• বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

ব্রেকিং :

কিরগিজস্তান ২-১ গোলে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারানোয় বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক ফুটবলের সেমিফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ||শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় নিহত শিশু জায়ান চৌধুরীর জাতীয় সংসদে শোক প্রস্তাব গৃহীত; সপ্রতি বিশিষ্টজনদের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়ে সংসদে এক মিনিট নিরবতা পালন||ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্ধিত বেতন ফি প্রত্যাহারের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি প্রশাসনের আশ্বাসে প্রত্যাহার করেছে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা; সকালে আটক ২২ শিক্ষার্থীকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ||শ্রীলঙ্কায় ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বোমা হামলা করে শিশু জায়ান চৌধুরীরসহ নিরপরাধ মানুষ হত্যাকারীরা মানবতার শত্রু : সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা; এ ধরনের ঘৃণ্য হামলার নিন্দা জানানোর ভাষা নেই||শিশু জায়ান চৌধুরীর জানাজা বনানী ক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত; দাফন করা হবে বনানী কবরস্থানে

দূর করুন ছুটির পর কর্মক্ষেত্রে আসার অহেতুক ক্লান্তি!

  সাদিয়া ইসলাম বৃষ্টি ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:২৪

ক্লান্তি
ছবি : প্রতীকী

বড় একটা ছুটি কাটিয়ে এসে অফিসে প্রথম দিন কাজে মন বসছে না? ক্লান্ত লাগছে, বিরক্ত লাগছে? আমরা প্রতি সপ্তাহে যে ছুটি পাই সেটা আমাদের শারীরিক সুস্থতার জন্য প্রয়োজনীয়। গবেষণায় দেখা যায় যে, সাপ্তাহিক ছুটি মানুষের রক্তচাপ কমিয়ে দেয়, ঘুমের স্বাভাবিকতা ফিরিয়ে আনে এবং মানুষকে সুস্থ রাখে।

তবে ছুটির পরিমাণ বেশি হলে সেক্ষেত্রে আমাদের শরীরে খানিকটা প্রভাব থেকে যায়। যার ফলে পরবর্তীতে কর্মক্ষেত্রে মানিয়ে নিতে কষ্ট হয়। এই সমস্যাকে দূর করতে চান? চলুন, জেনে নেওয়া যাক ছুটি শেষে কীভাবে কর্মক্ষেত্রে ঠিক আগের মতো কর্মক্ষম হিসেবে ফিরে আসার কিছু কৌশল।

শান্তিপূর্ণভাবে কিছুটা সময় কাটান-

ছুটির সময় নিজের জন্য কিছুটা সময় বের করে নিন। এই সময়টুকুতে চোখ বন্ধ করে আপনাকে মানসিক প্রশান্তি দেয় এমন একটি শব্দ বারবার মনে করুন। যোগব্যায়াম করুন। সেটা যদি ১০ মিনিটের জন্য হয়, তাহলে তাই করুন। তবুও নিজেকে খানিকটা মানসিক ও শারীরিকভাবে শান্ত করে তুলুন।

আর এই প্রক্রিয়া আপনি ব্যবহার করতে পারেন আপনার কর্মক্ষেত্রেও। যদি মানসিকভাবে খারাপ বোধ করেন তাহলে অফিসের শান্ত একটি স্থান বেছে নিন আর সেখানে কিছুটা সময় চোখ বন্ধ করে মনকে শান্ত করার চেষ্টা করুন। দেখবেন, বেশ ভালো লাগবে।

ছুটির দিনেও শরীরকে কর্মক্ষম রাখুন-

ছুটির দিনে নিশ্চয় কোনো বাড়তি কাজ আপনি করতে চাইবেন না। তবে চেষ্টা করুন বিশ্রাম নেওয়ার পাশাপাশি ছুটির দিনে খানিকটা শরীরচর্চা করার। এমন না যে আপনাকে জিমে যেতে হবে বা ভারী কোনো শরীরচর্চা করতে হবে।

তবে, ছুটির দিনে সারাদিন বাসায় না বসে থেকে বাইরে বের হোন। গবেষণানুসারে, দিনের আলো আমাদের শরীরে সেরোটোনিন নামক এক রকমের রাসায়নিক পদার্থ নিঃসরণ করে, যেটি কিনা আমাদের মনকে ভালো করে দেয়। এতে করে আপনি কর্মক্ষম থাকবেন, আপনার মন ভালো থাকবে। ফলে পরদিন অফিসে গিয়ে আপনি আর হুট করে কোনো নতুন মানসিক সমস্যায় ভুগবেন না।

প্রযুক্তির যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করুন-

এই প্রক্রিয়াটি শুরু করুন দিনের প্রথম থেকেই। অফিসে প্রথম দিন তার মানে কিন্তু এই নয় যে, আপনি অনেক বেশি ইন্টারনেট, ফোন বা ল্যাপটপে কাজ করবেন। নিজেকে খানিকটা মানসিক বিরতি দিন। যেসব প্রযুক্তি ব্যবহার না করলেও চলে সেগুলোকে একটু এড়িয়ে চলুন। শুধু ছুটির দিনেই নয়, ছুটি থেকে ফেরার পরও এই অভ্যাসটি করুন। অন্যথায় আপনি মানসিকভাবে অনেক বেশি চাপ অনুভব করবেন।

পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমিয়ে নিন-

ছুটিতে অনেক অনেক কাজ? সব করবেন। কিন্তু তার আগে ভালো করে ঘুমিয়ে নিন। আপনি কর্মক্ষেত্রের প্রথম দিনেই যে ক্লান্তি অনুভব করছেন, এর পেছনে আপনার পর্যাপ্ত না ঘুমানোটাই নেই তো? আপনার শরীরটি যন্ত্র নয়।

আরও ভালোভাবে বলতে গেলে, যন্ত্রও একটা নির্দিষ্ট সময় পর কাজ করা বন্ধ করে দেয়। আর ঠিক এমনটাই আপনার শরীরের সাথে ঘটাও খুব স্বাভাবিক। তাই, ছুটির দিনে পর্যাপ্ত ঘুমের পরিমাণ পূরণ করুন। এতে করে সপ্তাহের প্রথম দিনে আপনি অনেক বেশি সতেজ মনে কাজ কাজ করতে পারবেন।

নিয়ম একই রাখুন-

আপনি অফিসে একটা নির্দিষ্ট সময়ে খাবার গ্রহণ করেন। কিন্তু ছুটির সময় সময়টা পাল্টে যেমন ইচ্ছে তেমন, যখন খুশি তখন খাবার খেয়েছেন? অবশ্যই এর নেতিবাচক প্রভাব তো আপনার উপরে থাকবেই। এই সমস্যা থেকে দূরে থাকতে অফিসে থাকুন বা ঘরে, নিজের কাজের সময়গুলো একই রাখুন। এতে করে কর্মক্ষেত্রে ছুটির সময় গড়ে তোলা অভ্যাসগুলোর প্রভাব পড়বে না।

এতেও যদি কাজ না হয়, তাহলে ছুটির পর কর্মক্ষেত্রের প্রথম দিনেই খুব বেশি বা বড় কোনো কাজ না রাখার চেষ্টা করুন। চেষ্টা করুন নিজেকে মানসিকভাবে কর্মক্ষেত্রের জন্য প্রস্তুত রাখার। কর্মক্ষেত্রেও থাকুন পুরোপুরি কর্মক্ষম!

মূল লেখক- ডক্টর স্যামিউল লো, পার্কওয়ে হসপিটাল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড