• শুক্রবার, ০৫ জুন ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বই আলোচনা

তিন নাম্বার সেল : একটি সমাজ পরিবর্তনের গল্প

  সিদরাতুল মুনতাসির

০৪ মার্চ ২০২০, ১৪:৫৭
প্রচ্ছদ
প্রচ্ছদ : গল্পগ্রন্থ ‘তিন নাম্বার সেল’

‘তিন নাম্বার সেল’ বইটি একদম সমসাময়িক বিষয় নিয়ে লেখা। বইটি পড়ে আমার মনে হয়েছে লেখক চেয়েছেন সমাজের পরিবর্তন। সমাজের বিভিন্ন অসঙ্গতিকে বইয়ের মাধ্যমে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। চেষ্টা করেছেন বিভিন্ন অপরাধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোর। বইটিতে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, নেশার মতো অপরাধগুলোকে খুব সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তিনি। রোমান্টিক গল্পের ভিতরেও রেখেছেন শিক্ষা। বইটি বলা যায় শিক্ষামূলক একটি গ্রন্থ।  

ধর্ষণের উপর যে গল্পটি লিখেছেন সে গল্পটি গোয়েন্দা নির্ভর। সড়ক দুর্ঘটনার মতো দুঃখজনক ঘটনা নিয়েও লিখেছেন দুইটি গল্প, আছে মুক্তিযুদ্ধ নিয়েও গল্প। আমি আমার পারসোনাল রেটিং ৫ এ ৪.৩ দিবো। বইটি আমার কাছে ভালই লেগেছে। 

কয়েকটি গল্পের শেষের অংশকে তিনি এমনভাবে শেষ করেছেন যেন, শেষ হয়ে ও হইলো না শেষ। ছোটগল্পের থিম ধরে রাখার চেষ্টা করেছেন। সর্বোপরি বলবো বইটি পড়ে পাঠকদের দারুণ লাগবে।
 
বইটির দুই একটা গুরুত্বপূর্ণ কথা- 
১. প্রিয়জনগুলো হারিয়ে যায় প্রয়োজন শেষে, নতুন কোন প্রিয়জন নামক প্রয়োজনের আড়ালে। 

২. মৃদু আলো নিয়ে কাদম্বরীর পাশে জেগে আছে এক চিলতে চাঁদ। জানালা দিয়ে দূর আকাশপানে চাঁদের দিকে তাকিয়ে দেখছিলাম চাঁদের বুড়ি বসে আছে। চাঁদনী রাতের আলোর যোগান দিচ্ছে চাঁদ। রাকিব কার সাথে যেন কথা বলছে হঠাৎ কানে আসলো ‘কেমন আছেন?’ লোকটা অপরিচিত। কেউ যখন বলে ‘কেমন আছেন?’ তখন খুব বিরক্ত লাগে, ‘কেমন আছি?’ এটা একটা একান্ত  ব্যক্তিগত প্রশ্ন।  

যে কাউকে এক্সেক্টলি আমি কেমন আছি বলা যায় না। কেউ বলেও না যে সে কেমন আছে, তবুও ও বাতাসে উড়ে বেড়ায় কেমন আছো প্রশ্ন। বিরক্তিকর প্রশ্নের উত্তর ও আসে একই। এই প্রশ্নটা সব সময়ী আসে জানি আসবেও। সবাই মিছে মিছে একই উত্তর দিবে সেটাও জানি। তবে আমার একান্ত ব্যক্তিগত অভিমত এই গভীর স্পর্শকাতর প্রশ্নকে প্রাইভেসি দেওয়া হওক। এই ভালো থাকার রবোটিক উত্তর করার মতো একটা জঘন্য মিথ্যে থেকে সবাই বাঁচুক।

ক. ভাবছিলাম আজ আমার নিঃশ্বাসে মিশে থাকা হেরে যাওয়া কাহিনীর মূল চরিত্র তুমি, হে প্রাক্তন তোমার মতো কেউ কখনো আমায় এতটা পাল্টে দেয়নি।

খ. তোমায় চেয়েছিলাম নিজের জন্য, তোমায় ভুলেও থাকি নিজেরই জন্য দেখো কতো স্বার্থপর আমি। 

এমন আরো অনেক কথা দিয়ে ভরপুর বইটি। 

আরও পড়ুন : অর্ধবৃত্ত : জীবনের নানান সত্ত্বার গল্প

লেখক পরিচিতি : 
এ আর চৌধুরী রাহি পুরো নাম আরমান রশীদ চৌধুরী রাহি। ১৯৯৭ সালের ১৪ মে  হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট থানাধীন নরপতি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি।  

বইটি পাওয়া যাবে - রকমারি.কম
লিংক - https://www.rokomari.com/book/197393/tin-number-cell

গ্রন্থ পরিচিতি :

গল্পগ্রন্থ - তিন নাম্বার সেল
লেখক - এ আর চৌধুরী রাহি
প্রকাশনী - আলোর ঠিকানা
প্রচ্ছদ - নাদিম মাহমুদ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড