• বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন

চা সম্পর্কে অজানা যা কিছু

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

২৬ জুন ২০১৯, ১৩:৩৫
চা
ছবি : ইন্টারনেট

চা ভালোবাসেন না এমন মানুষের সংখ্যা কমই বলা চলে। কারও কারও তো এক কাপ চায়ে চুমুক দেওয়া ছাড়া সকালই হয় না। আপনি কী একজন চাপ্রেমী? চা সম্পর্কে কতটা জানেন আপনি? আজ চলুন চা নিয়ে অজানা কিছু তথ্য জেনে নেওয়া যাক- 
 
● কেবল এক পাউন্ড চা তৈরিতে কতটুকু চা পাতা লাগে জানেন? প্রায় ২০০০ চা পাতার কুড়ি। 
    
● পুরো বিশ্বে প্রায় ৩০০০ ভিন্ন জাতের চা পাওয়া যায়। 

● পানির পর সারা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি পান করা হয় চা। 

● প্রচলিত রয়েছে, বিশ্বে সর্বপ্রথম চা পানের প্রচলন করেন চীনের সম্রাট সম্রাট শেন নাং। সময় তখন খ্রিস্টপূর্ব ২৭৩৭ সাল। একদিন তিনি বাগানে বসে গরম পানি খাচ্ছিলেন। তখন একটি বুনো গাছ থেকে কিছু পাতা এসে পানিতে পড়ে এবং পানির রং লালচে হয়ে যায়। তারপর তিনি সেই রঙিন পানিই পান করেন। এভাবেই আগমন ঘটে চায়ের। 

● বাজারে ব্ল্যাক টি, গ্রিন টি, ওলং টি ইত্যাদি প্রচলিত রয়েছে। এগুলো সবগুলোই উৎপন্ন হয় একই গাছ থেকে যার বৈজ্ঞানিক নাম ক্যামেলিয়া সিনেসিস। প্রক্রিয়াজাতকরণের ফলে এসব চায়ের স্বাদ, গন্ধ আর আকারে ভিন্নতা আসে। 

● বৃটেনে একজন মানুষ প্রতি বছর কত কাপ চা পান করেন জানেন? আনুমানিক ১ হাজার কাপ। বিশ্বজুড়ে প্রতি বছর চা পান হয় ৩.৬ বিলিয়ন কাপ। 

● বিশ্বের সবচেয়ে দামি টি ব্যাগটি কাগজ নয় হীরের তৈরি। ইংল্যান্ডের বুডলস জুয়েলারি তৈরি করেছিল এটি। এক নিলামে ৭ হাজার পাউন্ডে বিক্রি হয় টি ব্যাগটি। 

● বর্তমানে বিশ্বের মোট ৫২টি দেশে চা উৎপন্ন হয়। সবচেয়ে পুরোনো চা গাছটি রয়েছে চীনে, সেটির বয়স ৩,২০০ বছর। 

● মশা তাড়াতে কিন্তু চা পাতার জুড়ি নেই। বিশেষ করে গ্রিন টি পাতা এক্ষেত্রে কার্যকরী ভূমিকা রাখে। 

● বর্তমানে আমরা কেবল পানীয় হিসেবে চা পান করলে শত শত বছর আগে এটি ওষুধ হিসেবে পান করা হতো। 

চা সম্পর্কে এই তথ্যগুলো কি আগে জানা ছিল আপনার? 

সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

ওডি/এনএম 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড