মোটর সাইকেল, রিকশার ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে।

মোটরসাইকেল রাইড শেয়ার করেন রাকিবুল। তিনি বলেন, রামপুরা থেকে মিরপুর, শ্যাওড়াপাড়া হয়ে আসাদগেট এসেছি। কিন্তু রাস্তায় হাতেগোনা দুই-একটা ছাড়া কোনো বাসের দেখা পাইনি।

বাস না থাকায় মানুষকে বিকল্প হিসেবে সিএনজিচালিত অটোরিকশা, মোটর সাইকেল, রিকশার ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে।

রফিকুল আলম নামে এক ব্যক্তি বলেন, বাসের জন্য অপেক্ষা না করে সিএনজি নিয়ে নিচ্ছি। বাস বন্ধ করে এইভাবে ভোগান্তি দেওয়াটা ঠিক হয়নি।

বাইক চালক সুমন বলেন, বাস না থাকায় আজকে রাস্তায় বাইক চলছে বেশি। অন্যান্য দিন মোড়ে মোড়ে বাইক দেখা গেলেও আজ তার সংখ্যা কম। কারণ বেশিরভাগই রাইডে আছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: odhikaron[email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড