• বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কবিতা

পৃথিবীর ফুসফুসে আছে আমার অধিকার

  মো. মিজানুর রহমান পলাশ

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:২২
কবিতা
ছবি : প্রতীকী

পুড়ে যাচ্ছে নিশ্চল বৃক্ষের মৌন জীবন। 
পুড়ে যাচ্ছে সবুজ, পুড়ে যাচ্ছে চিরহরিৎ বন,
পুড়ছে আমাজন......পাগলা আগুনে..... 

পাগলা আগুন!
রাজনৈতিক প্রতিহিংসার দাবানল!
বাণিজ্যিক চিন্তার ‘আগুনে পাগলামি!’
কোনটা অধিক ভয়ংকর?
না, তার কিছুই জানি না আমি।

শুধু জানি, শুধু অনুভব করি..... 
আমাজনের দাবানলে, তপ্ত হয়নি এখনো 
হাজার মাইল দুরত্বে আমার শহরের হাওয়া, 
তার উত্তাপ এখনো স্পর্শ করেনি 
                  আমার তামাটে শরীরের ত্বক।  
এখনো আমাজনের এক কণা ছাই
উড়ে এসে পড়েনি-
আমার তিন ফিট বাই ছয় ফিট বারান্দায়,
জানালায় ঝুলে থাকা সফেদ পর্দায়, 
কিংবা ঘরের দামি টাইলসের চকচকে স্বছতায়।

পুড়ছে অক্সিজেনের প্রাকৃতিক কারখানা! 
পুড়ে যাচ্ছে পৃথিবীর বৃহৎ ফুসফুস! 
পুড়ছে...পুড়ে যাচ্ছে আমাজন, পাগলা আগুনে...
তার নিকটতম আকাশ হচ্ছে অন্ধকার, ধোঁয়াচ্ছন্ন।

কিন্তু আমার আকাশ পরিচ্ছন্ন এখনো; 
আগুন-সাইক্লোন থেকে উৎপন্ন 
ধোঁয়া'র কুন্ডলীর কোন অংশ দেখা যাচ্ছে না
আমার দৃষ্টি সীমানায় আবদ্ধ আকাশের কোন অংশে।   
আমি এখনো আরামেই ফুঁকে নিচ্ছি নিশ্বাস;
কখনো মুখ বন্ধ করে নাকে
            কখনো নাক বন্ধ করে মুখে 
                       কখনো একসাথে নাকে-মুখে। 
আহ! কী শান্তি! আহ কী শান্তি বেঁচে থাকায়! 
                                        কী স্বস্তি নিশ্বাসে! 
আমি এখন নিশ্চুপে ঘুমাতে যেতে পারি..
                                  এই নিশ্চিন্ত বিশ্বাসে।

কিন্তু না! 
একটা সদ্যোজাত শিশুর কান্না
আমাকে ঘুমাতে দিচ্ছে না!
পাশের বাসার জানালা বেয়ে...কান্নার শব্দ 
ভেদ করছে আমার কর্ণকুহর..... 
মস্তিষ্কে ঢুকে উৎপাদন করছে হাজারটা প্রশ্ন.....

এটা কি জন্ম নেয়া শিশুটির 
              স্বাভাবিক প্রথম চিৎকার?
              নাকি চিৎকার দিয়ে করা প্রতিবাদ?

নাকি আমাজনের উত্তাপে 
পুড়ে যাচ্ছে তার কোমল, মসৃণ, তুলতুলে ত্বক?

তবে কি... 
আমাজনের ধোঁয়ায় জ্বলে যাচ্ছে তার চোখ? 
শত কষ্টে, পিটপিট করে যাচ্ছে..
তবুও কি খুলতে পারছেনা সে চোখের পাতা?

পৃথিবীর ফুসফুস নামে পরিচিত - আমাজনে, 
তার নামে বরাদ্দ থাকা বৃক্ষটি পুড়ে যাওয়ায়, 
নিজের ফুসফুসে দম নিতে কষ্ট হচ্ছে কি তার? 

এই চিৎকার কি তার নিশ্বাস না নিতে পারা কষ্টের?

না, এখন আমার-
নাক ডেকে ঘুমাতে যাবার সময় নয়; 
এখন আমার পাশের বাসার কলিংবেল চেপে,
নাক গলানোর সময়
শিশুটির খোঁজ নেওয়ার সময়
অনধিকার চর্চা করার সময়। 
কখনো কখনো অনধিকার চর্চাই অধিকার। 
যেমন অধিকার আছে আমার ফুসফুসের, 
নিজের সীমানার বাইরে, পৃথিবীর যেকোনো 
ফুসফুসে উৎপন্ন অক্সিজেন থেকে নিশ্বাস নেবার।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড