• শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

পরীক্ষায় ভালো করতে ঘুমিয়ে পড়ুন ৯টার মধ্যেই : গবেষণা

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

১৩ মে ২০১৯, ২১:২৪
ঘুম
ছবি : প্রতীকী

পরীক্ষা অনেকের কাছেই এক যন্ত্রণার নাম। ছাত্র জীবন শেষ হলেও শেষ হয়না পরীক্ষার “যন্ত্রণা”। স্কুল-কলেজের পরীক্ষা, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা কিংবা চাকরি পাবার পরীক্ষা সবখানেই এটি বেশ কষ্টকর একটি অনুভূতি। তবে যতই যন্ত্রণার হোক না কেন পরীক্ষা ক্যারিয়ারের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর একটি। মানুষ হিসেবে আপনাকে নানা রকম পরীক্ষার মুখোমুখি হতেই হবে।

তবে চাকরি বা শিক্ষাজীবনের কোন পরীক্ষায় অংশ নিতে যাচ্ছেন যারা তাদের জন্য একটি সুখবর আছে। কখন বা কিভাবে পড়লে বেশি মনে থাকে এবং ভালো করা যায় পরীক্ষায় তা নিয়ে অনেক রকম পদ্ধতি চালু আছে। তবে এসব পদ্ধতি গুলিয়ে ফেলেন অনেকে। ফলে দেখা যায় লাভের চেয়ে ক্ষতিই হয় বেশি। এর থেকে শিক্ষার্থীদের মুক্তি দিতে  ব্রিটেনের একদল স্নায়ুবিজ্ঞানী বের করেছেন নতুন একটি উপায়। পড়াশোনায় গতি আনতে তারা একটি ফর্মুলা তৈরি করেছেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক কী সেই ফর্মুলা।

পড়ার সময় :

সেই স্নায়ুবিজ্ঞানীদের মতে, পরীক্ষায় ভালো করতে চাইলে পড়াশোনায় মনোযোগ আনতে হবে। আর এ জন্য সবার আগে গুরুত্ব দিতে হবে পড়ার সময়ের ব্যাপারে। কখন পড়তে বসছেন সেটা কিন্তু বেশ গুরুত্বপূর্ণ।  তাদের মতে প্রতিদিন পড়ার একটি নির্দিষ্ট সময় ঠিক করে নিতে হবে এবং সে অনুযায়ী পড়তে হবে। এর ফলে মস্তিষ্ক এতে বেশ অভ্যস্ত হয়ে পড়বে। যা বেশি মনে রাখতে বেশ সাহায্য করে থাকে।

মুখস্থকে না :

স্নায়ুবিজ্ঞানীরা গবেষণা করে প্রমাণ পেয়েছেন যে যারা না বুঝে কেবল মুখস্থ করে তাদের থেকে যারা বিষটি বুঝে আত্মস্থ করার চেষ্টা করে তাদের পরীক্ষায় ভালো করার সম্ভাবনা বেশি। কেননা মস্তিষ্ক মুখস্থ করতে অভ্যস্ত নয়। তাই না বুঝে মুখস্থ করার চেয়ে চেষ্টা করুন বিষটি ভালোভাবে অনুধাবন করে পড়ার.

উদ্দীপনা জাগান :

নিজের ভেতরে প্রফুল্ল একটা ভাব ধরে রাখার চেষ্টা করুন। মন খারাপ করে আর যাই হোক পড়াশোনা হয় না। তাই ব্রিটিশ স্নায়ুবিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, কোন বিষয়কে অন্মুধাবন করার সময় এমন কিছু করুন যাতে আপনার মধ্যে আত্মবিশ্বাস সৃষ্টি হবে। যেমন অনেকে আত্মবিশ্বাস বাড়াতে দুটো কান ধরে হালকা করে টেনে থাকেন, কেউ লেবু বাঁ কোন ফুলের ঘ্রাণ নিয়ে থাকেন কিংবা পানি পান করে থাকেন অনেকে। বিজ্ঞানীরা বলছেন আত্মবিশ্বাস বাড়লে আপনি পরীক্ষার ভয় কাটিয়ে উঠতে পারবেন। ফলে যাই পড়বেন তাই হৃদয়ঙ্গম করতে সক্ষম হবেন।

বেশি রাত জাগবেন না :

স্নায়ুবিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, রাত নয়টার পর আর না পড়তে। এর মধ্যে ঘুমিয়ে পড়ার চেষ্টা করুন। কেননা বেশি রাত জাগলে মস্তিষ্ক অনেক ব্যাপারই গোলমাল পাকিয়ে ফেলে। এর ফলে মনের মধ্যে দুশ্চিন্তা বাড়ে। নয়টার মধ্যে ঘুমিয়ে সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে পড়তে বসুন। দেখবেন পড়ায় আলাদা আগ্রহ পাচ্ছেন। আর ঘুমাতে যাবার আগে ভুলেও কম্পিউটার,টিভি বা মোবাইল স্ক্রিনের সামনে থাকবেন না। এতে আপনার ঘুমের ব্যাঘাত হতে পারে।

সূত্র : বিবিসি

ওডি/এসএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড