• শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

না ফেরার দেশে একুশে পদকপ্রাপ্ত কবি হায়াৎ সাইফ

  সাহিত্য ডেস্ক

১৩ মে ২০১৯, ১৫:৩৫
ছবি
ছবি : ষাট দশকের খ্যাতিমান কবি ও অনুবাদক হায়াৎ সাইফ

চলে গেছেন একুশে পদকপ্রাপ্ত ষাট দশকের খ্যাতিমান কবি ও অনুবাদক হায়াৎ সাইফ। গতকাল (১২ মে) রাত ১২টায় তিনি রাজধানীর ইউনাইটেট হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

পিতৃপ্রদত্ত নাম সাইফুল ইসলাম খান হলেও তিনি পরিচিত ছিলেন হায়াৎ সাইফ নামেই। তিনি বাংলাদেশ স্কাউটসের সাবেক জাতীয় কমিশনার, জনসংযোগ ও প্রকাশনা এবং আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন অব মুসলিম স্কাউটসের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

ইউনাইটেট হাসপাতাল থেকে গণমাধ্যমকে কবির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ স্কাউটসের পরিচালক (প্রশাসন) কাজী আসিফুল হক। তিনি বলেন, ‘কিডনি জটিলতাসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন হায়াৎ সাইফ। তাকে ২২ মার্চ এই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। ভর্তির পর থেকেই তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে রাখা হয়েছিল।’ 

খ্যাতিমান এই কবি ১৯৪২ সালের ১৬ ডিসেম্বর ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন। স্কুল জীবন থেকেই লেখালেখি করতেন তিনি। তার প্রথম কবিতা ১৯৬২ সালে ‘মাসিক সমকাল’- এ প্রকাশ পায়। ইংরেজি সাহিত্যে এমএ পাস করার পর তিনি পাকিস্তান রেডিওতে সংবাদ পাঠ ও অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন। পরে সিভিল সার্ভিসে যোগ দেন। ১৯৯৯ সালে তিনি সরকারি চাকরি থকে অবসরে যান।

এই কবির প্রকাশিত কবিতার বই আটটি ও কয়েকটি গদ্য এবং অনূদিত গ্রন্থ রয়েছে। ১৯৯২ সালে তার লেখা সাহিত্য বিষয়ক সংকলন গ্রন্থ উক্তি ও উপলব্ধি প্রকাশিত হয়। ২০০৪ সালে মাহবুব তালুকদারের সাথে যৌথভাবে বাংলাদেশের সমসাময়িক গদ্য নিয়ে একটি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়। ২০০৯ সালে প্রকাশিত হয় কবিতা সংকলন প্রধানত স্মৃতি এবং মানুষের পথচলা যাতে ৭৫টি কবিতা রয়েছে। 

নবীন- প্রবীন লেখীয়োদের প্রতি আহ্বান: সাহিত্য সুহৃদ মানুষের কাছে ছড়া, কবিতা, গল্প, ছোট গল্প, রম্য রচনা সহ সাহিত্য নির্ভর আপনার যেকোন লেখা পৌঁছে দিতে আমাদেরকে ই-মেইল করুন [email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড