• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন

বই আলোচনা

শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি : এক সাহসী উচ্চারণ

  শামছুল কাদীর মিছবাহ

০১ জুলাই ২০১৯, ১০:৫০
কবিতা
প্রচ্ছদ : কাব্যগ্রন্থ ‘শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’

কবি ফাহমিদা ইয়াসমিনের ‘শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’ কাব্যগ্রন্থটি সময়ের সাহসী উচ্চারণ। কাব্যগ্রন্থটির নামেই বুঝা যায় যে চলমান সময়ের মানুষ নামক অমানুষদের সন্দেহ, মিথ্যা, ছলনা, প্রতারণার বিরুদ্ধে অগ্নিস্ফুলিঙ্গ দিয়ে এই কাব্যগ্রন্থের সৃষ্টি। কবি তার প্রতিটি কবিতাকে সাজিয়েছেন সহজ সরল সুন্দর রূপে। কোনো চাতুরতা নেই, নেই কোনো শব্দের লুকোচুরি ভাবের ত্রুটি উপমার কলঙ্ক। শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি কাব্যগ্রন্থটি অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৮ প্রকাশিত হয়েছে। কাব্যগ্রন্থে রয়েছে জীবনমুখী কবিতা, বাস্তববাদী কবিতা প্রেম ও দ্রোহের কবিতা, প্রকৃতি প্রেমের কবিতা, মানবতাবাদী কবিতা।

এক কথায় পঞ্চরঙ্গের কবিতার অপূর্ব সমন্বয় রয়েছে কাব্যগ্রন্থে। কাব্যগ্রন্থের শুরুর কবিতাটি শংকা, মাঝের কবিতা ‘শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’ এবং শেষের কবিতাটি ‘সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’। মন মানবিকতা, মানুষ, প্রকৃতি, ভাষা, বিজয়, নারী দেশপ্রেম, প্রেম ও প্রবাসে থেকেও দেশের প্রতি গভীর মমত্ববোধ প্রকাশ করেছে কবিতার পরতে পরতে। প্রথম কবিতা ‘শংকা’ লিখেছেন কবি আজ আর কোনো কিছুতেই ডর লাগেনা মন ভাঙেনা শংকার দিবা নিশির ভেতর বাহির বলে কিছু নাই অন্ধকারের পর অন্ধকার হাহাকারের পর হাহাকার। কবি কবিতায় প্রকাশ করেছেন চিরন্তন সত্য কথাটি। কোনোকিছুতেই ভয় লাগেনা কবির জগতে মানুষ এখন বেশিরভাগ বিশ্বাসঘাতক ও মুখোশধারী । তা দেখতে দেখতেই কবি পাঠক কে জানিয়েছেন। এসব ভেবেই পথ চলতে হবে ভয় করলে চলবে না। পথ ও পথের কাঁটা মাড়িয়ে এগিয়ে যেতে হবে সামনের পথে। 

মানুষের মুখাবয়বের মুখোশে ক্ষতিগ্রস্ত সমাজ। বিশ্বাসের জলে হাবুডুবু খাচ্ছে সহজ সরল প্রাণ। কবি কাব্যগ্রন্থের মাঝের কবিতায় ‘শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’ তে লিখেছেন বিষাক্ত সাপের ছোবল সুহৃদের বেশে আসে স্বজনের নগরে মধু কথা বলে ভাসন্ত বেহুলার কেটে যায় কাল। অপেক্ষার খোঁয়াড়ে প্রতীক্ষায় কাটে শুদ্ধ লখাই। খুব সুন্দর ভাবে ছলনা ও প্রতারণাকে কবি প্রকাশ করেছেন তাঁর কবিতার পঙক্তিতে পঙক্তিতে যা একেবারেই অতুলনীয়। সুহৃদের বেশে আজকাল যারা আসে তারা অবশেষে বিষাক্ত সাপ হয়ে ছোবল দেয় এবং কেড়ে নেয় সবকিছু। তারপরও কবি আশার বাণী যুগিয়ে বলেছেন শখের নগরে বাজালো যে বাঁশি তার সুরে প্রেম নেই ছলনার কলা কৌশল শুভতার দিন রাত্রি মাপেনা অসুখ শংকায় কাটে বিষে কী অমৃতের বাস! না, পতনের গ্রাস।

কাব্যগ্রন্থটির শেষে লিখেছেন আবার ‘সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’ নামক আরেকটি কবিতা একেবারে সাদা মনের মানুষের মতো বলেছেন তোমাদের মুখগুলো আমাকে নূতন পথের কথা বলে রোজ রোজ শুনি কোকিলের গান। কোকিলকে সময় ও মানুষের ব্যবহারের সাথে উপযুক্ত সুন্দর ও সত্য উপমায় ব্যক্ত করে নীরবতার স্বরবচিত্রের পরিসমাপ্তি ঘটালেন বেলা শেষে জানা হয় কোকিলের সুরে প্রেম ছিল না শুধু ছিল সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি।

৭৫টি কবিতায় সমৃদ্ধ কাব্যগ্রন্থটিতে রয়েছে প্রেম, মুক্তিযুদ্ধ, দেশপ্রেম, অসহায় নারীদের নিয়ে বেশ কয়েকটি শ্রেষ্ঠ কবিতা। প্রবাসের মাটিতে শত ব্যস্ততার মাঝেও বাস করে কবি সুদূর লন্ডন থেকে দেশের প্রতি টান তাঁর প্রিয় মনোনদী ও শৈশবের স্মৃতিচারিত কাব্যগুলোও বেশ চমৎকার ফুটেছে। মজবুত বাঁধাই ও সুন্দর প্রচ্ছদে ‘শংকা ও সময়ের নিষিদ্ধ ধ্বনি’ কাব্যগ্রন্থটি ২০১৮ সালের বাংলা সাহিত্যের একটি শ্রেষ্ঠ কাব্যগ্রন্থ। বইটি প্রকাশ করেছেন লিখন প্রকাশন, প্রচ্ছদ রাজিব রায়, মূল্য ১৮০ টাকা।

নবীন- প্রবীন লেখীয়োদের প্রতি আহ্বান: সাহিত্য সুহৃদ মানুষের কাছে ছড়া, কবিতা, গল্প, ছোট গল্প, রম্য রচনা সহ সাহিত্য নির্ভর আপনার যেকোন লেখা পৌঁছে দিতে আমাদেরকে ই-মেইল করুন inbox.odh[email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড