• মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অজুহাতে ভাঙে মধুর সম্পর্ক

  লাইফস্টাইল ডেস্ক

২০ মার্চ ২০২০, ১৫:৫৩
সম্পর্ক
ছবি : প্রতীকী

পৃথিবীতে সবচেয়ে মধুর সম্পর্কটি হলো ভালোবাসা। এটি হলো দুটো মানুষের মধ্যকার বোঝাপড়া এবং পরস্পরের প্রতি অগাধ বিশ্বাসের এক অনন্য সংমিশ্রণ। 

প্রেমের সম্পর্ক খুব ভালোভাবেই চলতে থাকে কিন্তু হঠাৎ একটা সময় গিয়ে দেখা যায় সম্পর্কটা আর আগের মতো নেই। সঙ্গী সম্পর্কেও বিভিন্ন অজুহাত দেখাচ্ছে। তার মানে আপনার সম্পর্কে ভাঙ্গনের সৃষ্টি হচ্ছে। সে আর এই সম্পর্কটা নিয়ে এগোতে চাইছে না। নারী সঙ্গীরা প্রধানত ৫ ধরনের অজুহাতে সম্পর্ক ভাঙ্গে। 

সম্মান

নারীসঙ্গী যখন সম্পর্কটা ভাঙ্গতে চাইছে তখন এই অজুহাত দিয়ে বলে যে, আপনি তাকে কখনই নাকি সম্মান দিয়ে কথা বলেন না। তাকে আপনি সবসময় ছোট চোখে দেখেন, অপমান করেন ইত্যাদি বলে সম্পর্ক ভেঙে বেরিয়ে যেতে চায়।

দূরত্ব বাড়লে ভালোবাসা বাড়ে

নারীসঙ্গী যখন সম্পর্ক ভাঙ্গতে চায় তখন আপনার কাছ থেকে দূরে থাকতে চাইবে। তার ভাষ্য মতে, দূরত্ব বাড়লে ভালোবাসা বাড়ে। তাই তোমার সঙ্গে আমি সম্পর্কের দূরত্ব বাড়িয়ে দিলাম।

ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যস্ততা

আমি নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যস্ত। এখন তোমাকে সময় দিতে গিয়ে আমার ক্যারিয়ারের ক্ষতি হচ্ছে। যদি আমার ক্যারিয়ার ভালো দেখতে চাও তাহলে আমার সঙ্গে বেশি যোগাযোগ করো না। ক্যারিয়ারের প্রতি মনোযোগী হতে দাও। এসব বলে সে সম্পর্কটা ভাঙতে চাইবে।

পরিবার

সম্পর্ক ভাঙার জন্য সে পরিবারের অজুহাত দেখাবে। সে বলবে, আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি কিন্তু পরিবার আমাদের সম্পর্ক মেনে নেবে না। পরিবারের জন্য আজ আমি এ পর্যন্ত আসতে পেরেছি। তাই পরিবারের বিরুদ্ধে আমি কিছুই করতে পারব না।

ভাগ্য

আমি তোমার সাথে সম্পর্ক ভেঙে ফেলছি তার মানে এই না যে আমি তোমাকে ভালোবাসি না। আমরা যদি সত্যি একজন আরেকজনের হয়ে থাকি তাহলে সৃষ্টিকর্তা আবারও আমাদেরকে মিলিয়ে দেবেন। এমনটা বলতে পারেন তিনি। 

লেখক- তাসনিমুল হাসান প্রান্ত, অর্থ সম্পাদক, দৈনিক অধিকার বন্ধুমঞ্চ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড