• সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

হাই তোলার উপকারিতা

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

২৪ জুন ২০১৯, ২২:০২
হাই তোলা
হাই তুললে শরীরের বেশ কিছু উপকার হয়। (ছবি : সংগৃহীত)

হাই তোলাটা মানুষের নিত্য দিনের স্বাভাবিক একটি ঘটনা। ক্লান্তি, আলস্য কিংবা বিরক্তি থেকে হাই আসে মানুষের। আর এসব কারণ ঘটে মস্তিষ্কে অক্সিজেনের ঘাটতি হলে। হাই তোলাটা অনেকের কাছে শারিরীক দুর্বলতা মনে হলেও এর কিন্তু বেশ কিছু উপকারও রয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক হাই তোলার উপকারিতাগুলো সম্পর্কে।

চোখ পরিষ্কার করে :

দীর্ঘ সময় ধরে হাই তুললে দুই চোখের পাশে যে অশ্রুগ্রন্থি রয়েছে সেখানে ভালো রকম চাপ পড়ে। এরফলে চোখের মণি ভিজে যায়। এমনকি চোখের ভেতরও প্রবেশ করে অশ্রুজল। যার ফলে চোখ পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

মস্তিষ্কের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ :

গরমের সময় আমাদের মস্তিষ্কের তাপমাত্রা অনেকখানিই বেড়ে যায়। যার ফলে এই সময়টাতে শরীর ক্লান্ত হয় বেশি। মস্তিষ্কে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যায় এই কারণে বেশি। আর তাতেই ওঠে হাই। আর হাই ওঠলে শরীর এবং মস্তিষ্ক দুটোরই তাপমাত্রা থাকে নিয়ন্ত্রণে। এমন তথ্যই উঠে এসেছে আমেরিকার প্রিন্সটন এবং অ্যারিজোনা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষকের গবেষণায়।

জড়তা কাটে :

হাই তোলার ফলে মুখের মাংসপেশী অনেকখানি প্রসারিত হয়। এই প্রসারণ ঘটে বুকের মাংসপেশীর ক্ষেত্রেও। দীর্ঘক্ষণ কোন কাজ না করে আড়ষ্ট হয়ে থাকলে শরীরে এক ধরনের জড়তা কাজ করে । হাই উঠলে এই জড়তা দূর হয়ে যায় নিমিষেই।

ফুসফুস সক্রিয় হয় :

ফুসফুসে স্বাভাবিক সময়ে যে পরিমাণ অক্সিজেন প্রবেশ করে হাই তুললে তার চেয়ে অনেক বেশি পরিমাণ অক্সিজেন প্রবেশ করতে পারে। এর ফলে ফুসফুস অনেক বেশি সক্রিয় হয়ে যায়। হাই তুললে শরীর থেকে কার্বন ডাই অক্সাইড বের হয়ে যায় দ্রুত। যা শরীরের জন্য অশেষ উপকারী।

সূত্র : জি নিউজ

ওডি/এসএম

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড