• রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাণ্ডুলিপির কবিতা

লোডশেডিং এলেই; মনে পড়ে পাপ

  রিফাত জাহান নদী

১৯ জানুয়ারি ২০২০, ১০:২৭
কবিতা
প্রচ্ছদ : কাব্যগ্রন্থ ‘প্যারালাইজড সন্ধ্যা’

প্যারালাইজড সন্ধ্যা

সেদ্ধ ভাতের মত যাই না গলে
মোমের মত যাই সবসময় জ্বলে!
প্যারালাইজড সন্ধ্যায় ছেড়ে দৌড়ঝাঁপ,
লোডশেডিং এলেই; মনে পড়ে পাপ।


কখনো ভাবিনি
     
ভাবিনি কখনো লিখিব কাব্য
কখনো কাহারো লাগি,
জাগিয়া থাকিব সারা নিশিরাত
চাঁদের পরশ মাখি।

ভাবিনি কখনো চৈত্রের রোদে
ঘাম ঝরিবে গায়,
শীতের সকাল পার হবে মোর
কাহারো প্রতীক্ষায়।

ভাবিনি কখনো বর্ষার জলে
ভিজিবে অঙ্গখানি,
তাই দেখে দেখে হিজল বনে
চলবে কানাকানি।

ভাবিনি কখনো কাহারো পরশে
রাঙিয়া উঠিবে মন,
রঙিন স্বপনে বিভোর হবে
ছোট্ট দু’নয়ন।

ভাবিনি কখনো এই ধরণী 
এত সুন্দর হবে,
ফুলে ফুলে সব প্রজাপতিরা
মাতবে কলরবে।

আগমনে কার কদম কেয়া
লুকাল আঁধার তলে
চাঁদ ও যেন হারিয়ে গেল
গহীন মেঘের তলে।


অদৃশ্য বেলা

কোন আকাশের সূর্য তুমি
 হাত বাড়িয়ে ডাকো,
কোন তুলিতে হাত বুলিয়ে
আমার ছবি আঁক।
কোন আঁধারে বাঁশবাগানে
মাথার উপর বসে,
খেলছ খেলা আমায় নিয়ে
সদাই হেসে হেসে।
কোন নায়েতে পাল তুলিয়া
গাইছ সুখের গান,
বাজেনা কেন বাঁশি আজমের
কাঁদিয়া আকুল প্রাণ।
কোন ঢেউ যেতে ভাষায়ে তুমি
মারছ হাতে তালি,
আছড়ে পড়ে সে ঢেউ দেখে
সামনে চোরাবালি।
কোন পাবনের নাগর দোলায়
দোলাও তুমি মোরে,
বাঁধিয়া কেন আপন ডোরে
রাখছ সদা দূরে।
কোন পাহাড়ের চূড়ায় তুমি
বান্ধ আমার ঘড়,
খুঁজতে গিয়ে সে ঘর দেখি
শূন্য বালুচর। 


বাসনা

আগেকার মত আর নাহি তার কিছু
তবু চাহে মন তারে খুঁজে তার পিছু।

অতৃপ্ত বাসনা তা নীল অনলে পুড়ে
ছাইসম আঁচল তার বাতাসেতে উড়ে।

কাল মেঘ ডাকে তারে দক্ষিণা বায়ে
আলতা পরশ তার নাহি রয় পায়ে।

কাল কেশ নাই তার ঐ মেঘ সম
মাটির প্রদীপ নিভে বারে জ্বালা মম।

স্তব্ধ বাতাসে আজি উড়েনাকো চুল
কাঁদিয়া কাঁদিয়া তরু এমনি ব্যাকুল।

দীঘির জলেতে ভাসে সাদা বক উড়ে
কাল কাক ডাকে আজি বসে সেই পাড়ে।

বিষমাখা তীর বুঝি গায়ে তার বিঁধে
বলে সে আপন মনের মিটে নাই খিদে।


জননী 

জানে যে জন মনের খবর
সে জন হল মা,
তার কাছে ভাই কোনো কিছুই
গোপন থাকেনা....

চোখ দেখে সে জানতে পারে
ভেতর মনের কথা,
মুখ দেখে সে বলতে পারে
প্রাণে কিসের ব্যথা...

স্বর্গ নরক সবকিছু যে
তারি পায়ের নিচে,
তারি পরশ ছাড়া যেন 
এ দুনিয়া মিছে....

হোকনা কেন যতবড় 
আলেম জ্ঞানী গুণী,
সবাইকে তাই আসতে হয়েছে
মায়ের গর্ভে জানি...

এই জগতে হতনা কভু
তাদের গুনের কদর,
যদি তারা না পাইত
মায়ের মধুর আদর...

দুঃখ যে জন দেয়রে ভাই
মায়ের মন মাঝারে,
সুখ কখনো পায়না সে এই
ভবের বাজারে...

হয়নি যাহার এ ভুবনে
মায়ের সাথে দেখা,
সব থাকিলে ও এ ধরণী
লাগবে যে তার ফাঁকা।

আরও পড়ুন- ঘুমিয়ে আছে সূর্যসেন ডাক দিও না- অতি ক্লান্ত উনি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড