• শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কাল থেকে পশুর হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৭ জুলাই ২০২০, ১৯:১৮
পশুর হাট
কোরবানি পশুর হাট (ছবি : সংগৃহীত)

আগামীকাল থেকেই রাজধানীর পশুর হাটগুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

সোমবার (২৭ জুলাই বিকালে রাজধানীর ধানমন্ডি লেকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০২০ উপলক্ষে মাছের পোনা অবমুক্তকরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে এ কথা জানান মেয়র।

স্বাস্থ্যবিধিসহ অন্যান্য শর্তাবলি প্রতিপালনে ডিএসসিসি কঠোরতা দেখাবে জানিয়ে তাপস বলেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকার ৮টি সংসদীয় আসনের কথা বিবেচনা করে আমরা ১১টি জায়গায় ১১টি পশুর হাট ইজারা দিয়েছি। এ সব হাট সুষ্ঠুভাবে ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে গতকাল ইজারাদারদের নিয়ে সভা হয়েছে। সেখানে ইজারাদারদের আমাদের শর্তাবলি যাতে কঠোরভাবে পালন করা হয় সে বিষয়ে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই সব শর্তাবলি প্রতিপালন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আগামীকাল থেকে আমরা হাটগুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করব। কেউ ইজারার শর্ত ভঙ্গ করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেব।

ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস আরও বলেন, আমরা গণমাধ্যমের সুবাদে দেখছি যে, অনেকেই ইতোমধ্যে ইজারায় বরাদ্দকৃত জায়গার বাইরে আবাসিক এলাকায়ও গরুর হাট বিস্তৃত করছে, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়। আমরা আগামীকাল থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করব। ইজারায় বরাদ্দকৃত জায়গার বাইরে কোনো ইজারাদার পশুর হাট বসাতে পারবে না।

যত্রতত্র পশুর হাট বসার সুযোগ রাখা হয়নি জানিয়ে ডিএসসিসি মেয়র আরও বলেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় আমরা অবৈধ কোনো পশুর হাটের সুযোগ রাখিনি। কঠোরভাবে সেটা নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন : খালেদার বাসায় যেতে প্রধানমন্ত্রীকে আহ্বান জাফরুল্লাহর

ঢাকা শহরের জলাবদ্ধতা সমস্যা সমাধানের দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে ডিএসসিসি মেয়র আরও বলেন, এরই মধ্যে ঢাকা শহরের ১০টি পুকুর-খাল-জলাশয় নিয়ে একটি প্রকল্প আমরা সাজাচ্ছি। শিগগিরই এ প্রকল্প জমা দেয়া হবে। আমি বিশ্বাস করি পর্যায়ক্রমে ঢাকাবাসীকে আমরা অন্যান্য সমস্যার সুরাহা দেওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদে জলাবদ্ধতা সমস্যারও সমাধান করতে সমর্থ হবো।

মৎস্য অধিদফতরের মহাপরিচালক কাজী শামস আফরোজের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে ডিএসসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (ডা.) শরীফ আহমেদ, প্রধান প্রকৌশলী মো. রেজাউর রহমান, ১৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম বাবলা ও সংরক্ষিত নারী আসনের কাউন্সিলর শিরীন গাফফারী উপস্থিত ছিলেন।

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড