• শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

ছোট গল্প : আক্ষেপ

  নাহিদুল ইসলাম ইমন ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১২:৩৬

গল্প
ছবি : প্রতীকী

সিঁড়ির রেলিং ধরে, আস্তে পায়ে ছাদে আসলো নাহিদ। এমনভাবে আসলো যাতে কেউ বুঝতে না পারে। এই ছাদটার এক অদ্ভুত ক্ষমতা আছে,এখানে আসলেই কিভাবে যেন ওর মন ভাল হয়ে যায়। ঠিক ভাল হয়ে যায় সেটা বলা যায় না  তবে অনেকটাই হালকা লাগে। ছাদ থেকে আকাশের দিকে তাকালেই কেমন অদ্ভুত বিচিত্র জগত চোখের সামনে ভেসে ওঠে।ছাদের কিনারা ধরে আকাশের দিকে একদৃষ্টিতে তাকিয়ে আছে নাহিদ। আজ আকাশে তারার সংখ্যাটা অনেক।দেখে মনে হচ্ছে দূরে কোথাও মশাল হাতে কারা যেন মিছিল করছে।স্নিগ্ধ বাতাস, তারাভরা আকাশ সবমিলিয়ে হারিয়ে যেতে মন চাই অজানায়।

নাহিদ হাতে থাকা ডায়েরিটা সামনে নিয়ে লিখতে শুরু করলো। এই ডায়েরিটা ওর অনেক প্রিয়।আগে ও দিনক্ষণ একেবারে কাটায় কাটায় মনে রাখতে পারতো কিন্তু এখন আর ওর এসব ভাল লাগেনা। ভাল লাগে না বললে ভুল হবে তবে মনে রাখার প্রয়োজন পড়ে না।আগে কারো মায়ায় হয়তো দিনক্ষণ মনে রাখার শক্তি পেত কিন্তু এখন সেই মায়াটা আর নেই, নেই সেই অনুভূতি গুলো।নেই ছাদে দাড়িয়ে রঙিন স্বপ্ন দেখার আয়োজন কিন্তু আছে তারাভরা আকাশ দেখে মন শান্ত করার সান্ত্বনা।

কি অদ্ভুত এই প্রকৃতি!
যে প্রকৃতি কখনো দিয়েছে সুখের অনুভূতি, কত শত স্বপ্ন বুনেছি-সাজিয়েছি এখানে দাঁড়িয়ে আর এখন সেগুলো স্মৃতিচারণেই সুখ।সেই মায়া আজ নেই,সে হয়তো অন্য কাউকে তার মায়ার ঘোরে আবদ্ধ করতে ব্যস্ত কিন্তু আমি.?বিচিত্র এই পৃথিবীর স্বার্থপর মানুষগুলো এই ‘আমি’ এর কষ্ট-দুঃখ কেউ নিবে না।

১৪ই এপ্রিল
১৭ই এপ্রিল
১৬ই জুন
৮জুলাই
১১ই জুলাই
১৬ই অক্টোবর
তারিখগুলো নাহিদের ভীষণ পছন্দের ছিল। তবে সে এখন এগুলোকে ঘৃণা করে। এই তারিখগুলোই তাকে মিছে মায়ায় আবদ্ধ করেছিল। ঘাসফড়িঙ ধরতে চাইলে তার থেকেও বেশি সূচারু হতে হয়। আবেগ বড় জোড় রঙিন তারিখ উপহার দিতে পারে কিন্তু বাস্তব উপলব্ধির থেকে অনেক দূরে থাকে।এই আবেগ দিয়ে ভেসে বেড়ানো সম্ভব কিন্তু ভেসে বেড়ানো জিনিস শুধু ভাসতেই থাকে।আজ  এখানে তো কাল ওখানে কিন্তু স্থায়ী ঠিকানা পাবে কি?

পৃথিবীতে খুব কম মানুষই ভাল জিনিসের কদর করতে জানে।আর সহজে পেলে তো মূল্যায়নই করেনা।কিন্তু এই মানুষগুলিই যখন তার ভুল বুঝতে পারে তখনই সে অনুশোচনায় ভোগে কিন্তু তাতে না হবে নিজের উপকার না হবে অন্যের।ভুল জিনিসটা মানুষকে বুঝতে শেখায় কিন্তু একই ভুল বারবার করলে সেটা কি শুধুই ভুল থাকে..?

‘বিশ্বাস’ ছোট একটি শব্দ কিন্তু এর মাত্রাটা অত্যধিক রকমের বড়।আবার এর সামনে ‘অ’ অক্ষর যুক্ত হলেই মানুষের চরম সর্বনাশ হয়ে যায়।শুধুমাত্র এই ‘অ’ যুক্ত হওয়ার কারণে ভেঙে যায় হাজারো স্বপ্ন,ম্লান হয়ে আস্তে আস্তে গড়ে তোলা সুখের অনুভূতিগুলো কথাগুলো খসখস করে খুব দ্রুতই নাহিদ তার ডায়েরিটাতে লিপিবদ্ধ করে ফেলল।

নবীন- প্রবীন লেখীয়োদের প্রতি আহ্বান: সাহিত্য সুহৃদ মানুষের কাছে ছড়া, কবিতা, গল্প, ছোট গল্প, রম্য রচনা সহ সাহিত্য নির্ভর আপনার যেকোন লেখা পৌঁছে দিতে আমাদেরকে ই-মেইল করুন [email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড